ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ইসলামবিদ্বেষী চক্র ওলামাদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০২০, ৮:১০ পিএম

অতি সম্প্রতি একটি ইসলামবিদ্বেষী মহল ইসলামী রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার অপচেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর মহাসচিব প্রিন্সিপাল মাওলানা ইউনুছ আহমাদ। তিনি বলেন, ইসলামবিদ্বেষী গোষ্ঠী ঢাকায় সমাবেশ করে ধর্মভিত্তিক রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি জানায়। ইউনুছ আহমাদ বলেন, বিরানব্বই ভাগ মুসলমানের দেশে ইসলামী রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি সংবিধান বিরোধী। জাসদ সভাপতি ইনু সাহেব ওলামায়ে কেরাম, দেশের শীর্ষ ধর্মীয় নেতবৃন্দকে গালি-গালাজ করে সরকারের কৃপা পাওয়ার চেষ্টা করছে। নাস্তিক্যবাদী গোষ্ঠীর হোতা ইনুরাই ধর্মের অপব্যাখ্যা করে এবং নিজেকে ধর্মভীরু পরিচয় দিতে হজ করে, মাথায় টুপি পরিধান করে নির্বাচনী বৈতরণী পার করে। এখন নিলজ্জভাবে ইসলাম ও ওলামায়ে কেরামগণকে নিয়ে অশালীন বক্তব্য বিবৃতি দিয়ে নিজেদের আসল চরিত্র জাহির করার চেষ্টা করছে।

আজ শনিবার বিকেলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশে-এর কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যালোচনাকালে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, মাওলানা আহমদ আবদুল কাইয়ূম, মাওলানা দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, মাওলানা লোকমান হোসাইন জাফরী ও আলহাজ হারুন অর রশিদ।

প্রিন্সিপাল মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেন, মুসলমানের দেশে ইসলাম ও ইসলামী রাজনীতি আছে এবং ভবিষ্যতে থাকবে। এ নিয়ে যারা বাড়াবাড়ি করছে তাদের মতলব ভালো নয়। ধর্মপ্রাণ ঈমানদার জনতা ইসলামের পক্ষে আছে এবং থাকবে। একটি রাজনৈতিক উচ্ছিষ্টভোগি দালাল চক্র ইসলাম নিয়ে হরহামেশা বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে এবং স্বাধীনতা যুদ্ধের দোহাই দিয়ে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে। মূলত এদের ভূমিকাই ছিল প্রশ্নবিদ্ধ। স্বাধীনতার ৫০ বছর পর এসে ইসলামবিদ্বেষী চক্রগুলো জাতিকে বিভ্রান্ত করে দেশের সম্প্রীতি নষ্ট করতে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। ধর্মের বিরুদ্ধে অবস্থান নিলে মুসলমানরা নিরবে বসে থাকবে না। তিনি ওলামায়ে কেরামের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ছড়ানো থেকে সকলকে বিরত থাকার আহ্বান জানান।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন