ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০৫ মাঘ ১৪২৭, ০৫ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

কর্তব্য পালনে যে কখনও পিছপা হয় না সেই প্রকৃত সৈনিক

বিজিবির ৯৫তম ব্যাচ রিক্রুট মৌলিক প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০৩ এএম

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে উজ্জীবিত হতে এবং বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মূলনীতির প্রতি গুরুত্বারোপে নবীন সৈনিকদের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, সততা, বুদ্ধিমত্তা, নির্ভরযোগ্যতা, আনুগত্য, তেজ ও উদ্দীপনা একটি বাহিনীর শৃঙ্খলা ও পেশাগত দক্ষতার মাপকাঠি। আর শৃঙ্খলা একজন সৈনিকের মূল বৈশিষ্ট্য। আদেশ ও কর্তব্য পালনে যে কখনও পিছপা হয় না, সেই প্রকৃত সৈনিক।

গতকাল শনিবার সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে বিজিবির ৯৫তম ব্যাচ রিক্রুট মৌলিক প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে তিনি এ নির্দেশনা দেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি এইটুকু বলব, দেশ ও জাতির প্রতি একটা সেবার মনোভাব নিয়ে নিজের দায়িত্ব-কর্তব্য পালন করতে হবে। দেশকে ভালোবাসতে হবে। মানুষকে ভালোবাসতে হবে। মানুষের জন্য কাজ করতে হবে। মনে রাখতে হবে এ দেশ অর্থনৈতিকভাবে যত উন্নত হবে, আপনারদের পরিবারগুলোও উন্নত হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৪ সালের ৫ ডিসেম্বর এই বাহিনীর তৃতীয় রিক্রুট ব্যাচ সমাপনী কুচকাওয়াজে অংশ নিয়ে যে ভাষণ দিয়েছিলেন তা স্মরণে আনেন শেখ হাসিনা

জাতির পিতার দেয়া নির্দেশনা মেনে চলার আহ্বান জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, আমি আশা করি, এই নির্দেশনাটাও আপনারা মেনে চলবেন। আমাদের েেযমন সার্বভৌমত্ব রক্ষা,স্বাধীনতা রক্ষা পাশপাশি এই ধরনের অপকর্মগুলো রোধ করে আপনরা আন্তরিকতার সাথে কাজ করবেন। কারণ এই কথাগুলো এখনো প্রাসঙ্গিক। বিজিবি এখন জলে, স্থলে ও আকাশপথে দায়িত্বপালনের সক্ষমতা অর্জন করেছে। বাহিনীর সাংগঠনিক কাঠামোতে ১৫ হাজার জনবল বৃদ্ধির পরিকল্পনা করা হয়েছে, যা তিন ধাপে বাস্তবায়ন করা হবে। স্মার্ট বর্ডার ম্যানেজমেন্টের অংশ হিসেবে সীমান্তে নতুন নতুন বিওপি, বিএসপি নির্মাণসহ অত্যাধুনিক সার্ভেইলেন্স ইকুইপমেন্ট স্থাপন, এটিভি ও অত্যাধুনিক এপিসি, ভেহিক্যাল স্ক্যানার ও দ্রæতগামী জলযান সংযোজন করা হয়েছে।

নবীন সৈনিকদের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের সীমান্তে চোরাচালান রোধে তোমাদের পেশাগত দক্ষতা অর্জন করতে হবে। সুশৃঙ্খল ও উন্নত চরিত্রের অধিকারী হতে হবে। তোমাদের সবার কর্মজীবন সফল হো সেই কামনা করছি। সেবা ও কর্তব্যপরায়ণতার মাধ্যমে এ বাহিনীর সদস্যরা জনগণের আস্থা অর্জন করেছে। দেশ ও জাতির প্রয়োজনে ভবিষ্যতেও একইভাবে জনকল্যাণমূলক কাজে সীমান্ত রক্ষী বাহিনীকে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে। বিজিবির সদস্য ও পরিবারের সদস্যদের চিকিৎসা সেবার জন্য ৫টি হাসপাতালকে আরও উন্নত করা হয়েছে। বিজি হাসপাতাল, ঢাকায় একটি অত্যাধুনিক ক্যাথ ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে।

৯৫তম রিক্রুট ব্যাচের সব সদস্যকে সফলভাবে তাদের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করায় অভিনন্দন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সব বিষয়ে সেরা নবীন সৈনিক হিসেবে (বক্ষ নম্বর-৪৩১) রিক্রুট মো. খোকন মোল্লা’কে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। পাশাপাশি, (বক্ষ নম্বর-৬৮৭) রিক্রুট হাসিনা আক্তার বিথি শ্রেষ্ঠ ফায়ারার হওয়ায় তাকেও অভিনন্দন জানাচ্ছি। তোমরা প্রশংসনীয় ও তেজদীপ্ত কুচকাওয়াজ প্রদর্শন করেছো। আমি আশা করি, আজ যারা বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের পরিবারভুক্ত হয়েছো তারা নিজেদের চরিত্রে মানবিক গুণাবলীর বিকাশ ঘটাবে এবং লোভ-লালসার ঊর্ধ্বে থেকে অর্পিত দায়িত্ব পালনে সর্বদা সচেষ্ট থাকবে।

এ বছর ১৪ জুন থেকে চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার বায়তুল ইজ্জতে অবস্থিত বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর ঐতিহ্যবাহী প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান বর্ডার গার্ড ট্রেনিং সেন্টার অ্যান্ড কলেজে (বিজিটিসিঅ্যান্ডসি)-সহ আরও ৬টি প্রশিক্ষণ ভেন্যুতে ৯৫তম রিক্রুট ব্যাচের মৌলিক প্রশিক্ষণ শুরু হয়। এতে বিজিটিসিঅ্যান্ডসিতে প্রশিক্ষণ নেয়া ৭৯১ জন রিক্রুট মধ্যে ৫৯০ জন পুরুষ এবং ২০১ জন নারী রিক্রুট রয়েছেন। এদিকে বাকি ৬টি প্রশিক্ষণ ভেন্যুতে ৯৫তম রিক্রুট ব্যাচের ১ হাজার ৭৩৩ জন রিক্রুট রয়েছেন। দীর্ঘ ২৪ সপ্তাহের অত্যন্ত কঠোর ও কষ্টসাধ্য এ প্রশিক্ষণ সফলভাবে শেষ করে আনুষ্ঠানিক সর্বমোট ২ হাজার ৫২৪ জন রিক্রুট (নারী-পুরুষ) শপথ গ্রহণ ও সমাপনী কুচকাওয়াজের মাধ্যমে তাদের সৈনিক জীবনের শুভ সূচনা করেছেন।

শনিবার সকালে চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার বায়তুল ইজ্জতে অবস্থিত বিজিবির ঐতিহ্যবাহী প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান বর্ডার গার্ড ট্রেনিং সেন্টার অ্যান্ড কলেজের (বিজিটিসিঅ্যান্ডসি) বীরউত্তম মজিবুর রহমান প্যারেড গ্রাউন্ডে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর ৯৫তম রিক্রুট ব্যাচের প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়। প্রশিক্ষণ সমাপনী কুচকাওয়াজের প্যারেড কমান্ডার প্যারেড পরিচালনা করেন ৯৫তম রিক্রুট ব্যাচের অফিসার ইনচাজ েেমজর কাজী মনজুরুল ইসলাম। প্যারেড এ্যাডজুটেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন সহকারী পরিচালক বেগ আব্দুল্লাহ আল মাসুম। কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠান শেষে ৯৫তম রিক্রুট সৈনিকদের উদ্দেশে স্বাগত বক্তব্য দেন বিজিবি মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মো. সাফিনুল ইসলাম। এর পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে ৯৫তম রিক্রুট ব্যাচের সেরা চৌকষ রিক্রুট হিসেবে ১ম স্থান অধিকারী (বক্ষ নম্বর ৪৩১) রিক্রুট (জিডি) মো. খোকন মোল্লার হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন বিজিবির মহাপরিচালক (ডিজি)। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন ভিডিও টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন। এ সময় চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার অঞ্চলের সংসদ সদস্য, সেনাবাহিনী ও বিজিবির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
মুহাম্মদ জাবিদ জারিফ ৬ ডিসেম্বর, ২০২০, ৩:০২ এএম says : 0
জি মেডাম। আপনিই তার জলন্ত উদাহরণ।
Total Reply(0)
Abu Hasan Siddiqui ৬ ডিসেম্বর, ২০২০, ৪:০৮ এএম says : 7
মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা হচ্ছেন দূরদর্শী, মানবিকতা ও সাহসিকতার উদাহরণ ।
Total Reply(1)
৬ ডিসেম্বর, ২০২০, ৮:২২ এএম says : 0
Sheikh Sakhawat Hossain Uzzal ৬ ডিসেম্বর, ২০২০, ৪:০৯ এএম says : 0
হে মহান জননেত্রী আপনি দেশের মানুষের জন্য কাজ করে চলেছেন, আল্লাহ আপনার প্রতি সহায় আমিন।
Total Reply(0)
Mohammad Mazedur Rahman ৬ ডিসেম্বর, ২০২০, ৪:০৯ এএম says : 4
জয় বাংলা ; জয় বঙ্গবন্ধু। জয়তু শেখ হাসিনা।
Total Reply(0)
কামাল রাহী ৬ ডিসেম্বর, ২০২০, ৪:১০ এএম says : 0
এই মানসিকতা নিয়েই আমাদের এগিয়ে যেতে হবে।
Total Reply(0)
আবদুর রহমান ৬ ডিসেম্বর, ২০২০, ৪:১০ এএম says : 0
আশা করি, আজ যারা বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের পরিবারভুক্ত হয়েছো তারা নিজেদের চরিত্রে মানবিক গুণাবলীর বিকাশ ঘটাবে এবং লোভ-লালসার ঊর্ধ্বে থেকে অর্পিত দায়িত্ব পালনে সর্বদা সচেষ্ট থাকবে।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন