ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ২ বৈশাখ ১৪২৮, ০২ রমজান ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সৈয়দপুরে অন্যের জমি দখল করে মসজিদ তৈরির অভিযোগ

সৈয়দপুর (নীলফামারী) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৬ জানুয়ারি, ২০২১, ৫:৩৯ পিএম

নীলফামারীর সৈয়দপুরে অন্যের জমি দখল করতে অভিনব পন্থা গ্রহণ করেছেন তিন ভূমিদস্যু। তারা ধর্মকে ব্যবহার করে দখলকৃত জমিতে তৈরি করছেন মসজিদ। গতকাল বুধবার দুপুরে শহরের একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এ অভিযোগ করেন জমির মালিক শহরের গোলাহাট চিনি মসজিদ এলাকার হাজী আবুল কাশেম মিয়ার ছেলে আব্দুল্লাহ-আল-মামুন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, তারা চার পার্টনার মিলে শহরের ফিদা আলী ও থিম পার্ক সংলগ্ন এলাকায় মোট ১৩২ শতক জমি ক্রয় করার উদ্দেশ্যে বিগত ২০১৬ সালে ২৩ জুন রেজিষ্ট্রি বায়নাপত্র সম্পাদন করেন। এর মধ্যে ১০২ শতক জমি তাঁর এবং বাকী ৩০ শতক জমি অপর তিন পার্টনারের। এদিকে জমিদাতা ডা. শেখ হাবিবুর রহমান জমির দখল বুঝে দিলেও বায়নাপত্রের মেয়াদান্তে জমি রেজিষ্ট্রি করে দিতে অস্বীকার করেন। ফলে তারা রেজিষ্ট্রি সম্পাদনের দাবিতে নীলফামারী যুগ্ন জেলা জজ আদালতে (মামলা নং-০৯/১৭) যৌথভাবে একটি মামলা দায়ের করেন। যা এখনও বিচারাধীন রয়েছে। এরই মধ্যে পার্টনারদের সঙ্গে মনোমালিন্য দেখা দিলে অপর তিন পার্টনার মো. শাহেদ আলী, মো. আব্দুর রউফ এবং মো. আরমান হোসেন ধর্মীয় অনুভুতি সৃষ্টি করে এলাকার ২০-২৫ জন লোককে সঙ্গে নিয়ে তাঁর অংশের জমি দখল করে সেখানে গত ২৮ ডিসেম্বর থেকে মসজিদ নির্মাণ শুরু করেছেন। বিষয়টি তিনি স্থানীয় থানায় জানালে থানা কর্তৃপক্ষ তাকে আদালতের আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দেন। ফলে তিনি গত ৩ জানুয়ারি তাদের বিরুদ্ধে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন, যা শুনানিতে রয়েছে।
এদিকে, মামলা করার বিষয়টি জানতে পেয়ে তারা তাকে নানা ধরণের হুমকি দিচ্ছে বলে সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন