ঢাকা বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৮ রজব ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

টিকা কেনার টাকা ভাগ-বাটোয়ারা হবে: রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ জানুয়ারি, ২০২১, ৬:২৩ পিএম

করোনাভাইরাসের টিকা নিয়ে সরকার তেলেসমাতি খেলা শুরু করেছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, ভ্যাকসিন সংগ্রহের জন্য একনেকে ছয় হাজার কোটি টাকা পাস হয়েছে। আমরা বলে দিচ্ছি- এই টাকার পুরোটাই লোপাট হবে। শেখ হাসিনার উপদেষ্টাদের কাছে মূলত টাকাগুলো ভাগ-বাটোয়ারা হয়ে যাবে, এই টাকার একটা বড় অংক চলে যাবে সরকারের কর্তা ব্যক্তিদের কাছে বেআইনিভাবে। বৃহস্পতিবার (০৭ জানুয়ারি) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সেন্টার ফর ন্যাশনালিজম স্ট্যাডি- সিএনএসের উদ্যোগে ‘ফেলানী ও সীমান্ত’ শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, সরকার করোনার টিকা নিয়ে তেলেসমাতি শুরু হয়েছে। স্বাস্থ্য সচিব বলছেন, জি-টু-জি চুক্তি হয়েছে ভারতের সাথে, সরকারের সাথে সরকারের চুক্তি হয়েছে। বেক্সিমকো বলল যে, না এটা একটি বাণিজ্যিক চুক্তি হয়েছে। কোনটা বিশ্বাস করবেন? আসলে এর মধ্য দিয়েই বোঝা যাচ্ছে যে, একটা শুভঙ্করের ফাঁকি এবং যেটাকে একেবারে রুঢ়ভাষায় বলা যায়, টাকা কামানোর জন্য, অর্থ কামানোর জন্য একটা ফাঁক রাখা হয়েছে। এটা কাভার দেওয়ার চেষ্টা করছে সরকার।।

অক্সফোর্ডের টিকা সংগ্রহে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট ও বাংলাদেশের বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের সঙ্গে চুক্তি সমালোচনা করে রিজভী বলেন, আসলেই বেক্সিমকো ভ্যাকসিনের এই চুক্তিটা করেছে। এই টাকাটা অনেক জায়গা যাবে, এই টাকাটা কর্তা ব্যক্তিরাসহ সব জায়গায় যাবে। এই কারণে উপরে একটা প্রলেপ দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছে স্বাস্থ্য সচিবকে দিয়ে। এখানে জনগণের কোনো স্বার্থ নেই, এখানে করোনা মোকাবিলার জন্য অথবা করোনা আক্রান্ত মানুষের সেবা দেওয়ার জন্য যে টিকা দেওয়া দরকার- এর কোনো কিছুই থাকবে না। এখানে থাকবে উৎকট টাকা চুরির একটা ভয়ংকর ষড়যন্ত্র।

সীমান্তে মানুষ হত্যার ঘটনার জন্য ‘নতজানু পররাষ্ট্রনীতিকে’ দায়ী করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ভোটারবিহীন, জনসমর্থনহীন, ম্যান্ডেটহীন, নিশিরাতের সরকার তার আত্মা সমর্পণ করে দিয়েছে ভারতের কাছে। দিয়েছে বলেই যারা তাদেরকে টিকিয়ে রেখেছে তাদেরই মোসায়েবি করছে, তাদের গোলামী করছে।

দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক বৃদ্ধির পরিসংখ্যান তুলে ধরে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, যাদের মেদ বেশি হয়ে গেছে, তারা মেদ কমানোর জন্য ডায়েটিং করেন। আর আজকে বাংলাদেশের নি¤œআয়ের মানুষ, স্বল্প আয়ের মানুষ, নি¤œ-মধ্যবিত্ত মানুষ, এমনকি মধ্যবিত্ত মানুষ অটো ডায়েটিং করছে জিনিসপত্র কিনতে না পেরে, না খেয়ে অটো ডায়েটিং করছে। বর্তমান অবস্থা থেকে উত্তরণে জাতীয়তাবাদী শক্তির নতুন প্রজন্মকে আরও সংগঠিত হওয়ার আহŸান জানান রিজভী।

বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সেন্টার ফর ন্যাশনালিজম স্ট্যাডি- সিএনএসের ট্রাস্টিমীর হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে আলোচনায় আরও অংশ নেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের সাবেক সভাপতি আবদুল হাই শিকদার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সারোয়ার হোসেন প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Abdur Rafi ৭ জানুয়ারি, ২০২১, ১০:০৫ পিএম says : 0
দুই নাম্বার মাক্সের মত দুই নাম্বার টিকা দিয়ে টাকাটা পাচার হবেনা এটার গ্যারান্টি কি সর্বশক্তিমতি প্রধানমন্ত্রী দিতে পারবেন নাকি অন্য কেউ দেবে।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন