ঢাকা রোববার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ মাঘ ১৪২৭, ১০ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বর্তমানে কিশোর গ্যাং একটা বড় সমস্যা

র‌্যাব সেবা সপ্তাহে আইজিপি

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১২ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

কিশোরদেরকে বিপথগামী হতে দেয়া যাবে না। কিশোর গ্যাং নামে কোনো দৌরাত্ম্য চলতে পারে না। আমাদেরকে এ ধরনের যে কোনো দৌরাত্ম্য মোকাবেলা করতে হবে। একটি প্রজন্ম নষ্ট হয়ে যাবে তা আমরা চাই না। আর এ জন্য দায়িত্ব নিতে হবে পিতা-মাতা, পরিবার ও সমাজকেও। পিতা-মাতাকে তাদের সন্তানের খোঁজ খবর রাখতে হবে। তাদের মধ্যে নীতি নৈতিকতা ও মূল্যবোধ গড়ে তুলতে হবে। পাশাপাশি, এ সংক্রান্তে সংশ্লিষ্ট সকল কর্তৃৃপক্ষকেও আরো জোরালো ভূমিকা পালন করতে হবে। দেশে বর্তমানে একটা বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে কিশোর গ্যাং।
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষ্যে ‎র‌্যাব সেবা সপ্তাহের শেষ দিন গতকাল দরিদ্র মেধাবী ও প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ এসব কথা বলেন। র‌্যাব মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুনের সভাপতিত্বে ‎র‌্যাব ফোর্সেস হেডকোয়ার্টার্সের শহীদ লে. কর্ণেল আজাদ মিলনায়তনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত মহাপরিচালক (অপারেশনস) কর্ণেল তোফায়েল মোস্তফা সারোয়ার।
আইজিপি আরো বলেন, ১৮ বছরের কম বয়সীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের ক্ষেত্রে আইনের ভিন্ন ভাষ্য রয়েছে। শুধুমাত্র আইনি পদক্ষেপ বা পুলিশি ব্যবস্থা গ্রহণ করে এর সমাধান সহজ নয়। তাই সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। বর্তমান প্রজন্মকে ২০৪১ সালের উন্নত দেশের উপযোগী যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে আমরা পরাধীনতার নাগপাশ থেকে মুক্ত হতাম না। বঙ্গবন্ধু আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন। আমাদেরকে বঙ্গবন্ধুর চর্চা করতে হবে। তা না হলে আমাদের দেশপ্রেম সুসংহত হবে না।
আইজিপি বলেন, আমাদের অসংখ্য কোটিপতি রয়েছে। ইনকাম ট্যাক্সের ফাইলেই শত শত কোটিপতি রয়েছে। আর এই ফাইলের বাইরে রয়েছে হাজার হাজার কোটিপতি। আপনারা সবাই অসহায়দের সহযোগিতায় এগিয়ে আসেন।
উপস্থিত শিক্ষার্থী ও আগামী প্রজন্মের উদ্দেশ্যে আইজিপি বলেন, তোমরা ২০৪১ সালে উন্নত বাংলাদেশের নাগরিক হবে। তোমাদেরকে দেশের প্রতিনিধিত্ব করতে নিজেদেরকে যোগ্য নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। আইজিপি বলেন, সেবা সপ্তাহের র‌্যাব এতিমদের মাঝে খাবার বিতরণ, দরিদ্রদের মাঝে কম্বল বিতরণ ও বৃক্ষরোপণ করেছে। এসব কার্যক্রমের মধ্যে দিয়ে তারা জনগণকে সেবা দেয়ায় প্রয়াস অব্যাহত রেখেছে। সেবাকে কোনো নির্দিষ্ট দিন, সপ্তাহ বা মাসের মধ্যে আবদ্ধ না রেখে প্রতিটি দিনকে সেবার দিনে পরিণত করতে হবে।
চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষের জন্য আজীবন কাজ করেছেন, সংগ্রাম করেছেন। তিনি তাদের জন্য নিজের জীবন বিলিয়ে দিতেও কুণ্ঠাবোধ করেননি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে অনুসরণ করে আমরা দেশের সাধারণ মানুষের কল্যাণে সেবা সপ্তাহ পালনে উদ্বুদ্ধ হয়েছি।
অনুষ্ঠানে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ১০ হাজার, জেএসসি পরীক্ষায় জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের ৫ হাজার টাকা দেয়া হয়েছে। এছাড়া, অসহায় পরিবারের প্রায় দুই হাজার শিক্ষার্থীর প্রত্যেককে ৩ হাজার টাকা করে দেয়া হবে। পাশাপাশি থাকবে সারা বছরের খাতা, কলম এবং অন্যান্য শিক্ষা সামগ্রী।‎

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Abul kalam a Azad ১২ জানুয়ারি, ২০২১, ৮:৪৫ এএম says : 0
জতদিনে ইসলামের আদর্শে আদর্শিত না হবে ততদিনে কোন জাতি সভ্য হবে না, ইসলামেই আছে সভ্যতা, দেশ থেকে ইসলামের আদর্শ তুলে দিয়ে সভ্য সমাজ গড়তে চান সে চাওয়া লোক দেখানোই হবে বাস্তবে হবেনা, ................
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন