ঢাকা শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৪ রজব ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

রংপুরে হাড় কাঁপানো শীতে ৭ দিনে ২৩ জনের মৃত্যু

খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টাকালে দগ্ধ ২১ জন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

দেশের কয়েকটি জেলায় চলছে শৈত্যপ্রবাহ। উত্তরাঞ্চল জুড়ে হাড় কাঁপানো শীত। হাড় কাপানো শীতে রংপুর বিভাগের ৮ জেলার জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে ছিন্নমূল দরিদ্র মানুষের কষ্টের সীমা নেই। শীতের তীব্রতা বাড়ায় দেখা দিয়েছে কোল্ড ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া ও শ্বাসকষ্টসহ নানা রোগের প্রকোপ।

গত এক সপ্তাহে শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে এক হাজার ৩০০ জন রোগী রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে মারা গেছে ১৭ জন। একই সময়ে আগুন পোহাতে গিয়ে দগ্ধ হয়ে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, কনকনে শীতে অসহায় হয়ে পড়েছেন খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ। শিশু ও বৃদ্ধদের অবস্থা আরো খারাপ। গ্রামের নি¤œ আয়ের মানুষজন কাপড়ের অভাবে দুর্বিসহ জীবন যাপন করছেন। তারা শীতের হাত থেকে রক্ষা পেতে খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টা করছেন। প্রচন্ড ঠান্ডায় গরম কাপড়ের অভাবে রংপুরের পীরগাছা, কাউনিয়া ও গঙ্গাচড়ার তিস্তা নদীর চরাঞ্চলের মানুষেরা সবচেয়ে বেশি কষ্ট পাচ্ছেন।

এদিকে গত এক সপ্তাহে খড়কুটো জ্বালিয়ে শীত নিবারণের চেষ্টাকালে দগ্ধ হয়ে ২১ জন রোগী রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে ৬ জন মারা গেছেন। এখনও ১৫ জন রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। প্রতিদিন আগুন পোহাতে গিয়ে গড়ে ৩ জন করে অগ্নিদগ্ধ হয়ে হাসপাতালে আসছেন বলে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটের প্রধান ডা. এমএ হামিদ পলাশ নিশ্চিত করেছেন। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ডা. রোস্তম আলী জানান, রংপুর অঞ্চলে শীতের তীব্রতা বেড়েছে। শীত জনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে গত এক সপ্তাহে এক হাজার ৩০০ রোগী ভর্তি হয়েছে। এদের মধ্যে শিশু ও বয়স্ক মানুষের সংখ্যায় বেশী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন