ঢাকা বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৮ রজব ১৪৪২ হিজরী

প্রবাস জীবন

আল্লামা ছাহেব কিবলাহ ফুলতলী (র.)-এর ১৩তম ওয়াফাত দিবস স্মরণে নিউইয়র্কে ঈসালে সওয়াব দোয়া মাহফিল

যুক্তরাষ্ট্র সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ জানুয়ারি, ২০২১, ৫:১৩ এএম

নিউইয়র্কে ব্রঙ্কসের পার্কচেষ্টার জামে মসজিদে ১৫ ই জানুয়ারী শুক্রবার বাদ মাগরিব ভারত উপমহাদেশের অনুস্মরনীয় ব্যক্তিত্ব আহলে ছুন্নাত ওয়াল জামাতের অনন্য রাহবার (পথ প্রদর্শক) শামসুল উলামা আল্লামা ছাহেব কিবলাহ ফুলতলী (র.)-এর ১৩তম ওফাত দিবস সহ বিশ্বের প্রয়াত উলামা, পীর মুশায়েখ ও সকল মুমিন মুসলমানদের স্মরণে ঈসালে সওয়াব ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। এতে মসজিদের খাদিমীন, মুসল্লীয়ান, উল্লেখযোগ্য ভক্তবৃন্দ উপস্হিত ছিলেন। হাফিজ আব্দুল মন্নাফ, মাও: নুরুল ইসলাম, তেলাওয়াতে কালামেপাক দিয়ে মিলাদ শরীফ শুরু করেন, মুশাহিদ আলী ও শামছুদদিন “ছাহেব কিবলার“ মরছিয়া পাঠ করে শুনান।

মসজিদের ইমাম মাও: মোহাম্মদ মাশহুদ ইকবাল ছাহেব কিবলা ফুলতলী (র:) যে, একজন সত্যিকার ওরাছাতুল আনবিয়া ছিলেন তা তারঁ কর্ম জীবনের ইসলামী খেদমতের বিভিন্ন দিক কোরআন ও হাদিসের আলোকে প্রমান করে বলেন, নবী রাছুলগন মৌলিক চারটি নীতিকে লক্ষ্য করে আল্লাহর বিধান প্রচার করেছিলেন। তিনি পবিত্র কোরআনের ছুরা জুম্মার আয়াত উল্লেখ করে উপস্থাপন করে বলেন, নবী রাছুলগনের তাবলিগের প্রচারের মধ্যে ছিল (১) আল্লাহর বাণী বিশুদ্ধ ভাবে পাঠ করে শুনান। (২) মানুষের অন্তরকে অপবিত্র থেকে পবিত্র করান। (৩) আল্লাহ র কিতাবের সঠিক মর্মার্থ বুঝিয়ে দেওয়া। (৪) হিকমাহ যথা: “সুন্নাহ ও ফিকহ” এর জ্ঞান প্রদান করা। মরহুম ছাহেব কিবলাহ (র:) এর তাবলীগী জীবনে এ চারটা খেদমত পালনে এক বিরামহীন প্রচেষটায় অব্যাহত ছিল। তিনি ছিলেন এক মকবুল অতি উচ্চ মর্যাদা সমপন্ন কারী ও বিশুদ্ধ তেলাওয়াতে কোরআনের নিবেদিত শিক্ষক ও খাদিম। তিনি ছিলেন ইলমে তাসাউফের সঠিক প্রশিক্ষক। তিনি ছিলেন কোরআন সুন্নাহরে সঠিক মর্ম অনুধাবনকারী বিশ্লেষণ কারী। তেমনি ছিলেন উচ্চ পর্যায়ের মুহাদদিস ও উস্তাদ। তার কর্ম জীবনের প্রতি লক্ষ্য করলে সত্যিকার একজন ওয়ারাছাতুল আনবিয়ার অনুসরন বা কর্ম পরিলক্ষিত হয়। তার কর্ম জীবনটা উলামাদের জন্য তাবিলগী খেদমতে মাইল ফলক হিসাবে ভুমিকা পালন করবে।

তিনি আমরু বিল মারুফ ওয়া নাহি আনিল মুনকারের খেদমতে এক বিপ্লবী ভুমিকা পালন করে গেছেন। বিশুদ্ধ তেলাওয়াত, আহলুছ ছুন্নাত জামাতের আকিদায়, আমলিয়াতে যে সকল বিভ্রান্তি, ও মহব্বতে রাছুল দেখাতে গিয়ে বেদাতী কার্য্যকলাপের বিরুদ্ধে যুগান্তকারী ভুমিকা পালন করে গেছেন। তিনি ইয়াতিম অনাথ, গরীব দু:খিদের অবিভাবক, প্রতিষ্ঠা করে গেছেন ‘এতিমখানা’ জন সেবামুলক বিভিন্ন প্রতিষ্টান। যুগান্তকারী তারঁ তাবলীগী সংস্কারের কারনে যুগের মুজাদদিদ বললে আথ্যায়িত করা যায়। তারঁ স্বরন শুধু ঈসালে সওয়াবের মধ্যে সীমিত নয়, তারঁ দীনি খেদমত বর্তমান দুনিয়ার মুসলিম জাতির জন্য এক সঠিক রাহবারের কাজ করে গেছেন। এজন্য তাকেঁ মুসলমানগন “ছাহেব কিবলা” বলে আখ্যায়িত করেছেন। সংক্ষিপ্ত আলোচনা ও মিলাদ শরীফ শেষে ছাহেব কিবলার নছিহত গুলো পাঠ করে শোনানো হয় এবং ইমাম মাও: মোহাম্মদ মাশহুদ ইকবাল ছাহেব কিবলাসহ সকল প্রয়াত উলামা, পীর মুশায়েখ, বিশ্বের সকল মুসলমান ও সকল মানুষের জন্য শান্তির প্রার্থনা করে মাহফিল সমাপ্ত করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
হা,ক্বারী,আবুসুফিয়ান ২০ জানুয়ারি, ২০২১, ৯:৫৯ এএম says : 0
আল্লাহ জেন আমাদের উস্তাত মুরশিদে বরহক শামছুল উলামা আল্লামা ফুলতলি রহঃ উনাকে আল্লাহ জেন জান্নাতের উচ্চ মাকাম দান করেন আমিন
Total Reply(0)
হা,ক্বারী,আবুসুফিয়ান ২০ জানুয়ারি, ২০২১, ৯:৫৯ এএম says : 0
আল্লাহ জেন আমাদের উস্তাত মুরশিদে বরহক শামছুল উলামা আল্লামা ফুলতলি রহঃ উনাকে আল্লাহ জেন জান্নাতের উচ্চ মাকাম দান করেন আমিন
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন