ঢাকা শুক্রবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১৩ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৩ রজব ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

বাইডেন প্রশাসনের নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ফিলিস্তিনবিরোধী মন্তব্যঃ ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ১:৫৫ পিএম

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিংকেনের একটি মন্তব্যকে কেন্দ্র করে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে ফিলিস্তিনে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। অ্যান্থনি ব্লিংকেন বলেছেন, তিনি পবিত্র আল-কুদস বা জেরুজালেম শহরকে ইসরায়েলের রাজধানী মনে করেন।

গত মঙ্গলবার সিনেটের এক শুনানিতে তাকে জিজ্ঞেস করা হয় তিনি জেরুজালেম শহরকে ইসরায়েলের রাজধানী মনে করেন কি না এবং ট্রাম্পের বিদায়ের পর জেরুজালেম শহরেই মার্কিন দূতাবাস রাখা হবে কি না। জবাবে ব্লিংকেন দু’বার হ্যাঁ বলেন।

দীর্ঘদিনের অনুসৃত নীতি উপেক্ষা করে ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেম শহরকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেন এবং তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেম শহরে স্থানান্তর করেন। ট্রাম্পের বিদায়ের পর সেই ধারা অব্যাহত থাকবে কি না তা নিয়ে নানা প্রশ্ন ছিল, সেই প্রশ্নের অবসান ঘটালেন ব্লিংকেন।

তার এই ঘোষণার পর গাজাভিত্তিক ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস বলেছে, আন্তর্জাতিক যে সমস্ত আইন ও প্রস্তাবনার মাধ্যমে জেরুজালেম শহরকে ইসরায়েলের হাতে দখল হয়ে যাওয়া শহর হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে ব্লিংকেনের বক্তব্য তার সাথে সম্পূর্ণভাবে সাংঘর্ষিক।

হামাসের মুখপাত্র হাজেম কাসেম বলেছেন, এটি সমস্ত আরব জাতির জন্য আরেকটি প্রকাশ্য অপমান।

গাজাভিত্তিক ইসলামি জিহাদ আন্দোলনও বলেছে, যেসব দেশ বাইডেন প্রশাসনের কাছে নতুন কিছু প্রত্যাশা করছিল এই বক্তব্যের মধ্যদিয়ে মার্কিন প্রশাসন তাদের মুখে থাপ্পড় মেরেছে। সংগঠনের মুখপাত্র দাউদ শিহাব বলেন, ব্লিংকেনের এই বক্তব্যের মধ্য দিয়ে আবার পরিষ্কার হল যে, তারা দখলদার ইসরায়েল সরকারকে সমর্থন করছে এবং তাদের নেতৃত্বে কোনও পরিবর্তন আসবে না। এও পরিষ্কার হল যে, ফিলিস্তিনিদেরকে দীর্ঘ সংগ্রাম করতে হবে।

এদিকে, পশ্চিম তীরের আরেকটি রাজনৈতিক সংগঠন ফাতাহ আন্দোলনের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ বলেছেন, এটি স্মরণ রাখা দরকার যে ১৯৯৫ সালে মার্কিন কংগ্রেস আল-কুদস শহরকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। ডোনাল্ড ট্রাম্প কেবল সেই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করেছেন এবং তার উত্তরসূরি জো বাইডেন কংগ্রেসের সিদ্ধান্তকে উল্টে দিতে পারবেন না। সূত্র : সিএনএন

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
মোঃ দুলাল মিয়া ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ২:৪০ পিএম says : 0
Change you Mr Biden your no good minister.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন