ঢাকা সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭, ২৩ রজব ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

‘উন্নত দেশ গড়তে ইজ অফ ডুয়িং বিজিনেস সূচক উন্নয়নের বিকল্প নেই’

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) নির্বাহী চেয়ারম্যান মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, ইজ অব ডুয়িং বিজনেস (ব্যবসা সহজ করা) সূচকে কোন দেশের অবস্থান কতটুকু-এ নিয়ে প্রতিবছর বিশ্বব্যাংক তাদের রিপোর্ট প্রকাশ করে। ২০১৯ সালে প্রকাশিত রিপোর্টে আট ধাপ এগিয়ে বাংলাদেশের অবস্থান ১৯০টি দেশের মধ্যে ১৬৮তম হলেও তা আশাব্যঞ্জক নয়, তাই দেশে ব্যবসা-বাণিজ্য সহজীকরণের জন্য নানা ধরনের সংস্কার কর্মসূচি নেয়া হয়েছে আর এ লক্ষ্যেই কাজ করে চলছে বিডা।
গতকাল নিউ ইস্কাটনের বিয়াম ফাউন্ডেশনে বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা) আয়োজিত ব্যবসা সহজীকরণ সূচক বিষয়ক এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিডার নির্বাহী চেয়ারম্যান ইজ অফ ডুয়িং বিজনেজ এর উপর গুরুত্ব দিয়ে এ কথা বলেন। বিডা নির্বাহী চেয়ারম্যান বলেন, ব্যাবসা সহজীকরণের যে ১০টি সূচক আছে তা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে বিডা। এর জন্য আমরা বিভিন্ন আইনের সংস্কারসহ নানা ধরনের সুপারিশ করছি এবং তা বাস্তবায়িত ও হয়েছে। এ সময়ে তিনি সূচকসমূহে অগ্রগতির প্রতিবেদন তুলে ধরে বলেন, ব্যাবসা সহজীকরণ সূচকগুলোকে উন্নতী করতে হলে দাতা গ্রহীতা সহ সেক্টরসমূহগুলোকে সমঝোতার ভিত্তিতে আন্তরিক ভাবে কাজ করতে হবে। উন্নত বাংলাদেশ গড়তে হলে আমাদের দরকার অনেক দেশী বিদেশী বিনিয়োগ, আর পর্যাপ্ত বিনিয়োগ ছাড়া দেশের উন্নয়ন সম্ভব নয়, তাই আমাদের উন্নত বাংলাদেশ গড়তে ইজ অফ ডুয়িং বিজিনেস সূচক উন্নয়নের বিকল্প নেই।
এ সময়ে তিনি ২০২১ সালের মধ্যেই ব্যবসা সহজীকরণ সূচকে ডাবল ডিজিটে উন্নয়নের আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
ঢাকার বিয়াম ফাউন্ডেশনে বিডার নির্বাহী সদস্য মো. বিল্লাল হোসেনের সভাপতিত্বে ব্যবসা সহজীকরণ সূচক বিষয়ক এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। বিডার পরিচালক জীবন কৃষ্ণ সাহা রয় পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে উল্লেখিত তিন সূচকে বর্তমান অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরেন।
কর্মশালায় বিডার মহা পরিচালক মো. ওয়াহিলুদ ইসলাম স্বাগত বক্তব্য রাখেন। উম্মে রুমানা তুয়া এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিডা নির্বাহী সদস্য সাইফুল্লাহ মকবুল মোর্শেদ, ভূমি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মুহাম্মদ সালেহউদ্দীন, বিদ্যুৎ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আবুল খায়ের মো. আমিনুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন