শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

তারাকান্দায় যৌতুকের জন্য স্ত্রীকে নির্যাতন ও মাথা ন্যাড়া করেছে পাষণ্ড স্বামী

ফুলপুর ( ময়মনসিংহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৯:১৬ এএম

ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার কামারগা ইউনিয়নের প্রজাপতখিলা গ্রামে যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে নির্যাতন ও মাথা ন্যাড়া করেছে পাষণ্ড স্বামী। এ ঘটনায় নির্যাতিত কাকলি আক্তার বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার তারাকান্দা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

জানা যায়, তারাকান্দা উপজেলার কামারগাঁও ইউনিয়নের হরিয়াতলা গ্রামের মৃত আবুল বাশারের কন্যা কাকলি বেগম (২০) এর বিয়ে হয় বিগত ১০ মাস পূর্বে পার্শ্ববর্তী প্রজাবতখিলা গ্রামের হক মিয়ার পুত্র শাহ পরান (২৫) সাথে। বিয়ের ২/৩ মাস সংসার চলার পর কাকলি আক্তার এর গর্ভে আসে সন্তান। সে এখন সাত মাসের গর্ভবতী। সন্তান গর্ভে আসার পর যৌতুকের জন্য শুরু হয় নির্যাতন। এক পর্যায়ে পাষণ্ড স্বামী শাহ পরান গর্ভের সন্তান নষ্ট করার জন্য স্ত্রীকে ২৯ জানুয়ারি ডাক্তারের কাছে নিয়ে যায়। গর্ভের সন্তান নষ্ট করতে রাজি না হওয়ায় বাড়িতে এসে শুরু করে নির্যাতন। নির্যাতনের এক পর্যায়ে মাথা ন্যাড়া করে বাড়িতে আটক করে রাখে। তিনদিন আটক থাকার পর সুযোগ পেয়ে কাকলি পালিয়ে তার বাবার বাড়িতে চলে আসে।

কাকলি আক্তার জানান,গর্ভের সন্তান নষ্ট না করায় ও এক লক্ষ টাকা যৌতুকের জন্য চলতে থাকে নির্যাতন। মারপিটের এক পর্যায়ে আমার মাথা ন্যাড়া করে বাড়িতে আটক করে রাখে।
তিনদিন আটক থাকার পর সুযোগ পেয়ে আমি পালিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসি।

কাকলি আক্তারে মা জুলেখা বেগম জানান, আমার মেয়ে বাড়িতে আসিয়া নির্যাতনের ঘটনা আমাকে বলে। আমি বিষয়টি নিয়ে বাড়ির লোকজন ও এলাকার গণ্যমান্যদের সাথে পরামর্শ করিয়া আমার মেয়েসহ থানায় অভিযোগ করি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন