বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৪ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

রাশিয়া-ইইউ উত্তেজনা বাড়ছে, সম্পর্ক ছিন্নের হুমকি মস্কোর

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৯:৫৪ এএম

নাভালনি-কাণ্ডে ঘরে-বাইরে চাপের মুখে পড়ে এবার ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ছাড়ার হুমকি দিল রাশিয়া। রুশ প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিনের ঘোরতর সমালোচক হিসেবে পরিচিত অ্যালেক্সেই নাভালনিকে ‘বিষপ্রয়োগে খুনের চেষ্টা’ এবং জার্মানি থেকে সুস্থ হয়ে ফেরার পরেই তাঁকে গ্রেফতার করা নিয়ে পশ্চিমা বিশ্বের সঙ্গে সম্পর্কের মারাত্মক অবনতি হয়েছে। শোনা যাচ্ছে, এর পাল্টা শীঘ্রই রাশিয়ার উপর আরও আর্থিক নিষেধাজ্ঞা চাপাতে চায় ইইউ। আর এমনটা হলে মস্কোও যে হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না, আজ তা-ই জানিয়ে দিলেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ। আজ রাশিয়ার পররাষ্ট্র দফতরের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি।

নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের আশঙ্কার বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেন, ‘আমরা সম্পর্ক ছিন্ন করতে প্রস্তুত আছি।’
তিনি বলেন, আমরা নিজেদেরকে বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন করতে চাই না, কিন্তু আমাদের তা করার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। শান্তি চাইলে যুদ্ধের জন্যও প্রস্তুত থাকতে হয়।’
রাশিয়ারই একটি ইউটিউব চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে লাভরভ বলেন, ‘‘ইইউ-এর সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক সত্যিই ভাঙনের মুখে। তবে সম্পর্ক শেষ হলে দায়ী হবে ইউরোপীয় ইউনিয়নই।’’
এদিকে নাভালনি অনড়ই। পুতিন-সমর্থক হিসেবে পরিচিত দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের এক নবতিপর সেনানী সম্প্রতি একটি প্রচার ভিডিয়োয় বলেছিলেন, পুতিন চাইলে ২০২৪-এর পরেও আরও কয়েক দফা রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট থেকে যেতে পারেন। ওই প্রাক্তন সেনানীকে ‘বিশ্বাসঘাতক’ তকমা দিয়েছিলেন নাভালনি। যার জেরে আজ ফের তাঁকে আদালতে টেনে আনে মস্কো। যদিও প্রতিপক্ষের আইনজীবীকে কটাক্ষ, এমনকি বিচারকের সঙ্গে এ দিন তর্কও করেন নাভালনি। এক সময় তাঁকে আদালত চত্বর থেকে বার করে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন বিচারক। তাতেও দমেননি নাভালনি। আদালতে ছিলেন ওই বৃদ্ধ সেনানীও। হঠাৎ অসুস্থ বোধ করায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।
সম্প্রতি ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতি বিষয়ক প্রধান জোসেফ বোরেল বলেছেন, রুশ সরকারের বিরোধী নেতা নাভানলি ইস্যুতে অবশ্যই রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে হবে। এরপরই নতুন হুমকি দিলো মস্কো। সূত্র : আনন্দবাজার

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন