ঢাকা রোববার, ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৮ চৈত্র ১৪২৭, ২৭ শাবান ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইসরাইলকে উপেক্ষা করছেন বাইডেন

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

কিছু বলার চেয়ে যে নীরব থেকেই অনেক বেশি জোরালো বার্তা দেয়া যায়, বৈদেশিক নীতির ক্ষেত্রে সেটিই করে দেখালেন নতুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। গত ৪০ বছরের মধ্যে এই প্রথমবারের মতো, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হিসাবে ক্ষমতা গ্রহণের প্রথম কয়েক দিনের মধ্যে তিনি ইসরাইলি নেতাদের সাথে যোগাযোগ করেননি।

বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণ করার পরে প্রায় ১ মাস পার হতে চলেছে। ইতিমধ্যে অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিলেও তিনি এখনও ইসরাইলি নেতাদের সাথে দেখা করেননি বা কথা বলেননি। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন ফ্রি বিকন-এর খবরে বলা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের ৪৬তম প্রেসিডেন্ট বাইডেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এবং চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সাথে যোগাযোগ করেছেন তবে মধ্য প্রাচ্যের যুক্তরাষ্ট্রের নিকটতম মিত্র ইসরাইলের নেতাদের সাথে এখনো কথা বলেননি।

বিকন অনুসন্ধান করে জানিয়েছে, ১৯৮১ সালে তৎকালীন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রিগানের পরে বাইডেনই প্রথম প্রেসিডেন্ট যিনি হোয়াইট হাউসে কাজ শুরু করার পরে প্রথম পদক্ষেপ হিসাবে ইসরাইলের সাথে যোগাযোগ করেননি। তারা জানিয়েছে যে, জর্জ ডাব্লিউ বুশ ক্ষমতা গ্রহণের প্রথম ৫ দিনের ইসরাইলে ফোন দিয়েছিলেন, বিল ক্লিন্টন দিয়েছিলেন ৩ দিনের মধ্যে। জর্জ ডাব্লিউ বুশ জুনিয়র ফোন দিয়েছিলেন ৭ দিনের মধ্যে। সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও ডোনাল্ড ট্রাম্প ফোন দিয়েছিলেন যথাক্রমে প্রথম ও দ্বিতীয় দিনে।

বাইডেনের প্রশাসন ইসরাইলকে মিত্র হিসাবে তালিকাভুক্ত করবে না বলে সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছিল বিকন। গত সপ্তাহে একটি সংবাদ সম্মেলনে হোয়াইট হাইসের মুখপাত্র জেন সাকিকে সে বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়। এক রিপোর্টার তাকে প্রশ্ন করেন, ‘আমি জানি যে আপনি বলছেন আব্রাহাম অ্যাকর্ডের মতো নীতিমালাসহ বিষয়গুলো এখনও পর্যালোচনাধীন রয়েছে, তবে দয়া করে আমাদেরকে কি কেবল একটি বিস্তৃত ধারণা দিতে পারেন যে, মধ্য প্রাচ্যে কি অর্জন করতে চাইছে বাইডেনের প্রশাসন?’ তিনি আরও জিজ্ঞাসা করন, ‘প্রশাসন কি সউদী এবং ইসরাইলিদেরকে গুরুত্বপূর্ণ মিত্র হিসাবে বিবেচনা করে?’

সাকি এ বিষয়ে সরাসরি কোন উত্তর না দিয়ে বলেন, ‘আমি মনে করি এগুলো চলমান প্রক্রিয়া এবং অভ্যন্তরীণ বিষয়। এগুলোর জন্য আন্তঃসংযোগ প্রক্রিয়া রয়েছে। আমার মনে হয় আমরা গত সপ্তাহে নিশ্চিত করেছি যে, মধ্য প্রাচ্যের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনার জন্য আমরা সংশ্লিষ্ট দেশগুলোকে নিয়ে একটি বৈঠকের আয়োজন করতে যাচ্ছি।’ এর পরে তিনি প্রসঙ্গটি এড়িয়ে যেয়ে বলেন, ‘নতুন প্রশাসন কাজ শুরু করেছে কেবল সাড়ে তিন সপ্তাহ হয়েছে। আমি মনে করি যে, আমাদের জাতীয় সুরক্ষার পদ্ধতি বিভিন্ন ক্ষেত্রে কী হবে তা পুরোপুরি নিশ্চিত করার আগে এ বিষয়ে নীতি প্রক্রিয়াগুলো নির্ধারণের জন্য আরও সময়ের প্রয়োজন।’

এ বিষয়ে টেক্সাসের মার্কিন রিপ্রেজেন্টেটিভ রনি জ্যাকসন বিকনকে বলেন, ‘তিনি আসলে বুঝতে পারছেন না যে, বাইডেন ইসরাইলকে এড়িয়ে চলতে চাইছেন কি না।’ তিনি বলেন, ‘আমেরিকা-ইসরাইল সম্পর্ক আমাদের জাতীয় সুরক্ষাসহ বিভিন্ন কারণে গুরুত্বপূর্ণ। আমি প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে তার দলের কট্টর বামপন্থী নীতি উপেক্ষা করার এবং প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুকে ফোন দেয়ার মাধ্যমে ইসরাইলের সাথে আমাদের অংশীদারিত্বের প্রতি দৃঢ় সমর্থন প্রদর্শন করার আহ্বান জানাই।’ সূত্র : ওয়াশিংটন ফ্রি বিকন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (6)
ইকবাল শেখ ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ১২:২৩ এএম says : 0
আমার মতে তিনি সঠিক কাজ করছেন
Total Reply(0)
Hafez Belal Uddin ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৩:০৬ এএম says : 0
মাশাআল্লাহ জো বাইডেনের হাতে আমেরিকার প্রকৃত গণতন্ত্র ফিরে আসবে এবং বিশ্বে শান্তি শৃঙ্খলা ও যুদ্ধ-বিগ্রহ থেকে বিরত হয়ে ইনসাব প্রতিষ্ঠিত হবে ইনশাআল্লাহ সেই তৌফিক আল্লাহ পাক জো বাইডেন কে দান করেন
Total Reply(0)
MD Lutfor Rahman ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৩:০৬ এএম says : 0
Great leaddership
Total Reply(0)
Md Rasel ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৩:০৭ এএম says : 0
শুভ কামনা রইলো
Total Reply(0)
গিয়াস উদ্দীন ফোরকান ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৩:০৭ এএম says : 0
পৃথিবীর সকল অশান্তির মুলে ইসরাইল ও ভারত। তাই তাদের বর্জন করাই শ্রেয়
Total Reply(0)
Asad Mollah ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৭:২৫ পিএম says : 0
মুসলিম উম্মাহর চির শত্রু ইজরাইল,ভারত ও নব্য নাৎসি মায়ানমার , মুসলিম উম্মাহর উচিত এদের বয়কট করা
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন