ঢাকা মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭, ২৯ শাবান ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

দেশ এগোতে থাকলে আঘাত আশার আশঙ্কা থাকে: প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৪:০৭ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, যুদ্ধ বিধ্বস্ত বাংলাদেশে যখন ভালো পরিবেশ সৃষ্টি হলো, ব্যাপকভাবে ফসল উৎপাদন হলো, কল-কারখানা চালু হলো, উন্নয়নের পথে দেশ এগিয়ে যেতে লাগলো, তখনই ১৫ই আগস্টের মতো ঘটনা ঘটলো। আমি আজকে বঙ্গবন্ধুর প্রতি ও জাতীয় চার নেতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাই।

আজ মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় তিনি এ আহ্বান জানান। গণভবন থেকে তিনি সভায় ভার্চ্যুয়ালি যোগ দেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে একটু স্মরণ করতে চাই। বাংলাদেশের মানুষের যখন ভালো সময় আসে, দেশের মানুষ যখন ভালো থাকে, যখন মানুষের জীবনের মান একটু উন্নত হয়, তখনই আঘাত আসার আশঙ্কা থাকে। তাই সবাইকে একটু সতর্ক থাকা দরকার।

শেখ হাসিনা বলেন, আজকে করোনা ভাইরাস বিশ্বব্যাপী প্রভাব ফেলেছে। মহামারি আকারে দেখা দিয়েছে। আমরা সীমিত সম্পদ দিয়ে মোকাবেলা করেছি। আমাদের ভৌগোলিক সীমানা ছোট, জনসংখ্যার দিক দিয়ে বড় দেশ, সেই দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তনে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।
করোনা মোকাবিলায় যথাসাধ্য চেষ্টা করে নিয়ন্ত্রণ রাখতে সক্ষম হয়েছি। স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য আমরা বিভিন্ন ধরনের নির্দেশনা দিয়েছি। সাথে সাথে করোনা প্রতিরোধে টিকা দেওয়া শুরু করেছি। অনেক উন্নত দেশ এখনো ভ্যাকসিন আনতে পারেনি। ভ্যাকসিন নিয়ে যখন গবেষণা হচ্ছে, যে জায়গায় গবেষণা হচ্ছে সেখান থেকে ক্রয় করার জন্য আমরা চেষ্টা করেছি। এর পাশাপাশি আমরা আগাম টাকা দিয়েছি ভ্যাকসিনের জন্য।

ডাব্লিউএইচও (বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার) যখন ভ্যাকসিন অনুমোদন দেবে তখনই আমরা যেন ভ্যাকসিন পেতে পারি সেই ব্যবস্থা ব্যবস্থা করেছি, যেন দেশবাসীকে ভ্যাকসিন যথাসময়ে দিতে পারি এবং আমরা এ কাজ করতে সক্ষম হয়েছি। আমি সেই জন্য সবাইকে আন্তারিক ধন্যবাদ জানাই। দেশবাসী, প্রশাসন, সশস্ত্র বাহিনী, রাজনৈতিক দল সবাই সহযোগিতা করেছে বলেই আমরা করোনা ভাইরাস মোকাবেলা করতে পেরেছি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৭:৪৩ পিএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনাকে গভীর শ্রদ্ধাভরাসালাম দোয়া আপনার কথার গভীরতা অনেক। শিরোনাম দেশ এগোতে থাকলে আঘাত আশার আশঙ্কা থাকে??আন্তর্জাতিক ভাবে বাংলাদেশের শক্তিশালী অবস্থান? বাংলাদেশের অর্থনৈতিক শক্তি? বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্বের শক্তিশালী অবস্থান? বাংলাদেশের রাজনৈতিক শক্তিশালী অবস্থান?দক্ষিণ এশিয়াই অর্থনৈতিক সুচকে বাংলাদেশের শক্তিশালী হওয়ার কারণে আঘাতের আশঙ্কা করছেন? আপনার বিশালাকার ব‍্যাক্তিত্বে দক্ষ রাষ্ট্র প্ররিচালনায় বাংলাদেশের এই শক্তিশালী অবস্থান। বাংলাদেশে দীর্ঘদিন রাষ্ট্র ক্ষমতাই ক্ষমতার রাখার মালিক আল্লাহ্। আল্লাহর দয়াতে আছেন বাংলাদেশের মানুষ বঙ্গবন্ধু কে হারিয়েছে। বঙ্গবন্ধুর দেশ কে আপনি অর্থনৈতিক পরাশক্তি বাংলাদেশ বানিয়েছেন বিশ্বের মাঝে একটি মর্যাদাবান জাতি হিসাবে প্রতিষ্ঠা করে যাচ্ছেন। আপনি শান্তিত নোবেল প্রাইজ পাওয়ার যোগ্য। ষড়যন্ত্রের কারণে পাননি। রক্তাক্ত পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তির নগরীতে পরিণত হয়েছে। হাজার হাজারো মানুষের জীবন বাচিয়েছেন। বাংলাদেশের মানুষ ভলে গেছেন। আপনি ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রতাষ্টাতা। এই ডিজিটাল বাংলাদেশের সুযোগ নিয়ে ইউটিউবে ভয়ংকর মিথ্যাচার হচ্ছে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত একেবারেই লাগামহীন ভাবেই। আপনি সাগর বিজয়ী একলক্ষ বিশ হাজার বর্গকিলোটার বিশালাকার সম্পদের মালিক বানিয়েছেন বাংলাদেশের মানুষ কে। মহাপরিকল্পনা ব্লুইকোনিমি প্রতিষ্টা বাস্তবায়ন হলে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক পরাশক্তি হবে। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় গভীর ভাবে বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রগতিতে অবাক হচ্ছে। এটিও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আঘাতের আশঙ্কা?? বার্মার সামরিক জান্তার বর্বরতার স্বীকার দশ লক্ষ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর জীবন বাচানো বাংলাদেশে আশ্রয় দানের জন‍্য। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের উচিৎ ছিল শান্তিতে বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রী নোবেল প্রাইজ দেওয়া। পেলাম আন্তর্জাতিক বিশ্ব মানবতার মা। অনেক গুলো আন্তর্জাতিক সম্মান পুরুস্কার পেয়েছেন। বাংলাদেশের আটার কোটি মানুষকে সম্মানিত করেছেন। আজ আপনি বিশ্বের প্রভাবশালী নেতাদের একজন। আপনি আঘাতের আশঙ্কা করছেন? রাষ্ট্রের বিতরে কারা আঘাত করতে পারে?? পাশ্ববর্তীর কাজ হতে আঘাত আসতে পারেন? আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রকারীদের ষড়যন্ত্রের বিশদাঁত ভাঙ্গতে হবে। বাংলাদেশের মানুষের স্বার্থেই রাষ্ট্রের নিরাপত্তায় নিয়োজিতরা দেশের নির্বাহী প্রধান আঘাতের আশঙ্কা করে ছেন। প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বের মাঝেই কারা আঘাত করতে পারেন আপনারা সজাগ সাবধানতা অবলম্ভন কর বেন। ইনশাআল্লাহ বঙ্গবন্ধুর ক্ষুদা দারিদ্র্য মুক্তির সংগ্রাম পেরিয়ে এই দেশ বাংলাদেশকে অর্থনৈতিক শক্তিশালী সম্পদশালী দেশের কাতারে নিয়ে যাওয়ার বাংলাদেশের রুপকার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতির সামনে আঘাতের আশঙ্কা পোষণ করছেন। রাষ্ট্রের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও জাতীয় নেতৃবৃন্দ। রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ নিরাপত্তায় নিয়োজিত বাহিনী অবশ্যই সজাগ থাকবেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর শারীরিক সুস্থতা নিরাপত্তা দীর্ঘায়ু কামনা করছি।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন