মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

আইসিটি এন্ড ক্যারিয়ার

জেনে নিন গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট বন্ধ রাখার উপায়

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২১, ৫:২৪ পিএম

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্টদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ফিচারসমৃদ্ধ বলা যায় গুগল অ্যাসিস্ট্যান্টকে। প্রতিটি অ্যানড্রয়েড ফোন, ট্যাবলেট ও গুগল হোম সিরিজের ডিভাইসে এই অ্যাসিস্ট্যান্ট সদা প্রস্তুত ব্যবহারকারীকে দৈনন্দিন কাজে সাহায্যের জন্য। অবশ্য গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট সবাই ব্যবহার করতে চান না, ফলে শুধু শুধু ডিভাইসের র‌্যাম ও প্রসেসরের পেছনে মোবাইলের চার্জ খরচ করার কোনো প্রয়োজন নেই। সে ক্ষেত্রে চাইলে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট বন্ধ করে রাখা যেতে পারে।

অ্যাসিস্ট্যান্ট বন্ধের জন্য প্রথমে ফোনের গুগল অ্যাপে যেতে হবে। এরপর ওপরের ডান কোনায় থাকা তিন বার সংবলিত বাটনে চেপে যেতে হবে মোর অপশনে। এরপর যেতে হবে সেটিংসে। সেখান থেকে সিলেক্ট করতে হবে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট। এরপর স্ক্রল করে নিচে যেতে হবে, সেখানে জেনারেল অপশনটিতে টাচ করতে হবে। এরপর সেখান থেকে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট অপশনের টিক মার্ক উঠিয়ে দিলেই চলবে। বেশ কিছু ওয়ার্নিং মেসেজ ব্যবহারকারীর সামনে তুলে ধরবে গুগল, সেগুলো এড়িয়ে গেলেও সমস্যা নেই। ব্যস, ফোনে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট এবং সারাক্ষণ ‘ওকে গুগল’ শব্দের জন্য ফোনের মাইক্রোফোন অন থাকা বন্ধ হয়ে যাবে।

অবশ্য গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট পুরোপুরি বন্ধ না করে শুধু ‘ওকে গুগল’ ডিটেকশন বা হোম বাটনে চাপ পড়লে গুগলের হাজির হওয়া বন্ধ করা যেতে পারে। কারণ ছাড়াই গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট চালু হতে পারে, যেমন অন্য কোনো শব্দকে ‘ওকে গুগল’ হিসেবে ডিটেকশন বা হোম বাটনে অনাকাঙ্ক্ষিত চাপ পড়ার ফলে সেটি চালু হয়ে যেতে পারে, যা বিব্রতকর। সে ক্ষেত্রে যেতে হবে ফোনের সেটিংস মেন্যুতে। সেখান থেকে অ্যাপস বা অ্যাপ্লিকেশন অপশনে গিয়ে ডিফল্ট অ্যাপ্লিকেশনস অপশনে যেতে হবে। এরপর ডিভাইস অ্যাসিস্ট্যান্ট অপশন থেকে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট সরিয়ে ‘ঘড়হব’ অপশনটি বেছে নিলেই গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট আর ডাক শুনে বা বাটনের চাপে হাজির হবে না।

অ্যাসিস্ট্যান্ট বন্ধ করার উপকার নতুন ডিভাইসের চেয়ে অবশ্য পুরনো ডিভাইসগুলোতেই বেশি পাওয়া যাবে। যাদের ফোনে স্ন্যাপড্রাগন ৪০০ বা ৬০০ সিরিজের প্রসেসর চলছে বা ফোনের বয়স তিন বছরের বেশি, তাদের ডিভাইসগুলো অ্যাসিস্ট্যান্টের কারণে অতিরিক্ত ব্যাটারি খরচ করতে পারে। বিশেষ করে স্ট্যান্ডবাইতে ব্যাটারি কমে যাওয়ার পেছনে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্টের হাত রয়েছে। তাই ফোনের ব্যাটারিলাইফ কিছুটা বাড়াতে আর গোপনীয়তা রক্ষা করার জন্য গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট বন্ধ করে রাখাই শ্রেয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন