ঢাকা, সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯, ০৪ ভাদ্র ১৪২৬, ১৭ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

অভ্যন্তরীণ

পাকুন্দিয়ার অপহৃত স্কুলছাত্র ১১ ঘণ্টা পর ময়মনসিংহ থেকে উদ্ধার

প্রকাশের সময় : ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

পাকুন্দিয়া (কিশোরগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : পাকুন্দিয়া উপজেলা থেকে অপহৃত হওয়া রনি (৯) নামের এক স্কুলছাত্রকে ১১ ঘণ্টা পর ময়মনসিংহ থেকে উদ্ধার করেছে পাকুন্দিয়া থানা পুলিশ। শনিবার রাতে পাকুন্দিয়া থানার এসআই নাজমুল হাসানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ময়মনসিংহ বড় বাজার এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করে। সে উপজেলার চিলাকাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র এবং কোদালিয়া পশ্চিমপাড়া গ্রামের রতন মিয়ার পুত্র। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে একই গ্রামের রজব আলীর পুত্র নাঈমকে (১৭) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। নাঈম সম্পর্কে রনির চাচাত মামা বলে পারিবারিক সূত্রে জানা যায়। জানা যায়, গত শনিবার প্রতিদিনের মতো বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে বসে পড়াশুনা করছিল রনি। এ সময় প্রায় দেড়টার দিকে নাঈম ক্লাস রুমে ঢুকে সহকারী শিক্ষিকা শাহানা পারভীনকে জানায়, রনির বাবা সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছে। রনিকে নিয়ে তার বাবার কাছে যেতে বলেছে। তখন শিক্ষিকা পারভীন রনিকে ছুটি দিয়ে দেয়। পরে নাঈম রনিকে বাই সাইকেলে তুলে পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে রনির বাবা রতন মিয়া নাঈমসহ অজ্ঞাত নামা জ্জ জনকে আসামি করে পাকুন্দিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পাকুন্দিয়া থানার এসআই নাজমুল হাসান জানান, মোবাইল ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে ময়মনসিংহের বড় বাজার এলাকার জামে মসজিদের সামনে থেকে রাত ১২টার দিকে নাঈমসহ অপহৃত রনিকে উদ্ধার করে পাকুন্দিয়া থানায় নিয়ে আসা হয়। গতকাল রোববার দুপুরে অপহরণকারী নাঈমকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে কোর্টে চালান দেয়া হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন