ঢাকা, বুধবার, ০৫ আগস্ট ২০২০, ২১ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৪ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

দীর্ঘ ৪৫ বছরেও হয়নি ব্রিজ নির্মাণ বাঁশের সাঁকো দিয়ে পারাপার হচ্ছেন ৮ গ্রামের মানুষ

প্রকাশের সময় : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কোটালীপাড়া (গোপালগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার মুশুরিয়া ওয়াবদার খালে দীর্ঘ ৪৫ বছরেও একটি ব্রিজ নির্মাণ না হওয়ায় বাশের সাঁকো দিয়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছেন স্কুল-কলেজপড়–য়া শত শত শিক্ষার্থী ও ৮ গ্রামের মানুষ। ব্রিজ না থাকায় একমাত্র বিশাল আকৃতির বাশের সাঁকো ব্যবহার করতে হয় মুশুরিয়া, শৈলদহ, পহরবাড়ী, চলবল, রামশীল, কাফুলাবাড়ী, জহরেরকান্দিও কবরবাড়ী গ্রামের মানুষকে। ফলে দুর্ঘটনার শিকার হতে হয় প্রতিনিয়ত। এর আগে পারাপার হতে গিয়ে দুজন নিহত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। তাছাড়া খালের পূর্বপারে একটি কলেজ, একটি উচ্চ বিদ্যালয়, দুটি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও দুটি মিশনারি স্কুলসহ গুরুদাশ মার্কেট নামে একটি বাজার রয়েছে। পশ্চিম পারেও দুটি মিশনারি স্কুল আছে। আর এ সমস্ত প্রতিষ্ঠানে নিত্যপ্রয়োজনীয় মালামাল ক্রয় করতে বাজারঘাটে যেতে হয় ওই বাঁশের সাঁকো দিয়ে। ব্রিজ না থাকায় কৃষিপণ্য পরিবহন করতে হয় প্রায় ৩ কি.মি. রাস্তা ঘুরে। এদিকে সাঁকোটি বছরে দুবার মেরামত করতে হয় এলাকাবাসীর অর্থ ও যুবকদের শ্রম দিয়ে। ইউপি সদস্য মনোরঞ্জন বালা ও শিক্ষক সুধীর রঞ্জন পা-ে বলেন, আমাদের এখানে একটি ব্রিজ একান্ত প্রয়োজন। এটা আমাদের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা। ব্রিজ না থাকায় কৃষিপণ্য পরিবহন করা যাচ্ছে না এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র আনা-নেয়া ছাড়াও ছেলেমেয়েদের স্কুল-কলেজে যেতে দুর্ঘটনার শিকার হতে হয়। তারা সরকারের ব্যাপক উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কাছে অচিরেই একটি ব্রিজ নির্মাণের দাবি জানান।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন