ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১০ বৈশাখ ১৪২৮, ১০ রমজান ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

ম্যানচেস্টার ডার্বিতে দাপট দেখাল ইউনাইটেড

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ মার্চ, ২০২১, ১২:৩৬ এএম | আপডেট : ১:৪৪ এএম, ৮ মার্চ, ২০২১

প্রথমার্ধে খেলা শুরুর দুই মিনিটের মাথায় পেনাল্টিতে দলকে এগিয়ে নেন ব্রুনো ফান্দান্দেস। এরপর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও জালের দেখা পান লুক শ। এই দুই জনই ব্যবধান গড়ে দিয়েছে ম্যানচেস্টার ডার্বিতে।

ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ম্যানটেস্টার সিটির ঘরের মাঠে দাপট দেখিয়ে তাদেরকে ২-০ গোলে হারিয়েছে নগর প্রতিদ্বন্দ্বী ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

টানা ২২ অ্যাওয়ে ম্যাচে অপরাজিত রইলো ইউনাইটেড।

গত ডিসেম্বরে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে আসরে দুই দলের প্রথম মুখোমুখি লড়াইটি গোলশূন্য ড্র হয়েছিল।

লিগে টানা ১৫ ও সব প্রতিযোগিতা মিলে টানা ২১ ম্যাচ জয়ের পর হারের তেতো স্বাদ পেল পেপ গুয়ার্দিওলার দল। গত রাউন্ডেই টানা ২৮ ম্যাচে অপরাজিত থাকার ক্লাব রেকর্ড স্পর্শ করেছিল তারা।

এর আগে সবশেষ সিটি হেরেছিল গত নভেম্বরে, লিগে টটেনহ্যাম হটস্পারের মাঠে ২-০ গোলে।

ম্যাচ শুরু হতেই সিটির ডি-বক্সে ঢুকে পড়ে ইউনাইটেড। অঁতনি মার্সিয়াল ফাউলের শিকার হলে ৩৩ সেকেন্ডের মাথায় পেনাল্টি পায় তারা। আর স্পট কিকে দলকে এগিয়ে নেন ফের্নান্দেস। গোলরক্ষক এদেরসন ডানদিকে ঝাঁপিয়ে বলে হাত লাগালেও রুখতে পারেননি।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন লুক শ।ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন লুক শ।সেই ধাক্কা সইয়ে অধিকাংশ সময় বল দখলে রেখে আক্রমণাত্মক খেলতে থাকে সিটি। বিরতির আগে গোলের উদ্দেশে ১৩টি শট নেয় তারা, যার চারটি ছিল লক্ষ্যে। কিন্তু সাফল্য মেলেনি।
৪৩তম মিনিটে কেভিন ডি ব্রুইনের দারুণ ফ্রি কিকে বল নিচু হয়ে জালে ঢুকতে যাচ্ছিল, লাফিয়ে এক হাত দিয়ে বল ক্রসবারের ওপর দিয়ে পাঠান গোলরক্ষক ডিন হেন্ডারসন। দুই মিনিট পর রিয়াদ মাহরেজের দূরের পোস্টে নেওয়া ক্রসে পা লাগাতে ব্যর্থ হন গাব্রিয়েল জেসুস।

দ্বিতীয়ার্ধের চতুর্থ মিনিটে দুর্দান্ত এক আক্রমণে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ইউনাইটেড। গোলরক্ষক হেন্ডারসনের থেকে বল পেয়ে নিজেদের সীমানা থেকে দারুণ ক্ষিপ্রতায় ছুটে গিয়ে মার্কাস র‌্যাশফোর্ডকে পাস দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন শ। এরপর ফিরতি পাস পেয়ে নিখুঁত শটে পোস্ট ঘেঁষে ঠিকানা খুঁজে নেন এই ইংলিশ ডিফেন্ডার।

৬৮তম মিনিটে গোলরক্ষককে একা পেয়েছিলেন মার্সিয়াল। তবে তার শট ঝাঁপিয়ে রুখে দেন এদেরসন। ১০ মিনিট পর সুযোগ নষ্ট হয় সিটিরও; মাহরেজের ডান দিক থেকে বাড়ানো দারুণ ক্রস ডি-বক্সে আয়ত্ত্বে পেয়েও বলে পা লাগাতে পারেননি রাহিম স্টার্লিং।

পুরো ম্যাচে দুই তৃতীয়াংশ সময় বল দখলে রেখে গোলের উদ্দেশে ২১টি শট নেয় সিটি, যার পাঁচটি ছিল লক্ষ্যে। বিপরীতে আট শটের ছয়টিই লক্ষ্যে রাখা ইউনাইটেড পেল অসাধারণ এক জয়।

সব প্রতিযোগিতা মিলে টানা ২১ ম্যাচ জয়ের পর হারের তেতো স্বাদ পেয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি।সব প্রতিযোগিতা মিলে টানা ২১ ম্যাচ জয়ের পর হারের তেতো স্বাদ পেয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি।হারলেও শিরোপা পুনরুদ্ধারের লড়াইয়ে বেশ শক্ত অবস্থানেই থাকছে ম্যানচেস্টার সিটি। ২৮ ম্যাচে ২০ জয় ও পাঁচ ড্রয়ে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে তারা। ১৫ জয় ও ৯ ড্রয়ে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে ইউনাইটেড।
তিন নম্বরে থাকা লেস্টার সিটির পয়েন্ট ৫৩। ৪৭ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে এক ম্যাচ কম খেলা চেলসি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন