ঢাকা রোববার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮, ০৫ রমজান ১৪৪২ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

মানবাধিকার সংগঠনের নামে প্রতারণা

গ্রামের মানুষ না বুঝেই এসব চক্রের ফাঁদে পড়ে প্রতারিত হচ্ছেন

বগুড়া ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৯ মার্চ, ২০২১, ১২:০১ এএম

মানবাধিকার সংগঠনের নামে বগুড়ায় গ্রামপর্যায়ে একাধিক সিন্ডিকেট গড়ে উঠেছে। তারা গ্রামের সাধারণ মানুষের সরলতার সুযোগে আর্থিক ফায়দা লুটছে। প্রতারণার বিষয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ করায় সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার করছে ওই সিন্ডিকেট। এ ঘটনায় জেলার নন্দীগ্রাম থানায় সাধারণ ডায়রি করেন নজরুল ইসলাম দয়া নামের এক জাতীয় দৈনিকের চিফ রিপোর্টার। গতকাল সোমবার এ বিষয়টি জানান, নন্দীগ্রাম থানার ওসি কামরুল ইসলাম। তবে, জিডির তদন্ত করছে বগুড়া সাইবার ক্রাইম ইউনিট। জিডির বিবরণ সূত্রে জানা গেছে, অপরাধ অনুসন্ধানের নামে সরকারি অনুমোদনহীন ডিজিটাল আন্তর্জাতিক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনসহ বিভিন্ন সংগঠনের কর্মীরা বগুড়া সদর, নন্দীগ্রাম, কাহালু উপজেলা ছাড়াও জেলার সবকটি উপজেলা চষে বেড়াচ্ছেন। গ্রামের মানুষ না বুঝেই এসব চক্রের ফাঁদে পড়ে প্রতারিত হচ্ছেন। জয়েন্ট স্টক কোম্পানি হিসেবে নামমাত্র ছাড়পত্রের আবেদন করে আবেদন নম্বরকেই রেজিস্ট্রেশন নম্বর হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে।
উল্লিখিত জিডিতে সাংবাদিক নজরুল ইসলাম দয়া উল্লেখ করেন, সংবাদ প্রকাশ করায় বিভিন্ন মাধ্যমে সাংবাদিকদের মামলায় হয়রানি করবে বলে হুমকি দিচ্ছে সিন্ডিকেটের হোতারা। ডিজিটাল আন্তর্জাতিক মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের সরকারি কোনো বৈধতা নেই। তারা নামের আবেদন নম্বরকে রেজিস্ট্রেশন নম্বর হিসেবে ব্যবহার করছে। ওই সংগঠনের চেয়ারম্যান পরিচয় দেয়া আতিকুর রহমান সবুজ পটুয়াখালীর গলাচিপা থানার ছোটশিবা গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে। বর্তমানে ঢাকার মিরপুরের রুপনগরে থাকেন। আতিকুর রহমান সবুজ গলাচিপা থানার অপহরণ মামলার প্রধান পলাতক আসামি।
গত বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। এ ছাড়া চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা থানার চিতলা গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে দিনমজুর মামুন হোসেনকে আইনী সহায়তার নামে মিরপুর ১০ বুশরা ক্লিনিকের ৫ম তলায় ডেকে কয়েকটি নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয় অভিযুক্ত আতিকুর রহমান। পরে বিকাশের মাধ্যমে ও নগদ টাকা প্রতারণা করে। গত বছরের ৫ ফেব্রুয়ারি দামুড়হুদা থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়।
প্রতিবাদ করায় হুমকিসহ মিথ্যা মামলায় হয়রানির শিকার হচ্ছেন মামুন। আতিকুর রহমানকে গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে প্রতারিত মামুন হোসেন সম্প্রতি ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে একটি ব্যানার নিয়ে অনশন করেন। এসব ঘটনার সংবাদ প্রকাশ করায় একাধিক গণমাধ্যমের সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার করছেন অভিযুক্ত আতিকুর।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
শেখ তিতুমীর ৯ মার্চ, ২০২১, ২:২৩ পিএম says : 0
এই প্রতারক অনেক দিন ধরে এদেশের মানুষের সাথে প্রতারনা করে আসচ্ছে, আমারা সাংবাদিক রা এদের বিরোদ্ধে নিউজ করায় আমাদের কে নানান ভাবে মিথ্যা থানায় জিডি করে ভয় ভিতি দেখিয়েছে, সরল সহজ মানুষ কে অনেক সর্বহাড়া করেছে। ধন্যবাদ প্রাণের পত্রিকা ইনকিলাব কে।
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন