শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ১৫ মাঘ ১৪২৮, ২৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ক্যাডেটরা সুনীল অর্থনীতিতে অবদান রাখছেন চট্টগ্রামে প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৫ মার্চ, ২০২১, ৯:২৭ পিএম

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, দেশের সুনীল অর্থনীতিতে অবদান রাখার নিমিত্তে চৌকস প্রশিক্ষিত ক্যাডেটদের মাধ্যমে বাংলাদেশের ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার আর্থ সামাজিক উন্নয়নের জন্য একটি নতুন দুয়ার উন্মোচিত হলো। সোমবার চট্টগ্রাম মেরিন ফিশারিজ একাডেমিতে ৩৯তম ও ৪০তম ব্যাচের পাসিং আউট প্যারেড অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি । তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে গড়া বাংলাদেশ মেরিন ফিশারিজ একাডেমি থেকে গ্র্যাজুয়েশন করা ক্যাডেটরা কাজের ক্ষেত্রে দেশেই নয় বিদেশেও বাংলাদেশর প্রতিনিধিত্ব করবে। দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করবে। দেশের মান-সম্মান রক্ষার দায়িত্ব ক্যাডেটদের ওপর ন্যস্ত হলো।


অনুষ্ঠানে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব রওনক মাহমুদ, মেরিন একাডেমির অধ্যক্ষ ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ ওয়াসিম মকসুদসহ বাংলাদেশ নৌবাহিনী, বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড, নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়, নৌপরিবহন অধিদফতর, মৎস্য অধিদফতর, মার্কেন্টাইল মেরিন ডিপার্টমেন্ট, সরকারি শিপিং অফিসসহ মেরিটাইম শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রধান ও উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে একাডেমির অ্যাডজুট্যান্ট লেফট্যানেন্ট একেএম কাওসার জাহান ক্যাডেটদের শপথবাক্য পাঠ করান। ৩৯তম ব্যাচের নন্দীনি কুণ্ড, ৪০তম ব্যাচের ক্যাডেট আজমাইন আজ সামি, ক্যাডেট শাহেদা আক্তার, ক্যাডেট নাহিদুর রহমান স্বর্ণপদক লাভ করেন।
এ বছর একাডেমির ৩৯তম ও ৪০তম ব্যাচে নটিক্যাল বিভাগে ৬৩ জন, মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ৬৬ জন এবং মেরিন ফিশারিজ বিভাগে ৩৬ জন ক্যাডেট গ্র্যাজুয়েশন লাভ করেছেন।

এদের মধ্যে মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ৬ জন এবং মেরিন ফিশারিজ বিভাগে ৪ জন নারী ক্যাডেট রয়েছেন। নারী শিক্ষার উন্নয়নে বর্তমান সরকারের যুগোপোযোগী পরিকল্পনার একটি ধাপ হিসেবে এ একাডেমিতে মেরিন ফিশারিজ ও মেরিন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে নারী ক্যাডেটদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন