ঢাকা, সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭ আষাঢ় ১৪২৮, ০৯ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বেশিরভাগ হিন্দুদের বাড়ি দখল করছে আওয়ামী লীগ

আলোচনা সভায় মির্জা ফখরুল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ মার্চ, ২০২১, ১২:০০ এএম

আওয়ামী লীগ আমলে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা, সম্প্রীতি বিনষ্ট সবকিছু আওয়ামী লীগ আমলে হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, বেশিরভাগ হিন্দুদের বাড়ি-ঘর দখল করেছে এই আওয়ামী লীগই। সুনামগঞ্জের শাল্লার ঘটনাও এর ব্যতিক্রম নয়। সেখানে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ি-ঘরে হামলার ঘটনায় কে ধরা পড়েছে সে প্রশ্ন তুলে বিএনপি মহাসচিব বলেন, সুনামগঞ্জের শাল্লার ঘটনার পর ওবায়দুল কাদের সাহেব বললেন এটা বিএনপি করেছে। ধরা পড়লো কে? যুবলীগের স্বাধীন মেম্বার। আমি সেদিন বলেছি -আপনারা একটা নিরপেক্ষ তদন্ত করে দেখুন যে, হিন্দু স¤প্রদায়ের ভাইদের কত জমি, কত বাড়ি কারা দখল করে আছে। যার বেশিরভাগই আওয়ামী লীগের লোকেরা দখল করে আছে।

গতকাল বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ’৯০ এর ডাকসু ও সর্বদলীয় ছাত্র ঐক্যের’ উদ্যোগে এইচ এম এরশাদের ক্ষমতা দখলে ২৪ মার্চ কালো দিবস’ শীর্ষক এই আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
সরকার স্বাধীতার সুবর্ণজয়ন্তী নয়, মুজিববর্ষ উদযাপন করছে মন্তব্য করে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সুবর্ণজয়ন্তী পালন করলে আপনাদের সঙ্গে মানুষ কোথায়? জনগণকে তো সঙ্গে দেখি না। প্যারেড গ্রাউন্ডের প্রোগ্রামে শুধুমাত্র আমলা, কিছুসংখ্যক তাবেদার গোষ্ঠি ছাড়া আর কাউকে দেখা যায় না। আর বাইরে থেকে কিছু মেহমান নিয়ে আসছেন। সেই মেহমানরা কি বলেন? তাদের দিয়ে বলাতে চান যে, এক অভ‚তপূর্ব অলৌকিক উন্নয়ন হয়েছে, মানুষের সামনে কোনো অভাব নাই। অথচ আমাদের চালের দাম ৮০ টাকা, তেল, ডালের দাম বেড়েছে, সাধারণ মানুষের সব কিছু ক্রয়ক্ষমতার বাইরে...। যতই বলুক ঢাকঢোল পিটাক, সত্যটা হচ্ছে গরিব আরো গরিব হচ্ছে, ধনী আরো ধনী হচ্ছে। মেগা প্রকল্প শুধু মাত্র মেগা দুর্নীতি তৈরি করছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করে ক্ষমতায় থাকতে চায়, কারণ তারা জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়, সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন। সরকার শুধু ক্ষমতায় টিকে থাকবার জন্য অবৈধ কাজ, মিথ্যা কথা বলছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, আল-জাজিরা টেলিভিশনে যে রিপোর্ট এসেছে, দি ইকোনমিক্সটে যে তথ্য এসেছে, ডয়েচে ভেলে যে কথা এসেছে তাতে করে আপনাদের সেইদিনই পদত্যাগ করা উচিত ছিলো।

করোনা মোকাবিলা নয়, সরকার দুর্নীতিতে ব্যস্ত অভিযোগ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, আবার করোনা ভীষণভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। আবার করোনা সুষ্ঠুভাবে নিয়ন্ত্রণের জন্য নাকী প্রধানমন্ত্রী পুরস্কারও পেয়েছেন। অথচ আজকে সারা বাংলাদেশে করোনা ছড়িয়ে পড়েছে এবং এটা নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রয়োজনীয় কোনো কাজ সরকার কেরনি। এক বছর পর এখন কী বলছে? আইসিইউ বেড নেই? তাহলে এক বছর ধরে কি করলেন? কেন এই এক বছরে আইসিইউ বেড সংগ্রহ করতে পারলেন না, জনগণকে সচেতন করা, মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে পারলেন না? সিঙ্গাপুরের অভিজ্ঞতা থেকে তিনি বলেন, সেখানে সবাই মাস্ক পরে। কেন? সরকার তাদেরকে বুঝিয়েছে পরতে হবে, না পরলে ৫শ’ ডলার ফাইন।

বিএনপি ভ্যাকসিনের বিপক্ষে নয় জানিয়ে দলটির অন্যতম এই শীর্ষ নেতা বলেন, ভ্যাকসিন ছাড়া এই ভাইরাসের প্রতিষেধক হবে না। কিন্তু আপনারা ভ্যাকসিন নিয়ে যে দুর্নীতি করছেন আমরা তার বিরুদ্ধে। ২ ডলার ৩৩ সেন্টের ভ্যাকসিন কেনা হয়েছে ৫ ডলারে। এতো বড় দুর্নীতি! স্বাস্থ্য বিভাগের বড় বড় নেতা-কর্মকর্তারা মন্ত্রীসহ কিভাবে তারা দুর্নীতি করেছে এই পিপিই-পোষাক-ঔষুধ নিয়ে।

রোহিঙ্গা সঙ্কট প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রোহিঙ্গা শিবিরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ৫ হাজার বাড়ি পুঁড়ে গেছে, মারা গেছে প্রায় ১৫ জন। এতটুকু জায়গাতে ১২ লাখ রোহিঙ্গাদের রাখা, তাদের ভরন-পোষণ, সুন্দরভাবে রাখা-এটা বাংলাদেশের মতো দেশের পক্ষে কঠিন হয়ে যাচ্ছে। এজন্য আমরা বার বার বলেছি এই সঙ্কট সমাধান করতে হবে। কিন্তু সরকার চেষ্টা করছেন না, বরং এটাকে ব্যবহার করার চেষ্টা করছে।
সরকারের কোন উদ্যোগ নেই অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন, এনিয়ে প্রধানমন্ত্রী, পররাষ্ট্র মন্ত্রী কোনো রাষ্ট্র সফর করেননি। ভারত-চীনের সাথে এতো চমৎকার সম্পর্ক, তারা এটি সমাধানে পাশে দাঁড়ায়নি। কেনো? আপনাদের ক‚টনৈতিক ব্যর্থতার জন্য।

ডাকসুর সাবেক ভিপি ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আমান উল্লাহ আমানের সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলনের পরিচালনায় আলোচনা সভায় সাবেক ছাত্র নেতাদের মধ্যে শামসুজ্জামান দুদু, আসাদুজ্জামান রিপন, হাবিবুর রহমান হাবিব, খায়রুল কবির খোকন, মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল, জহির উদ্দিন স্বপন, নাজিম উদ্দিন আলম, সাইফুদ্দিন মনি, খোন্দকার লুতফর রহমান, আজিজুল বারী হেলাল, এবিএম মোশাররফ হোসেন, মহিলা দলের আফরোজা আব্বাস, যুব দলের সুলতান সালাহউদ্দিন টুকু, স্বেচ্ছাসেবক দলের আবদুল কাদির ভুঁইয়া জুয়েল বক্তব্য রাখেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন