সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫ আশ্বিন ১৪২৮, ১২ সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার অর্থনীতিতে দ্বিতীয়

বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০০ এএম

করোনার প্রভাব কাটিয়ে দক্ষিণ এশিয়ার অর্থনীতি পুনরায় ভালো করবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক। তারা বলছে, ২০২১ অর্থবছরে দক্ষিণ এশিয়ার মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) গড় প্রবৃদ্ধি দাঁড়াতে পারে ৭ দশমিক ২ শতাংশ। তারপরের ২০২২ অর্থবছরে একটু কমে গড় প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৪ দশমিক ৪ শতাংশ।

গতকাল বুধবার ‘সাউথ এশিয়ান ইকোনমিকস বাউন্স ব্যাক বাট ফেস ফ্রাজিল রিকভারি’ শীর্ষক এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক। আন্তর্জাতিক ঋণদানকারী এই প্রতিষ্ঠানটি প্রতিবেদনে বলছে, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে চলতি অর্থবছরে সবচেয়ে ভালো করবে মালদ্বীপ। তারপর বাংলাদেশ। তারপরের অর্থবছরেও সবচেয়ে ভালো করবে মালদ্বীপ, তারপর ভারত এবং তৃতীয় স্থানে চলে যাবে বাংলাদেশ।

বিশ্ব ব্যাংকের তথ্যানুযায়ী, ২০২১ অর্থবছর (জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর) শেষে মালদ্বীপের প্রবৃদ্ধি হতে পারে ১৭ দশমিক ১ শতাংশ। ২০২২ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি হতে পারে ১১ দশমিক ৫ শতাংশ। প্রবৃদ্ধির দিক থেকে মালদ্বীপের ধারেকাছেও নেই দক্ষিণ এশিয়ার অন্য দেশ। তাদের পূর্বাভাস অনুযায়ী, ২০২১-২২ অর্থবছরে (জুন-জুলাই) বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৫ দশমিক ১ শতাংশ। তারপরের ২০২২-২৩ অর্থবছরে এ দেশে প্রবৃদ্ধি অর্জিত হতে পারে ৬ দশমিক ২ শতাংশ।

২০২০-২১ অর্থবছরে (এপ্রিল থেকে মার্চ) ভারতের জিডিপির প্রবৃদ্ধি হতে পারে ঋণাত্মক ৮ দশমিক ৫ শতাংশ। তবে তার পরের ২০২১-২২ অর্থবছরে (এপ্রিল-মার্চ) দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়াবে দেশটি। এই অর্থবছরে তাদের প্রবৃদ্ধি হবে ১০ দশমিক ১ শতাংশ এবং ২০২২-২৩ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি দাঁড়াবে ৫ দশমিক ৮ শতাংশ। আফগানিস্তান ২০২১ অর্থবছরে (ডিসেম্বর থেকে ডিসেম্বর) জিডিপির প্রবৃদ্ধি করবে ১ শতাংশ এবং ২০২২ অর্থবছরে করবে ২ দশমিক ৬ শতাংশ। শ্রীলঙ্কার ২০২১ অর্থবছরে (জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর) জিডিপির প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৩ দশমিক ৪ শতাংশ এবং ২০২২ অর্থবছরে তা দাঁড়াতে পারে ২ শতাংশ। ভুটানে ২০২১-২২ অর্থবছরে (জুলাই থেকে জুন) জিডিপির প্রবৃদ্ধি হতে পারে ২ দশমিক ৯ শতাংশ এবং ২০২২-২৩ অর্থবছরে হতে পারে ৪ দশমিক ৫ শতাংশ। নেপালে ২০২০-২১ অর্থবছরে (মধ্য জুলাই থেকে মধ্য জুলাই) প্রবৃদ্ধি হতে পারে ২ দশমিক ৭, ২০২১-২২ অর্থবছরে ৩ দশমিক ৯ শতাংশ এবং ২০২২-২৩ অর্থবছরে হতে পারে ৫ দশমিক ১ শতাংশ। পাকিস্তানে ২০২০-২১ অর্থবছরে (জুলাই থেকে জুন) জিডিপির প্রবৃদ্ধি হতে পারে ১ দশমিক ৩ শতাংশ, ২০২১-২২ অর্থবছরে ২ শতাংশ, ২০২২-২৩ অর্থবছরে ৩ দশমিক ৪ শতাংশ।

বিশ্ব ব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট হার্টিং স্কফার বলেন, আমরা দক্ষিণ এশিয়ার অর্থনীতি পুনরায় ভালো করার স্পষ্ট ইঙ্গিত দেখতে পাচ্ছি। যদিও করোনা পরিস্থিতি এখনো পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে নেই। রিকভারির অবস্থা এখনো ভঙ্গুর। এ ক্ষেত্রে টিকা গুরুত্বপূর্ণ। সামনের দিনগুলোতে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর টিকার ওপর জোর দেয়া প্রয়োজন এবং এ ক্ষেত্রে পরিকল্পিতভাবে এগোনো উচিত।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Ferdous Ibn ১ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৫ এএম says : 7
মানি না। দ্বিতীয় নয়, একেবারে তলানীতে......
Total Reply(0)
Mehedi Hassan Khan Babla ১ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৬ এএম says : 0
বিশ্বব্যাংকের আশংকা কখনো সত্য হয়না।
Total Reply(0)
Aminur Rashed Shahed ১ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৬ এএম says : 0
কাজির গরু খাতায় আছে গোয়ালে নাই। আমরা বরাবর উন্নয়ন আর প্রবৃদ্ধি ধুয়ে পানির বদলে বাতাবী লেবুর শরবত খাইতেছি। আলহামদুলিল্লাহ
Total Reply(0)
Md Eyasin ১ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৭ এএম says : 0
তারপরও একদল লোক বলবে বাংলাদেশ উন্নয়নে অনেক পিছিয়ে আছে।
Total Reply(0)
Talha Jobayer ১ এপ্রিল, ২০২১, ১:০৭ এএম says : 0
ও আল্লাহ,মালদ্বীপ আমাদের আগে!!!!!
Total Reply(0)
Assad ১ এপ্রিল, ২০২১, ৩:৪২ পিএম says : 0
চৌরের রায‍্যে আমরা সবায় চৌর
Total Reply(0)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১ এপ্রিল, ২০২১, ৭:৪১ এএম says : 0
বাংলাদেশের অর্থনীতি শক্তিশালী হচ্ছে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়াইশক্তিশালী সম্পদশালী বাংলাদেশহচ্ছে বাংলাদেশের সমুদ্র সম্পদ একলক্ষ একুশ হাজার বর্গ কিলোমিটারে ব্লুইকোনিমি মহাপরিকল্পনার মাঝেই অর্থনৈতিক পরাশক্তি হওয়ার সম্ভাবনা বিদ‍্যমান। বাংলাদেশ পেয়েছেন শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ বিশালাকার ব‍্যাক্তিত্বের সৎ দক্ষ চিন্তাশীল সাহসী ক‍্যারশম‍্যাটিক আন্তর্জাতিক মানের নেতা বঙ্গবন্ধুর কন‍্যাকে বাংলাদেশের অর্থনীতি প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বের মাঝে বড় প্রয়োজন জাতীয় ঐক্য। ঐক্যবদ্ধ জাতি উন্নয়ন অগ্রগতির জন্যে ভিশনারী লিডারশিপ প্রয়োজন শক্তিশালী নেতৃত্বের প্রয়োজন জাতীয় আন্তর্জাতিকভাবে বঙ্গবন্ধুর কন‍্যার মাঝে বাংলাদেশ পেয়েছেন। পদ্ধাসেতু কখনো কি বাংলাদেশের মানুষ নিজের অর্থে চিন্তা করতে পেরেছেন?? বিশ্বব‍্যাংক আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থার চ‍্যালেঞ্জ গভীর ষড়যন্ত্রের শক্ত জবাব আজ পদ্ধাসেতু দিশ‍্যমান। পছিশতম শক্তিশালী অর্থনীতির বাংলাদেশ হবে অর্থনৈতিক সুচকে বাংলাদেশের শক্তিশালীঅবস্থান শক্তিশালী মর্যাদাবান বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা আর্তমর্যাদাশীল একটি বাংলাদেশপ্রতিষ্ঠা সংগ্রামে পাশ্ববর্তী সহ দেশীয় আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রের কবলে বাংলাদেশের অর্থনীতি পড়েছে। দেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর কাছে নিরাপদ। বঙ্গবন্ধুর ক্ষুদা ও দারিদ্র মুক্তির সংগ্রাম পেরিয়ে উন্নয়নশীল বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা বিশ্ব মানবতার মাকে অভিনন্দন। বিশ্বব‍্যাংক সহ আন্তর্জাতিক দাতাসংস্থা আন্তর্জাতিক গনমাধ্যমে বার বার বাংলাদেশের উন্নয়নশীল দেশের শিরোনাম হচ্ছে তারজন‍্যে বঙ্গবন্ধুর কন‍্যার ভিশনারী লিডারশিপ কে অভিনন্দন।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন