সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯, ০৯ মুহাররম ১৪৪৪ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

বইমেলায় দর্শনার্থী কম প্রকাশকরা হতাশ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ এএম

লকডাউনে প্রাণের বইমেলা ছিল প্রাণহীন। তবে গতকাল গণপরিবহন চালু হওয়ায় বইমেলায় দর্শনার্থীর সংখ্যা বেড়েছে। এতে নিস্তব্ধ প্রাণহীন বইমেলা কিছুটা প্রাণ ফিরে পেয়েছে। বিভিন্ন স্টলে ও প্যাভিলিয়নে দেখা গেছে দর্শনার্থীর আনাগোনা। বিক্রয়কর্মীদের মাঝেও ব্যস্ততা দেখা গেছে। বইপ্রেমীরা স্টল ও প্যাভিলিয়ন ঘুরে ঘুরে পছন্দের বই কিনছেন।

ক্রেতাদের আনাগোনায় প্রকাশকদের মাঝে কিছুটা স্বস্তি ফিরে এলেও, প্রত্যাশা অনুযায়ী ক্রেতা না থাকায় অধিকাংশ হতাশা প্রকাশ করেছেন। এছাড়া তীব্র গরমে অস্বস্তিতে রয়েছেন ক্রেতা-বিক্রেতারা। বইমেলা বিকেল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত করার দাবি জানিয়েছেন অনেকে।
প্রতিভা প্রকাশের একজন বিক্রয় কর্মী বলেন, দুপুর সাড়ে ১২টায় মেলা শুরু হলেও পাঠকরা তখন আসেন না। রোদ কিছুটা কমে আসার পর অর্থাৎ ৩টা থেকে পাঠক মেলায় আসতে শুরু করেন। এ অবস্থায় ৫টা পর্যন্ত মেলা চললে বেচা কেনা করা কষ্টকর।
সপ্তডিঙা প্রকাশনীর বিক্রয়কর্মী সেলিম বলেন, গত দুই দিনের চেয়ে গতকাল মেলায় কিছু বইপ্রেমী মানুষ এসেছেন। তবে প্রত্যাশা অনুযায়ী অনেক কম। দর্শনার্থীরা আশা শুরু করেন বিকেল ৫টার দিকে, কিন্তু মেলা তখন বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়া লকডাউনের মাঝে আমাদের অনেক কষ্ট করে আসতে হয়। মেলা ১২টায় শুরু হওয়ায় দুপুরের তীব্র রোদে অস্বস্তিকর অবস্থায় পড়তে হয়। বিকেল থেকে মেলা শুরু হলে আমাদের কষ্ট কিছুটা কম হতো না।
দ্য ইউনিভার্সাল পাবলিশিং একাডেমির প্রকাশক ও সৃজনশীল সাহিত্য উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের সেক্রেটারি শিহাব উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, এবারের বইমেলা প্রকাশকদের জন্য অত্যন্ত দুঃখের। আমরা কোনোমতে প্যাভিলিয়ন নিয়ে দাঁড়িয়ে আছি। মেলাশেষে আমাদের ব্যয় উঠবে কি না সন্দেহ। তার মাঝে গত দুই দিন লকডাউন থাকায় বেচাকেনা হয়নি। তবে আজ (বুধবার) গণপরিবহন চালু থাকায় কিছুটা বেচাকেনা হচ্ছে।
তিনি বলেন, মেলার এখন যে সময় এটা পাঠক ও প্রকাশকদের অনুক‚লে না। এই সময় মানুষ এত গরমের মধ্যে দিয়ে আসতে চায় না। মেলা যদি আগের মতো ৩টা থেকে রাত ৮টার মধ্যে করা হয়, তাহলে আমাদের জন্য সুবিধা হয়, পাঠকদের জন্যও আমি মনে করি সুবিধা হবে। বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত হলে ওই সময় ক্রেতারা ভিড় জমান, তখন আমাদেরও কিছু বেচাকেনা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন