ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ২৩ বৈশাখ ১৪২৮, ২৩ রমজান ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

ভারতের ভিসা পাবেন বাবর আজমরা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০০ এএম

ভারত-পাকিস্তান দুটো দেশের নাম একসঙ্গে শুনলেই পাওয়া যায় রাজনৈতিক উত্তাপের আঁচ। খেলার দুনিয়ায়, বিশেষ করে ক্রিকেটে প্রতিবেশী দেশ দুটির সংঘাত যেন আরও বাড়িয়ে দেয়। দ্বিপাক্ষিক সিরিজ নেই, ভরসার জায়গা আইসিসি প্রতিযোগিতার আঙিনাতেও দোলাচল। এ বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক ভারত হওয়ায় পাকিস্তানের অংশগ্রহণ নিয়ে জন্মেছিল সংশয়ের কালো মেঘ। কারণটা পাকিস্তান দলের ভারতের ভিসা না পাওয়ার শঙ্কা।
অনেক আলোচনার পর অবশেষে শঙ্কার মেঘ কেটে গেছে। অক্টোবর-নভেম্বরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের অংশ নিতে আর কোনও বাধা থাকলো না। ভারত সরকার পাকিস্তান দলের ভিসা পাওয়ার নিশ্চয়তা দিয়েছে। তাই বাবর আজমদের ভারতে যেতে আর কোনও বাধা নেই। ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) সেক্রেটারি জয় শাহ বিষয়টি অ্যাপেক্স কাউন্সিলকে নিশ্চিত করেছেন। আর সেটি অ্যাপেক্স কাউন্সিলের এক সদস্য ভারতীয় সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানিয়েছেন।
পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি) থেকে ভিসার জটিলতা নিরসনে অনেক আগে থেকেই দাবি তোলা হয়েছিল। তারা কয়েক দফা দাবি তোলার পরও যখন সমাধান হচ্ছিল না, তখন দ্বারস্থ হয় ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি)। ভারতীয় ভিসার নিশ্চয়তা পেতে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রণ সংস্থাকে সময়ও বেঁধে দেয়। তাতেও কোনও লাভ হয়নি। আইসিসিকে দুই-তিনবার বিষয়টি জানানোর পরও পিসিবির দাবি পূরণ হচ্ছিল না। অবশেষে তারা পেলো সুসংবাদ।
ভারত সরকার পাকিস্তান দলকে ভিসা দেওয়ার নিশ্চয়তা দিয়েছে। অ্যাপেক্স কাউন্সিলের সভা শেষ পিটিআইকে তেমনটাই জানিয়েছেন এক সদস্য, ‘পাকিস্তান ক্রিকেট দলের ভিসা সংক্রান্ত ঝামেলা মিটে গেছে। যদিও (পাকিস্তানে) সমর্থকরা বর্ডার পর হয়ে ম্যাচ দেখার সুযোগ পাবেন কিনা, সেটা এখনও পরিষ্কার নয়।’
ভিসা জটিলতা নিরসনে বিসিসিআইকে ভালোই চাপ দিয়েছে আইসিসি, সেটি ওই সদস্যের পরের কথাতে স্পষ্ট, ‘এটা (পাকিস্তানি দর্শকরা আসতে পারবেন কিনা) কিছুদিনের মধ্যেই মীমাংসা হয়ে যাবে। আমরা আইসিসিকে কথা দিয়েছিলাম, বিষয়টার সুরাহা করার। সেক্রেটারি (জয় শাহ) মিটিংয়ে ঘোষণা দিয়েছেন।’
ভিসা ইস্যু অবশ্য পিসিবি অনেক আগেই তুলেছে। তাদের দাবি ছিল, ভারতের কাছ থেকে ভিসা ও নিরাপত্তার ব্যাপারে ‘লিখিত নিশ্চয়তা’ না পেলে ভারতের মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলবে না পাকিস্তান। সেক্ষেত্রে তারা ভারত থেকে সরিয়ে অন্য কোথাও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের দাবি জানাবে। পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানি জানিয়েছিলেন, আইসিসির সঙ্গে তাদের যোগাযোগ হচ্ছে এবং ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা বিকল্প ভেন্যু হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে বিবেচনায় রেখেছে।
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভিসার ঝামেলা দূর করতে গত বছরের অক্টোবরেই আইসিসির দারস্থ হয়েছিল পিসিবি। সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান সে সময় জানিয়েছিলেন, তারা ভারতের ভিসা পাওয়ার ব্যাপারে আইসিসির নিশ্চয়তা চান এবং ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রণ সংস্থার কাছ থেকে উত্তর জানতে অপেক্ষা করবেন ২০২১ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত।
সেই সময় পার হয়ে যাওয়ার পর নতুন করে আইসিসি মার্চ পর্যন্ত সময় চায়। এই সময়ের মধ্যেও সিদ্ধান্ত আসেনি। অবশেষে বিসিসিআইয়ের অ্যাপেক্স কাউন্সিলের সভায় আসা ঘোষণায় ভিসা সংক্রান্ত ঝামেলা দূর হলো পাকিস্তানের।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
Md Ileas Hossain ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ১:৩৮ এএম says : 0
good decision
Total Reply(0)
MD FOKHRUL ISLAM ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ১:৩৯ এএম says : 0
Very good news.
Total Reply(0)
Mir Irfan Hossain ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ১:৪১ এএম says : 0
Well wishes form them
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন