সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৯ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

আলেম-ওলামাদের ঢালাওভাবে গ্রেফতারে লকডাউন প্রশ্নবিদ্ধ : পীরসাহেব চরমোনাই

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ৫:২৫ পিএম | আপডেট : ৬:০৮ পিএম, ১৮ এপ্রিল, ২০২১

আলেম-উলামাদের ঢালাওভাবে গ্রেফতার ও হয়রানির কারণে লকডাউন প্রশ্নবিদ্ধ হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই। আজ রোববার এক বিবৃতিতে পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, দেশের নিরীহ নিরাপরাধ আলেম উলামাদের গ্রেফতার ও হয়রানির কারণে সরকারের চলমান লকডাউন কঠোরভাবে সমালোচিত হয়েছে। তিনি বলেন, যে মুহুর্তে মহমারি প্রকট আকার ধারণ করছে সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রা চরম দূর্বিষহ হয়ে উঠছে। সর্বত্র মানুষ আতঙ্কিত। এহেন পরিস্থিতিতে আলেম উলামাদের অযথা হয়রানি নির্যাতন কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না। তিনি বলেন, দেশে মাদরাসা শিক্ষকসহ আলেম-উলামাদের গণহারে গ্রেফতারের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর ভাষা নেই। তিনি বলেন, পবিত্র রমাজানের শুরুতেই দেশের আলেম-উলামা ও মাদরাসা শিক্ষকদের গ্রেফতার করে রিমান্ডে নিয়ে নির্যাতন চালাচ্ছে। সরকারের এই আচরণ অত্যন্ত অমানবিক ও দুঃখজনক।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, গত কয়েক দিনে সারাদেশে শত শত নিরীহ আলেম-উলামা, মাদরাসা শিক্ষক ও ছাত্র গ্রেফতার করা হয়েছে। যেকোনো ইসলামবিরোধী ইস্যুতে ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে প্রতিবাদ করা দেশের আলেম-উলামাদের নৈতিক দায়িত্ব। তাদের এই নৈতিক দায়িত্ব পালনে বাধা দান ও তাদেরকে গ্রেফতার মেনে নেয়া যায় না। তিনি আলেম ও মাদরাসা শিক্ষকদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও হয়রানি বন্ধের দাবি জানিয়ে গ্রেফতারকৃতদের অবিলম্বে মুক্তির দাবি জানান।
পীর সাহেব চরমোনাই বলেন, দেশের কোন শ্রেণি ও পেশার মানুষই আজ নিরাপদ নয়। বাঁশখালীতে বকেয়া বেতন-ভাতা পরিশোধ এবং পবিত্র রমজানের ইফতার, সাহরি ও তারাবিহ ঠিক রেখে কর্মঘণ্টা নির্ধারণের দাবিতে আন্দোলন করছিলেন শ্রমিকরা। কেন এবং কোন পরিস্থিতিতে আন্দোলনরত শ্রমিকদের ওপর পুলিশের গুলি চালাতে হলো তা খতিয়ে দেখতে হবে। পবিত্র রমজানে এমন হতাহতের ঘটনা মেনে নেয়া যায় না।
পীর সাহেব চরমোনাই নিহতদের রূহের মাগফিরাত কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। তিনি বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় নিহত ও আহতদের যৌক্তিক ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। তিনি আহতদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার দাবি জানান।

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস : এদিকে, বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমীর শায়খুল হাদীস আল্লামা ইসমাঈল নূরপুরী, নায়েবে আমীর মাওলানা ইউসুফ আশরাফ, মাওলানা আফজালুর রহমান, মাওলানা রেজাউল করিম জালালী, মাওলানা খুরশিদ আলম কাসেমী, মাওলানা আলী উসমান, মুফতি সাঈদ নূর, মাওলানা আতাউল্লাহ আমীন, মাওলানা কোরবান আলী কাসেমী, মাওলানা আব্দুল আজীজ, মুফতি শরাফত হোসাইন আজ এক যুক্ত বিবৃতিতে হেফাজত নেতা মাওলানা মামুনুল হকসহ অন্যান্য গ্রেফতারকৃত আলেমদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, এভাবে রমজান মাসে আলেম-উলামা ও সাধারণ মানুষকে হয়রানি ও গ্রেফতার করে দেশে একটি অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হচ্ছে। নেতৃদ্বয় হয়রানি ও গ্রেফতার বন্ধ এবং আটকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান। অন্যথায় আলেম-উলামারা ঐক্যবদ্ধভাবে কঠোর কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবে।
নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, হয়রানি ও গ্রেফতার করে আলেম-উলামাদের আন্দোলনকে ঠেকানো যাবে না। দেশের জনগণ ইসলাম ও দেশের প্রয়োজনে জীবন দিতে প্রস্তুত।

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ : এদিকে, গ্রেফতারকৃত আলেমদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি জানিয়েছে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শায়খুল হাদিস মাওলানা মনসুরুল হাসান রায়পুরী ও মহাসচিব শায়খুল হাদিস মাওলানা ড. গোলাম মহিউদ্দিন ইকরাম।
নেতৃবৃন্দ এক বিবৃতিতে রমজানের পবিত্রতা রক্ষায় শান্তিপ্রিয় আলেম-উলামাদের হয়রানি ও গ্রেফতার বন্ধের আহ্বান জানান। নেতৃবৃন্দ বলেন, নিরপরাধ আলেম উলামাদের গ্রেফতার করে রিমান্ডে নির্যাতনের ঘটনা কেউ মেনে নিবে না।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
করিম ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ৭:১১ পিএম says : 0
সহমত
Total Reply(0)
শাহীদ আহমদ ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ৮:৩৫ পিএম says : 0
এটা মহান আল্লাহ তায়ালার তরফ থেকে মোমিন বান্দাদের উপর পরিক্ষা। ঘাবড়ানোর কিছু নেই।
Total Reply(0)
শাহীদ আহমদ ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ৮:৩৫ পিএম says : 0
এটা মহান আল্লাহ তায়ালার তরফ থেকে মোমিন বান্দাদের উপর পরিক্ষা। ঘাবড়ানোর কিছু নেই।
Total Reply(0)
Jack+Ali ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ৯:৪৮ পিএম says : 0
In Islam mulims are not to be oppressed by anybody.. O'Alem you are the inheritor of Rasul and your duty to rule the whole world by Qur'an but you people are divided in many group as such Taghut, Murtard ruler is arresting Alem, killing them. O'Alem don't you read the Qur'an regarding creating division In Islam???? Surah 3: Ayat: 105 “এবং তাদের মতো হয়ো না, যারা পরষ্পর বিছিন্ন হয়ে গেছে এবং যাদের মধ্যে মতবিরোধ হয়েছে, এরপর যে, সুস্পষ্ট নির্দশনাদি তাদের নিকট এসেছিলো । আর তাদের জন্য কঠিন শাস্তি অবধারিত” Surah: 6: Ayat: 159: “ যারা নিজেদের দিনকেই খণ্ড-খণ্ড করে বিভিন্ন দলে বিভক্ত হয়েছে তাদের সাথে আপনার [হে রসূল] কোন সম্পর্ক নেই”. রাসুল সাল্লালাহ সালাম বলেছেন ওহে অবশ্যই যারা তোমাদের পূর্বে ছিল তারা 72 দলে বিভক্ত ছিল এবং অবশ্যই আমার এই উম্মত 73 দলে বিভক্ত হবে ইহাদের সকল দোযখে যাবে একদল ব্যতীত সাহাবারা প্রশ্ন করলেন ইয়া রসুলাল্লাহ সেই দল কোনটি বললেন আমি ও আমার সাহাবীগণ যার উপর আছি তার উপর যারা থাকবে. [তিরমিজি ও আবু দাউদ রেওয়ায়েতে মেশকাত শরীফ 1 খন্ড হাদিস 163] স্পষ্ট নিদর্শন আল্লাহর কুরআন এবং স্পষ্ট নিদর্শন রাসুল সাঃ এর সহি হাদিসে বর্তমান থাকা সত্ত্বেও যারা বিভিন্ন দলে বিচ্ছিন্ন হয়ে মতান্তরে সৃষ্টি করেছে আল্লাহ তা'আলা তাদেরকে মহা শাস্তি দেবেন. আলেমরা সীমা অতিক্রম করে বিভিন্ন দলে দলে বিভক্ত হয়েছে তাই আল্লাহর আযাব ইহকালে আরম্ভ হয়ে গেছে বাংলাদেশের ধার্মিক রাজনৈতিক পারিবারিক ও প্রাকৃতিক অবস্থা দেখলে সহজে বোঝা যায় যে আমরা আল্লাহর গজব টেনে নিয়ে এসেছি. দেশে মহামারীর মত যিনা-ব্যভিচার খুন ধর্ষণ গুম খাদ্যে ভেজাল ওষুধের ভেজাল যানজট ঘুষ সুদ সরকার কর্তৃক জনগণের হাজার হাজার কোটি টাকা লুটপাট মিথ্যা মামলা সরকারের গুন্ডাবাহিনী প্রতিদিন কোটি কোটি টাকা চাঁদাবাজি করে, আরো কত যে হারাম কাজ করে তার লিস্ট করতে গেলে একটা বই হয়ে যাবে. কোরআন দিয়ে দেশ চালালে আল্লাহর রহমত নাযিল হয় তখন মানুষ হারাম কাজ করা থেকে বিরত থাকে এর জন্য দেশের মানুষ খুব সুখে শান্তিতে বসবাস করতে পারে.
Total Reply(0)
Jubayer Siraji ১৮ এপ্রিল, ২০২১, ১১:৩৩ পিএম says : 0
বসে থাকলে চলবে না।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন