ঢাকা, সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ০২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

মহামারি করোনা রোধে উন্নত বিশ্বের ভূমিকা জোরদারের আহ্বান: প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৬ এপ্রিল, ২০২১, ৪:৪১ পিএম

করোনা মহামারি থেকে দ্রুত পুনরুদ্ধারে উন্নত বিশ্ব ও উন্নয়ন অংশীদারদের ভূমিকা জোরদারের আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
গতকাল সোমবার এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের অর্থনৈতিক ও সামাজিক কমিশনের (এসকেপ) তিন দিনের ৭৭তম অধিবেশনে এ আহ্বান জানান তিনি। অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী চার দফা প্রস্তাব পেশ করেন। অধিবেশনে প্রচারিত ধারণ করা বিবৃতিতে একইসঙ্গে এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চল থেকে সার্বজনীন জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থায় অন্তর্ভুক্তিমূলক উন্নয়ন পন্থা, দক্ষ নীতি এবং কৌশল গ্রহণের আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। গতকাল এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে আঞ্চলিক সহযোগিতার মাধ্যমে সঙ্কট থেকে আরও ভালোভাবে উত্তোরণ’ শীর্ষক প্রতিপাদ্যের ওপর ৭৭তম অধিবেশন ভার্চ্যুয়াল পদ্ধতিতে শুরু হয়েছে।
শেখ হাসিনা তার বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত ১১ লাখ রোহিঙ্গাকে টেকসই প্রত্যাবাসনের দিকে মনোনিবেশ এবং যৌথ সমৃদ্ধির জন্য আঞ্চলিক সহযোগিতার প্রতি আহ্বান জানান। ৭৭তম অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী চার দফা প্রস্তাব পেশ করেন। তিনি তার প্রথম প্রস্তাবে বলেন, উন্নত বিশ্ব, উন্নয়ন অংশীদার এবং আন্তর্জাতিক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর (আইএফএস) কোভিড মহামারি থেকে দ্রুত পুনরুদ্ধারে এগিয়ে আসা উচিত। দ্বিতীয় প্রস্তাবে বলেন, উন্নয়ন পদ্ধতি হওয়া উচিত যেকোনো সঙ্কট থেকে আরও ভালোভাবে উত্তরণের জন্য আরও অন্তর্ভুক্তিমূলক, স্থিতিস্থাপক এবং পরিবেশ বান্ধব। তৃতীয় প্রস্তাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের উচিত একটি শক্তিশালী ও সার্বজনীন জনস্বাস্থ্য ব্যবস্থার জন্য দক্ষ নীতি ও কৌশল নেওয়া। তিনি তার চুতর্থ প্রস্তাবে বলেন, বাণিজ্য, পরিবহন, জ্বালানি ও আইসিটি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ক্ষেত্রে আমাদের নিরবচ্ছিন্ন যোগাযোগ স্থাপন করতে হবে।
এসময় রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে কথা বলার সময় প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করেন, মিয়ানমার থেকে ১১ লাখেরও বেশি বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাকে বাংলাদেশ আশ্রয় দিয়েছে। আমরা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে টেকসই প্রত্যাবাসনের মাধ্যমে একটি কার্যকর সমাধানের জন্য এ বিষয়ে মনোনিবেশ করার আহ্বান জানাচ্ছি।
শেখ হাসিনা বলেন, করোনা মহামারি সারা বিশ্বের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ও অর্থনীতিকে বিধ্বস্ত করেছে। প্রায় ২ দশমিক ৯৫ মিলিয়ন মানুষ মারা গেছেন এবং প্রতিদিন আরও হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছেন। মহামারি অনেক মানুষকে আরও দরিদ্র করে তুলেছে এবং আরও অনেকে দারিদ্র্যের দিকে নিয়ে যাচ্ছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২৬ এপ্রিল, ২০২১, ৫:৪৮ পিএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর আশ্রয় জীবন বাচানোর জন্যে বিশ্ব সম্প্রদায় আপনাকে বিশ্ব মানবতার মা নামের আন্তর্জাতিক মর্যাদাবান পুরুস্কার দিয়েছেন। বাংলাদেশ কে আপনাকেশান্তির পক্ষে লক্ষলক্ষ মানুষের জীবন বাচানোর জন‍্যে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় শান্তিতে নোবেলজয়ী করা উচিৎ ছিলো। ইনশাআল্লাহ শান্তির পক্ষে এই গুরুত্বপূর্ণ প্রাইজ একদিন আপনি পাবেন। আপনি শারীরিক সুস্থতার মাঝে নিরাপদে থাকুন। আল্লাহর দরবারে প্রার্থনা। আমিন আমিন।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন