ঢাকা, সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭ আষাঢ় ১৪২৮, ০৯ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ভ্যাকসিন প্রযুক্তি উন্মুক্ত করার পক্ষপাতী নন বিল গেটস

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৯ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ এএম

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রযুক্তির পেটেন্ট সুরক্ষা তুলে দেওয়ার বিরোধিতা করেছেন মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস। ভ্যাকসিন উৎপাদন ও বিতরণকে ব্যাপকভাবে উৎসাহিত করতে পুরো বিশ্বে এর প্রযুক্তি উন্মুক্ত করে দেওয়ার যে দাবি উঠেছে, তার সঙ্গে ভিন্নমত পোষণ করেন তিনি। বিল গেটসের মতে, উৎপাদনের ফর্মুলা উন্মুক্ত করে দিলে ভ্যাকসিনের নিরাপত্তা বিঘিœত হতে পারে। নিজের এমন মনোভাবের জন্য রবিবার সোশ্যাল জাস্টিস ক্যাম্পেইনারদের সমালোচনার মুখে পড়তে হয় বিল গেটসকে। অনেকেই ভাবছেন, তিনি সম্ভবত বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদের মালিকানা সুরক্ষার জায়গা থেকে এমন অবস্থান নিচ্ছেন। তবে বিল গেটস বলতে চাইছেন, ম‚লত উৎপাদন প্রক্রিয়ার নিরাপত্তা বা সুরক্ষার ওপর জোর দিতে চাইছেন তিনি। উন্মুক্ত প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে যেন যত্রতত্র মানহীন ভ্যাকসিন তৈরি না হয় তার ওপর গুরুত্ব আরোপ করতে চাইছেন। স্কাই নিউজের সাক্ষাৎকারে বিল গেটসের কাছে জানতে চাওয়া হয়, ভ্যাকসিন রেসিপি শেয়ার করে নেওয়াকে তিনি যথাযথ মনে করেন কিনা! চটজলদি উত্তরে তিনি বলেন, ‘না।’ কেন নয়, জানতে চাইলে বিল গেটস বলেন, পুরো দুনিয়াতে বহু ভ্যাকসিন ফ্যাক্টরি রয়েছে এবং টিকার সুরক্ষার বিষয়ে মানুষ খুবই সিরিয়াস। তার ভাষায়, ‘বিষয়টা বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পত্তির মামলা না। এমনও না যে দুনিয়ার সব ভ্যাকসিন ফ্যাক্টরিই আদর্শ মানের এবং তারা নিরাপদ ভ্যাকসিন তৈরি করে।’ বিল গেটস মনে করছেন, ভ্যাকসিনের মতো একটা গুরুত্বপ‚র্ণ স্বাস্থ্য ইস্যুতে সর্বোচ্চ নিরাপত্তার কথা ভাবতে হবে। সেজন্যই বিশ্বব্যাপী টিকার ফর্মুলা শেয়ার হওয়া উচিত না। ভারতের বৃহত্তম টিকা উৎপাদক প্রতিষ্ঠান সেরাম ইনস্টিটিউট অক্সফোর্ড ভ্যাকসিনের ম‚ল উৎপাদক প্রতিষ্ঠান অ্যাস্ট্রাজেনেকার সঙ্গে তাদের টিকা উৎপাদনের ব্যাপারে চুক্তি করেছে। এখন কোভিশিল্ড নামে এই টিকা বাজারজাত করছে সেরাম। গেটস বলেন, রেগুলেটরি অ্যাপ্রুভাল নিয়ে কোনও ভ্যাকসিন ফ্যাক্টরি বসে নেই। এর ফলে নিরাপদ উপায়ে টিকা তৈরি হচ্ছে। স্কাই নিউজ।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন