ঢাকা, বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ০৯ আষাঢ় ১৪২৮, ১১ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

দ্রুত নিষ্পন্ন করতে চায় দুদক

আহমদ আকবর সোবহানের দুই মামলা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৯ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০০ এএম

সুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান (শাহ আলম)র বিরুদ্ধে চলমান পৃথক ২টি মামলার বিচার দ্রুত সম্পন্ন করার চেষ্টা চালাচ্ছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল বুধবার এ তথ্য জানিয়েছেন সংস্থাটির আইনজীবী মো.খুরশীদ আলম খান। তিনি বলেন, আহমদ আকবর সোবহান ওরফে শাহ আলমের বিরুদ্ধে ১৮টি সরকারি বাড়ি বরাদ্দে দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগে পৃথক দু’টি মামলা চলছে। মামলা দু’টি এখন সাক্ষ্য গ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে।

মামলাগুলো দীর্ঘদিন ধরে চলছে।মাঝে এগুলো হাইকোর্টে এসেছিল। পরে সর্বোচ্চ আদালত আপিল বিভাগে যায়। মামলা দু’টির বিচারিক আদালতে সাক্ষ্য গ্রহণ চলছে। এছাড়াও আহমেদ আকবর সোবহান সাব্বির হত্যায় ঘুষের মামলা বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করেছিলেন। হাইকোর্ট আবেদনটি খারিজ করে দেন। সেটিও হাইকোর্টের নির্দেশনার পর বিচারিক আদালতে সাক্ষ্য গ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে।
মামলাগুলোর অগ্রগতি প্রসঙ্গে দুদক আইনজীবী বলেন, দুদক অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে এবং খুব গুরুত্ব দিয়ে ওইসব দুর্নীতির মামলাগুলো চলমান রেখেছে, বিচারিক আদালতে সাক্ষ্য গ্রহণ চলছে। লকডাউনের কারণে একটু সময় লাগছে। দুদক দ্রততার সাথে মামলাগুলো এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করছে।

প্রসঙ্গত: বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে রাজধানীর অভিজাত এলাকায় সরকারি ১৮টি পরিত্যক্ত বাড়ি সাজানো দরপ ডেকে অস্বাভাবিক কম দামে বিক্রির অভিযোগে ২০০৭ সালের মার্চে সাবেক মন্ত্রী মির্জা আব্বাসসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে মতিঝিল থানায় মামলা করে দুদক। মামলায় ওই বছরের ২০ সেপ্টেম্বর অভিযোগপত্র দেয়া হয়। এই মামলার অন্যতম আসামি আহমেদ আকবর সোবহান। বসুন্ধরা কমিউনিকেশন্সের কর্মকর্তা সাব্বির ২০০৬ সালের ৪ জুলাই গুলশানের একটি অ্যাপার্টমেন্টে খুন হন। ৫ জুলাই তার লাশ উদ্ধারের পর ঘটনাটিকে আত্মহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা করা হয়। কিন্তু ঘটনা প্রকাশ হয়ে গেলে তা ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টায় ২০ কোটি টাকা ঘুষ দেয়ার অভিযোগ ওঠে। পরে ২০০৭ সালে বসুন্ধরা চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর সোবহান, তার দুই ছেলে আনভীর ও সাদাত সায়েম , বসুন্ধরার সহযোগী প্রতিষ্ঠান ইস্টওয়েস্ট প্রপার্টিজ ডেভেলপমেন্টের পরিচালক আবু সুফিয়ানের বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক। সম্প্রতি আবু সুফিয়ান ইন্তেকাল করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন