ঢাকা, সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ০২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

মহানগর

দোকানপাট ও শপিংমলসমূহে ডিএনসিসি মেয়রের ঝটিকা অভিযান

৯০টি মামলায় প্রায় ১০ লক্ষ টাকা জরিমানাসহ একাধিক দোকান সিলগালা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ মে, ২০২১, ৯:১৩ পিএম

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দোকানপাট ও শপিংমলসমূহে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনে আজ থেকে শুরু হলো ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম এর ঝটিকা অভিযান, মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে ৯০টি মামলায় ৯ লক্ষ ৭৫ হাজার ৪৬০ টাকা জরিমানাসহ ৩টি দোকান সিলগালাও করে দেওয়া হলো।

আজ (বুধবার) বিকালে ডিএনসিসি মেয়র রাজধানীর গুলশান ও বনানী এলাকায় দোকানপাট ও শপিংমলসমূহে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে প্রতিপালন হচ্ছে কিনা তা সরেজমিনে পরিদর্শন করেন। এ সময় মেয়র বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দোকানপাট ও শপিংমলসমূহে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মানতে হবে, অন্যথায় কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থার সম্মুখীন হতে হবে।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে সরকারি নিষেধাজ্ঞা ও লকডাউন বাস্তবায়নে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হচ্ছে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে জনগণকে উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে।

আজ ডিএনসিসির বিভিন্ন অঞ্চলে কোভিড-১৯ এর বিস্তার রোধকল্পে সরকার ঘোষিত নিষেধাজ্ঞা অমান্য করা, লাইসেন্স ব্যতীত ও লাইসেন্সের শর্ত ভঙ্গ করে ব‍্যবসা করা, মাস্ক না পড়া এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে মোবাইল কোর্টে মোট ৯০ টি মামলায় সর্বমোট ৯ লক্ষ ৭৫ হাজার ৪৬০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

ডিএনসিসির ১ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জুলকার নায়ন, মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, পারসিয়া সুলতানা প্রিয়াংকা পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ১১টি মামলায় ৪০ হাজার ৬০০ টাকা, ২ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এ এস এম শফিউল আজম, রিফাত ফেরদৌস, মোঃ নাসির উদ্দিন মাহমুদ পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৯টি মামলায় ৫৬ হাজার টাকা, ৩ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল বাকী, মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ মিয়া, তাজওয়ার আকরাম সাকাপি ইবনে সাজ্জাদ পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ১০টি মামলায় ৮ লক্ষ ১১ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয় এবং তিনটি দোকান সিলগালা করে দেওয়া হয়। এছাড়াও ৪ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সালেহা বিনতে সিরাজ পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৩টি মামলায় ১০ হাজার টাকা, ৫ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাসুদ হোসেন পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৩৫টি মামলায় ১৪ হাজার ৪৬০ টাকা, ৬ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাজিয়া আফরিন পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৭টি মামলায় ৮ হাজার ৫০০ টাকা, ৭ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোতাকাব্বীর আহমেদ, মোঃ মিজানুর রহমান পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ৫টি মামলায় ২১ হাজার ৫০০ টাকা, ৮ নম্বর অঞ্চলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আবেদ আলী পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ১০টি মামলায় ১২ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এভাবে মোট ৯০টি মামলায় আদায়কৃত জরিমানার সর্বমোট পরিমাণ ৯ লক্ষ ৭৫ হাজার ৪৬০ টাকা।

এ সময় মাইকিং করে জনসচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করা হয়, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ করা হয় এবং সকলকে সরকারের নির্দেশনাসহ স্বাস্থ্য বিধিসমূহ যথাযথভাবে মেনে চলার পরামর্শ দেয়া হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন