ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ১২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

হলোনা আরেকটি ‘অল ইংলিশ’ ফাইনাল

হেরেও শিরোপা মঞ্চে ম্যানইউ, আর্সেনালকে বিদায় করে সঙ্গী ভিয়ারিয়াল

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ মে, ২০২১, ৩:৩২ এএম | আপডেট : ৩:৩৪ এএম, ৭ মে, ২০২১

 

প্রথম লেগে নিজেদের মাঠে ৬-২ গোলে জিতে ফাইনালে এক পা দিয়েই রেখেছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। এই স্বস্তি নিয়ে রোমার আঙিনায় আতিথ্য নিয়েছিল ইংলিশ দলটি। তবে উয়েফা ইউরোপা লিগের সেমি-ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে হেরেই বসেছে ওলে গুনার সুলশারের দল। স্তাদিও অলিম্পিকোয় ম্যাচটি ৩-২ গোলে হেরে গেছে অল রেডরা।

দুই দলের ৭ বারের সাক্ষাতে পাঁচবারই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে ইউনাইটেড। একবার জিতেছে রোমা, বাকি ম্যাচটি ড্র। এই স্বস্তি নিয়ে মাঠে নেমে শুরুতেই এডিনসন কাভানির গোলে এগিয়ে যায় মানইউ।

ছন্দ হারিয়ে ফেলা ইউনাইটেডকে চেপে ধরে তিন মিনিটের ব্যবধানে দুই গোল হজম করান এডেন জোকে আর ব্রায়ান ক্রিসটান্তে। ৬৮ মিনিটে ফের কাভানির সমতায় ফেরানোর গোল। তবে শেষ দিকে ব্যবধান বাড়ানোর চেষ্টায় দুর্বল রক্ষণের সুযোগে নিকোলা জালেভস্কির গোলে জয় পায় রোমা।

তবে তাতে বাধা হতে পারেনি ওল্ড ট্র্যাফোর্ডবাসীদের ফাইনালে যাওয়া। দুই লেগ মিলিয়ে ৮-৫ গোলের অগ্রগামীতায় শিরোপা লড়াই নিশ্চিত করেছে ইউনাইটেড।

একই রাতে ভাগ্য বদলায়নি প্রথম লেগে ভিয়ারিয়ালের মাঠ থেকে ২-১ গোলে হেরে আসা আর্সেনালের। সেদিনের মূল্যবান একটি অ্যাওয়ে গোলও বাঁচাতে পারেনি মিকেল আর্তেতার দলকে। ঘরের মাঠ এমিরেটস স্টেডিয়ামে মাচটি গোলশূন্য ড্র হলে সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নেয় গার্নাররা।

আর তাতে আরেকটি অল ইংলিশ ফাইনাল থেকে বঞ্চিত হলো ফুটবল বিশ্ব। গত বুধবার রাতে রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল নিশ্চিত করে চেলসি। তার আগের দিন পিএসজিকে বিদায় করে ইউরোপ সেরার শিরোপা মঞ্চে পা রাখে ম্যানচেস্টার সিটিও। ফাইনাল হবে ৩০ মে।

তার আগে আগামী ২৭ মে বাংলাদেশ সময় রাত ১টায় নিরপেক্ষ ভেন্যু পোল্যান্ডের স্তাদিওন গদানস্কে হবে এবারের ইউরোপার ফাইনাল। আর সেদিন সাড়ে ৯হাজার পর্যন্ত দর্শক প্রবেশের অনুমতি দেয়া হবে বলে আগেই ঘোষনা করেছে ইউরোপীয় ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা। এ বিষয়ে তারা স্থানীয় কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সবুজ সংকেতও পেয়ে গেছে।

উয়েফা জানায়, স্টেডিয়ামটির ধারণ ক্ষমতার ২৫ শতাংশ দর্শক মাঠে প্রবেশের অনুমতির বিষয়ে সম্মত হয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। গদানস্ক স্টেডিয়ামটির বর্তমান ধারণ ক্ষমতা ৪০ হাজার। উয়েফা বলেছে, ফাইনালে অংশগ্রহনকারী দলগুলো ২০০০ হাজার করে দর্শক টিকিট পাবে। সাধারণ দর্শকদের জন্য বরাদ্ধ থাকবে আরো ২০০০ টিকিট। অবশিষ্ট টিকিটগুলো বিলি করা হবে উয়েফার অন্যান্য ব্যবসায়িক অংশিদার, সম্প্রচারক ও জাতীয় এসোসিয়শনের মধ্যে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন