ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ১২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

করোনা মুক্তিতে ফল

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ মে, ২০২১, ১২:০১ এএম

করোনাবিধি মেনে চলা এবং একটি বিশেষ ফল খাওয়ার কারণে এখনও করোনাকে ঢুকতে দেয়নি তেলঙ্গানার ৩টি গ্রাম! সারা ভারত যখন হিমসিম খাচ্ছে আনুবীক্ষণিক এই পরজীবীকে রুখতে, সেখানে এক বছরেরও বেশি সময় ধরে তাদের নাগালই পাচ্ছে না কোভিড-১৯। এর নেপথ্যে নাকি রয়েছে ওই গ্রামগুলিতে লভ্য বিশেষ একটি ফল। গ্রামবাসীদের দাবি, এই ফলই তাদের করোনা থেকে বাঁচিয়ে চলেছে।

তেলঙ্গানার নির্মল জেলার অন্তর্গত আদিবাসী অধ্যুষিত ৩টি গ্রাম। পেন্টামারি, ইপ্পাচার্মি এবং লক্ষ্মীনগর। গ্রামবাসীদের দাবি, এই ৩ গ্রামে এখনও পর্যন্ত একটিও করোনা সংক্রমণের রিপোর্ট নেই। গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, ‘আম্বালি’ নামে একটি ফল তারা দিনে ৩ বার করে খান। অত্যন্ত পুষ্টিকর এই ফলই নাকি তাদের রক্ষা করে আসছে। আম্বালি একটি আঞ্চলিক ফল। অনেকটা তেঁতুলের মতো দেখতে ফলটি স্বাদেও টক।
গ্রামবাসীদের দাবি, দিনে ৩ বার করে এই ফল খাওয়ার পাশাপাশি করোনা বিধিগুলিও কড়া ভাবে অনুসরণ করেন তারা। কেউই গ্রামের বাইরে বার হন না। বাইরে থেকে গ্রামে কাউকে ঢুকতেও দেন না। সন্ধ্যা ৬টার পর বাড়ি থেকেও বার হন না, আর প্রয়োজনে বাইরে বার হলে হলুদ গোলা গরম জলে গোসল করে নিজেদের জীবাণুমুক্ত করে তবেই বাড়িতে প্রবেশ করেন। আর মুখে অবশ্যই বড় কাপড় জড়াতে ভোলেন না কেউ।

যদিও গ্রামবাসীদের করোনা না ছুঁতে পারার এই দাবিকে স্বীকৃতি দেয়নি প্রশাসন। একটি সংক্রমণ ধরা পড়েনি সারা দেশে এমন কোনও গ্রাম নেই বলেই জানানো হয়েছে সরকারি রিপোর্টে। তবে এই ৩টি গ্রাম তুলনায় করোনার প্রভাবমুক্ত বলে জানানো হয়েছে। করোনা সে ভাবে এই গ্রামগুলিতে থাবা না বসানোর অন্যতম কারণ হল বাসিন্দাদের জীবনপ্রণালী। গ্রামেই চাষ হওয়া পুষ্টিকর সব্জি, ফল খেয়ে জীবন কাটান তারা। যার জন্য তাঁদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেক বেশি। সূত্র : টাইমস নাউ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
তারেক আজিজ ৯ মে, ২০২১, ১:২১ এএম says : 0
ফলটল কিছুই না, বলেন আল্লাহ তায়ালা তাদের প্রতি দয়া করেছেন।
Total Reply(0)
হাদী উজ্জামান ৯ মে, ২০২১, ১:২২ এএম says : 0
েএই ফলটা আমাদের দেশে কোথাও হয় না।
Total Reply(1)
হেলাল ৯ মে, ২০২১, ৭:১৯ এএম says : 0
আমাদের দেশে এই ফলটা খই ফল বা খই বাবলা ফল নামে পরিচিত। গ্রামে এখনও পাওয়া যায়।
নূরুজ্জামান নূর ৯ মে, ২০২১, ১:২২ এএম says : 0
তেলাঙ্গানার মানুষ নিয়মকানুন মেনে চলার কারণে করোনা কম ছড়িয়েছে। তাছাড়া ফলটল কিছু না।
Total Reply(0)
হিমালয় হিমু ৯ মে, ২০২১, ১:২৩ এএম says : 0
মহান আল্লাহ আমাদের করোনা থকে মুক্তি দিন।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন