মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

হানিফ সংকেত-এর ঈদের নাটক সৎ-এর সত্য সমাচার

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১২ মে, ২০২১, ১২:০২ এএম

প্রতি ঈদের মত এবারও বরেণ্য নির্মাতা হানিফ সংকেত নির্মাণ করেছেন ঈদের নাটক। তার এবারের নাটকের নাম ‘সৎ-এর সত্য সমাচার’। প্রচার হবে ঈদের দিন রাত ০৮:১৫ মিনিটে এটিএন বাংলায়। হানিফ সংকেতের ঈদ নাটকের নামে যেমন ভিন্নতা থাকে, গল্পেও থাকে তেমনি আলাদা স্বাদ ও বৈচিত্র্য। পাশাপাশি থাকে একটি সামাজিক বক্তব্য। তাই তার নাটক দেখার জন্য দর্শকদের বাড়তি আকর্ষণ থাকে। গত ঈদে প্রচারিত নাটক ‘মনের মতি মনের গতি’ প্রচার হবার পর দর্শকদের অনুরোধে হানিফ সংকেত এবার একই পাত্র-পাত্রীদের নিয়ে নাটকটির সিকুয়েল তৈরি করেছেন। নাটকটিতে আমাদের সমাজের এক শ্রেণীর অসৎ মানুষের চরিত্র ফুটিয়ে তোলা হয়েছিলো, যারা অন্যের দুঃসময়কে পুঁজি করে নিজের লাভ খোঁজে। যাদের মতিগতি বোঝা কঠিন। তবে একসময় বিবেকের তাড়নায় এবং সৎসঙ্গের শুভ জ্যোতিতে এদের অনেকে ভালোও হয়ে যান। করোনার এই দুর্যোগে তেমনই একজন চেয়ারম্যান এবং তার উচ্চাভিলাষী স্ত্রী, পাশাপাশি চেয়ারম্যানের সরল-সোজা সৎ চরিত্রের ভাই ও তার স্ত্রী’র মাধ্যমে দুই পরিবারের মনের বিচিত্র মতিগতিকে তুলে ধরে গত বছর নির্মাণ করা হয়েছিলো নাটক ‘মনের মতি মনের গতি’। এবারের নাটকেও সেই একই চেয়ারম্যান ও তার পরিবারকে স্ব স্ব চরিত্রে দেখা যাবে। এবারও যথারীতি চেয়ারম্যানের চরিত্রে অভিনয় করেছেন চঞ্চল চৌধুরী, স্ত্রী’র চরিত্রে তারিন। ছোট ভাইয়ের চরিত্রে মীর সাব্বির, তার স্ত্রী’র চরিত্রে নাদিয়া। শ্যালকের চরিত্রে সাঈদ বাবু এবং গ্রামের একটি বিশেষ চরিত্রে অভিনয় করেছেন সুভাশিষ ভৌমিক। নাটকের সূচনা সঙ্গীতের কথা লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান, সুর করেছেন হানিফ সংকেত, সঙ্গীতায়োজন করেছেন মেহেদী। কণ্ঠ দিয়েছেন কমল।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Dadhack ১২ মে, ২০২১, ২:২১ পিএম says : 0
আল্লাহ সুবহানু ওয়া তা'আলা মানুষকে খেল তামাশার জন্য সৃষ্টি করেননি. যারা এই জীবনটাকে খেল-তামাশা হিসাবে গ্রহণ করেছে তাদেরকে আল্লাহ তা'আলা কুরআনে কঠিন হুঁশিয়ারি দিয়েছেন. [Surah: 21: Ayat:16: “এবং আমি ক্রীড়াচ্ছলে সৃষ্টি করি নি আসমান ও যমীনকে এবং যা কিছু উভয়ের মধ্যখানে আছে”] [Surah:6: Ayat:70: “যারা নিজেদের দীনকে খেল-তামাশার বস্তুতে পরিণত করেছে তুমি তাদেরকে বর্জন করে চলবে, পার্থিব জীবন যাদেরকে সম্মোহিত করে ধোকায় নিপতিত করেছে, কোরআন দ্বারা তাদেরকে উপদেশ দি`তে থাকো যাতে কোনো ব্যক্তি স্বীয় কাজ দোষে ধ্বংস হয়ে না যায়. আল্লাহ ছাড়া তার কোনো বন্ধু সাহায্যকারী সুপারিশকারী থাকবেনা, আর যেন এই অবস্থার সম্মুখীন না হয় যে দুনিয়ার সমস্ত কিছুর বিনিময়ে দিয়েও মুক্তি পেতে চাইলে সে বিনিময় গ্রহণ করা হবে না. তারা এমনই লোক যারা নিজেদের কর্মদোষে আটকা পড়ে গেছে তাদের কুফরী করার কারণে তাদের জন্য ফুটন্ত গরম পানীয় এবং যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি রয়েছে”] সিনেমা নাটক গান-বাজনা এগুলির বেহায়াপনা অশ্লীলতা যিনা-ব্যভিচার ছড়ায় এর কারণে মানুষ অবৈধ সম্পর্ক করে যেনা ব্যভিচার করে, পরকীয়া করে, আর এর প্রভাব পড়ে পারিবারিক জীবনে, সামাজিক জীবনে ও রাষ্ট্রীয় জীবনে, সমাজ পরিবার ও রাষ্ট্র সবকিছু ধ্বংস হয়ে যায়, সেখানে কোন সুখ শান্তি থাকে না আল্লাহ মোমেন পুরুষ ও নারীর দৃষ্টি নত ও লজ্জাস্থান হেফাজত করতে বলেছেন, তাহলে কেমন করে একটা নারী পর পুরুষের দিকে তাকিয়ে সিনেমা-নাটক দেখতে পারে ,পুরুষ ও কেমন করে একটা নারীর দিকে তাকিয়ে থাকে. গান-বাজনা ও হারাম করেছেন তাহলে কেমন করে পুরুষ ও মহিলারা গান-বাজনা শুনে. নাচানাচি আল্লাহ হারাম করেছে, তাহলে কেমন করে পুরুষ ও নারী এইসব জঘন্য অঙ্গ ভঙ্গিমায় অশ্লীল নাচ দেখে. যারা ঈমানদারদের মধ্যে লজ্জাজনক বিষয় প্রচার করে সূরা: ২৪:Ayat:১৯: “নিশ্চয় যারা যারা ঈমানদারদের মধ্যে লজ্জাজনক বিষয় প্রচার ও অশ্লীলতা ছড়িয়ে দিতে পছন্দ করে তাদের জন্য রয়েছে দুনিয়া ও আখেরাতে এক বেদনাদায়ক আযাবের শাস্তি। আল্লাহ জানেন, কিন্তু তোমরা জান না।” (সূরা:7: Ayat: 33) "তাদেরকে বলুন:" আমার পালনকর্তা কেবল প্রকাশ্য বা গোপনীয়, অশ্লীল কাজ নিষিদ্ধ করেছেন" (সূরা:6: Ayat:151) "তাদেরকে বলুন (হে মুহাম্মদ!) 'এমনকি লজ্জাজনক বিষয়গুলির ধারে কাছেও যেয়ো না – এগুলি প্রকাশ্য বা গোপনীয় হোক" সূরা:24:Ayat21: "কুরআনের বিভিন্ন স্থানে আল্লাহ আমাদের শয়তানের পদক্ষেপ অনুসরণ না করার জন্য সতর্ক করেছেন:" শয়তান মানুষকে লজ্জাজনক কাজের জন্য উত্সাহিত করে এবং সর্বজনীনভাবে গৃহীত ভুল কাজ করতে উত্সাহিত করে(আল-মুনকার)" Surah:7:Ayat:28 ”আর যখন তারা কোনো অশ্লীল কাজ করে তখন বলে আমরা এতে আমাদের পূর্বপুরুষদেরকে পেয়েছি এবং আল্লাহ আমাদেরকে এর নির্দেশ দিয়েছেন, বল নিশ্চয়ই আল্লাহ অশ্লীল কাজের নির্দেশ দেন না তোমরা কি আল্লাহর ব্যাপারে এমন কিছু বলছ যা তোমরা জানো না” Surah:17:Ayat:32: “তোমরা অবৈধ যৌন সংযোগ এর ধারে-কাছে যেও না ওটা অশ্লীল ও নিকৃষ্ট আচরণ” সূরা: ২৪:Ayat২১: "কুরআনের বিভিন্ন স্থানে আল্লাহ আমাদের শয়তানের পদক্ষেপ অনুসরণ না করার জন্য সতর্ক করেছেন:" শয়তান মানুষকে লজ্জাজনক কাজের জন্য উত্সাহিত করে এবং সর্বজনীনভাবে গৃহীত ভুল কাজ করতে উত্সাহিত করে(আল-মুনকার)" Surah:7:Ayat:28 ”আর যখন তারা কোনো অশ্লীল কাজ করে তখন বলে আমরা এতে আমাদের পূর্বপুরুষদেরকে পেয়েছি এবং আল্লাহ আমাদেরকে এর নির্দেশ দিয়েছেন, বল নিশ্চয়ই আল্লাহ অশ্লীল কাজের নির্দেশ দেন না তোমরা কি আল্লাহর ব্যাপারে এমন কিছু বলছ যা তোমরা জানো না” Surah:17:Ayat:32: “তোমরা অবৈধ যৌন সংযোগ এর ধারে-কাছে যেও না ওটা অশ্লীল ও নিকৃষ্ট আচরণ”
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন