ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ১২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

দেশেই টিকা উৎপাদন, সময় লাগবে কয়েক মাস : প্রধানমন্ত্রী

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৩ মে, ২০২১, ১০:৩৫ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশেই যাতে টিকা উৎপাদন করতে পারি সে ব্যবস্থা আমরা নিয়েছি। নিজেদের টিকা তৈরিতে কয়েক মাস সময় লাগবে। আমরা দেশের সব নাগরিককে টিকার আওতায় নিয়ে আসব, ইনশাআল্লাহ। বৃহস্পতিবার (১৩ মে) সন্ধ্যায় ঈদুল ফিতর উপলক্ষে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে তিনি এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, সবচেয়ে কার্যকর এবং পরীক্ষিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা দিয়েই আমরা গণটিকাকরণ কার্যক্রম শুরু করেছি। আপনারা জেনেছেন, ভারতীয় কর্তৃপক্ষ টিকা রফতানির ওপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। ফলে সরবরাহ ব্যবস্থায় কিছুটা সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা বিকল্প উৎস থেকে টিকা সংগ্রহের উদ্যোগ নিয়েছি। এরইমধ্যে রাশিয়া এবং চীনের টিকা উৎপাদনকারী সংস্থার সঙ্গে আমাদের আলোচনা চলছে। আমরা উপহার হিসেবে চীনের কাছ থেকে টিকা পেয়েছি। টিকা পাওয়ার জন্য আমেরিকার কাছেও অনুরোধ জানিয়েছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্ব টিকাকরণ সংস্থা কোভ্যাক্সের কাছ থেকেও আমরা উল্লেখযোগ্য পরিমাণ টিকা পাব। বিভিন্ন উৎস থেকে আমরা এক কোটি টিকা কেনার ব্যবস্থা নিয়েছি। খুব শিগগিরই দেশে টিকা আসতে শুরু করবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আসুন, আমরা সবাই যে যেখানে আছি সেখান থেকেই ঈদের আনন্দ উপভোগ করি। বিত্তবান যারা আছেন বা যাদের সামর্থ্য আছে, তাদের প্রতি অনুরোধ, এই দুঃসময়ে আপনার দরিদ্র প্রতিবেশী, গ্রামবাসী বা এলাকাবাসীর পাশে দাঁড়ান। তাদের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন।

তিনি বলেন, আপনার সাহায্য হয়তো একটি পরিবারের সদস্যদের মুখে হাসি ফোটাবে। দেখবেন তাদের হাসিমুখ আপনার হৃদয়-মনকেও পরিপূর্ণ করে তুলবে ঈদের আনন্দে। মানুষ হিসেবে মানুষের পাশে দাঁড়ানোই সবচেয়ে বড় কর্তব্য। আমরা যেন এই কর্তব্যকর্ম ভুলে না যাই।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডাক্তার, নার্স, অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীসহ কয়েকটি পেশার কর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সামনে থেকে কোভিড-১৯ রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। আবার আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী ও সশস্ত্রবাহিনীর সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ও মাঠ প্রশাসনের কর্মকর্তারা লকডাউন বা চলাচলের বিধিনিষেধ বলবৎ করতে মাঠে সক্রিয় ভূমিকা পালন করছেন। ত্রাণসামগ্রী বিতরণসহ সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছেন। সংবাদকর্মীরা সংক্রমণের ঝুঁকি উপেক্ষা করে সংবাদ পরিবেশনের কাজ করে যাচ্ছেন। সবাইকে আমি আন্তরিক ধন্যবাদ এবং শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হয়ে বহু স্বাস্থ্যকর্মী, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য এবং বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারী প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া গত এক বছরে আমরা আমাদের অনেক প্রিয়জনকে হারিয়েছি। আমি সবার রুহের মাগফিরাত ও আত্মার শান্তি কামনা করছি। শোক-সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

শেখ হাসিনা বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে আমরা যেমন সর্বাত্মক ব্যবস্থা নিয়েছি, তেমনি আক্রান্তদের চিকিৎসায় সর্বোচ্চ উদ্যোগ নিয়েছি। এরইমধ্যে আমরা চিকিৎসা সক্ষমতা অনেকগুণ বাড়িয়েছি। সরকারি হাসপাতালের পাশাপাশি বেসরকারি খাতের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক হাসপাতালকেও আমরা করোনাভাইরাস চিকিৎসায় সম্পৃক্ত করেছি।

তিনি বলেন, গত মাসে মহাখালীর ডিএনসিসি মার্কেটে দুই হাজার শয্যার কোভিড-১৯ হাসপাতাল স্থাপন করা হয়েছে। গত বছর মহামারি শুরু হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত ছয় হাজার ১৬৬ জন ডাক্তার, পাঁচ হাজার ৫৪ জন নার্স এবং প্রায় সাড়ে চার হাজার অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। জেলা হাসপাতালগুলোসহ দেশের ১৩০টি সরকারি হাসপাতালে কেন্দ্রীয়ভাবে অক্সিজেন সরবরাহ ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাস প্রতিরোধে নাগরিক হিসেবে আমাদের দায়িত্ব সবচেয়ে বেশি। এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে মাস্কের ব্যবহার অত্যন্ত ফলপ্রসূ বলে প্রমাণিত হয়েছে। কাজেই বাইরে গেলে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করবেন। পাশাপাশি যথাসম্ভব ঘনঘন সাবান-পানি দিয়ে হাত পরিষ্কার করে নিন অথবা স্যানিটাইজার দিয়ে হাত জীবাণুমুক্ত করুন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। সেই সঙ্গে আপনারা নিজেরা গরম পানির ভাপ নিতে পারেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (13)
Iftekhar Zaman ১৩ মে, ২০২১, ১১:৫৫ পিএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, চাইনিজ এবং রাশিয়ান টিকাতে আবাসিক হলের শিক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার নিশ্চিত করুন, অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দিন। আপনার দিকেই তাকিয়ে আছে জাতির ভবিষ্যত।
Total Reply(0)
হাদী উজ্জামান ১৩ মে, ২০২১, ১১:৫৪ পিএম says : 0
কয়েক মাসে পেলেও হবে। অন্যদের দিতে না চেয়ে থেকে দেশে উৎপাদনের ব্যবস্থা করলে সংখট কেটে যাবে।
Total Reply(0)
Jeffry Jeff ১৩ মে, ২০২১, ১১:৫৬ পিএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে জানতে চাই আমরা যারা ভারতের সেরাম উৎপাদিত টিকার ১ম ডোজ নিয়েছি তারা সকলেই কি ২য় ডোজ পাবার নিশ্চয়তা কতটুকু ?যদি ২য় ডোজ দেয়া না যায় তবে শুধু ভারত নির্ভরশীল হয়ে যাদের স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে ফেলেছেন তার দায় কে নিবে?
Total Reply(0)
তোফাজ্জল হোসেন ১৩ মে, ২০২১, ১১:৫১ পিএম says : 0
খুবই ভালো পদক্ষেপ। আরও আগে এই উদ্যোগ নিতে হতো।
Total Reply(0)
Dr. Jaforullah Chowdhury ১৩ মে, ২০২১, ১১:৪৩ পিএম says : 0
আমাদের উদ্যেগই পারে টিকে তৈরী করতে
Total Reply(0)
Sirajul Islam Khokon ১৩ মে, ২০২১, ১১:৪৪ পিএম says : 0
যদি গ্লোব বায়োটেকের টিকার অনুমোদন দিতো।তাহলে আজ এই দিন দেখতে হতোনা ।আমরা কি আজব দেশে থাকি।
Total Reply(0)
Md Asmaul ১৩ মে, ২০২১, ১১:৪৭ পিএম says : 0
ভালো, এই কাজ টা আরো আগেই করা দরকার ছিল শুধু ভারত, চীন ও রাশিয়ার দিকে তাকিয়ে না থেকে
Total Reply(0)
Abdul Basir ১৩ মে, ২০২১, ১১:৪৮ পিএম says : 0
কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার করে যত দ্রুত সম্ভব ভারতের কাছ থেকে জনগণের টাকা ফিরিয়ে আনা দরকার।
Total Reply(0)
Abul Hossain Atik ১৩ মে, ২০২১, ১১:৪৮ পিএম says : 0
দেশের সাধারণ জনগণ প্রথম থেকে এটাই বলে আসছিলো। কিন্তুু জাতির দুর্ভাগ্য জনগণের কথার মূল্য দেয়ার মতো নেতা নাই।
Total Reply(0)
মিরাজ আলী ১৩ মে, ২০২১, ১১:৪৯ পিএম says : 0
ভারত ঠিকা দিতে পারবেনা ঠিক আছে, এখন বাংলাদেশর উচিত ভারতকে জরিমানা করে claim করা, আর দেশেই টিকা তৈরি করা।
Total Reply(0)
কুদ্দুস তালুকদার ১৩ মে, ২০২১, ১১:৫২ পিএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ এই ধরনের উদ্যোগ নেয়ায়। আমরা দেশীয় টিকার বিষয়ে আশাবাদি।
Total Reply(0)
Ittaza Hasan Chowdhury ১৩ মে, ২০২১, ১১:৫৭ পিএম says : 0
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দয়া করে দ্রুত টিকার ব্যবস্থা করুন, এই সংক্রান্ত কোনো সুখবর থাকলে সেটাই প্রথম দিবেন অন্যথায় সকল কথা অনর্থক হয়ে যাবে।
Total Reply(0)
Tipu ১৪ মে, ২০২১, ৯:৪৬ এএম says : 0
কথিত কোভিড ১৯ নিয়ে সারা পৃথিবীতে যে তামাশা শুরু হয়েছে তার থেকে লক্ষ কোটি গুণ বেশি ক্ষতিকর বিষাক্ত বিষ হচ্ছে যত সব বড় বড় মিথ্যুক ভন্ড প্রতারক জালেম শ্রেণীর মানুষের রূপ ধারী অমানুষরা - বিভিন্ন ধরনের ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠান, যারা বিভিন্নভাবে নিজেদের লোভ স্বার্থ অহংকার অমানবিক মন মানসিকতার জন্য লক্ষ লক্ষ কোটি কোটি মানুষকে বিভিন্নভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে, সুতরাং এই নাটকে অংশগ্রহণ না করে সমাজ এবং দেশ থেকে মিথ্যুক ভন্ড প্রতারক জালেম শ্রেণীর মানুষের রূপ ধারী অমানুষদের নির্মূল করার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করুন, যদি তা করতে সক্ষম হন তাহলে সমাজ এবং দেশ উপকৃত হবে। ....
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন