ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ০৮ আষাঢ় ১৪২৮, ১০ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

তুরস্ক চুপ থাকবে না : এরদোগান

বাইডেনের ফোনেই বেপরোয়া নেতানিয়াহু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০২১, ১২:০০ এএম

গাজায় ইসরাইলের টানা হামলা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান। তিনি বলেন, ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলি নিপীড়নের বিষয়টি সারা বিশ্ব এড়িয়ে গেলেও তুরস্ক চুপ থাকবে না। এক অনলাইন ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন তিনি। এর আগে গাজায় ইসরাইলি বিমান হামলা নিয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে শান্তিপ‚র্ণ রেজ্যুলেশনের মাধ্যমে সমাধানের আহবান জানিয়েছেন তিনি। এরদোগান বলেন, ফিলিস্তিনিদের ওপর ইসরাইলের হামলার ঘটনায় আমি ভারাক্রান্ত ও ক্ষুব্ধ। ফিলিস্তিনের শহরগুলোতে ইসরাইলের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ও মানবতার সম্মান রক্ষার জন্য জেরুজালেমের পাশে দাঁড়ানো কর্তব্য। যারা চুপ করে থেকে অথবা প্রকাশ্যে ইসরাইলের রক্তপাতকে সমর্থন করে, জেনে রাখা উচিত এক দিন তাদের ফিরতে হবে। জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিলের কর্তব্য জেরুজালেমে শান্তি ফিরিয়ে আনার বিষয়টি নিশ্চিত করা। খবরে বলা হয়, গাজায় ইসরাইলের সা¤প্রতিক তান্ডব শুরুর পর অন্তত দুই দফায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে কথা বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। শনিবারও ফোনে কথা হয়েছে তাদের। হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীকে বাইডেন বলেছেন, গাজা থেকে হামাস ও অন্যান্য সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর রকেট হামলা ঠেকাতে ইসরাইলের আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে। তাদের এই অধিকারের প্রতি ওয়াশিংটনের সমর্থন অব্যাহত থাকবে। বাইডেনের সঙ্গে এই ফোনালাপের পর বেপরোয়া হয়ে উঠেন নেতানিয়াহু। তিনি বলেন, গাজায় ইসরইলি হামলা অব্যাহত থাকবে। তিনি বলেন, আমাদের উদ্দেশ্য হামাসকে এমন বার্তা পাঠানো যে, পরের বার তারা চাইলেও আর রকেট হামলা চালাতে পারবে না। সেই সক্ষমতা তাদের থাকবে না। এদিকে গাজায় ইসরইলি তান্ডবের ধারাবাহিকতায় গাজায় আল জাজিরার অফিস ভবন গুঁড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে সমালোচনার মুখে পড়েছে ইসরইল। ১২ তলা বিশিষ্ট ওই ভবনটিতে মার্কিন সংবাদমাধ্যম অ্যাসোসিয়েট প্রেস (এপি)-রও ব্যুরো কার্যালয় ছিল। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের কার্যালয় ছাড়াও আবাসিক কাজেও ব্যবহৃত হতো ভবনটি। শনিবার বিমান হামলা চালিয়ে ভবনটি পুরোপুরি গুঁড়িয়ে দিয়েছে ইসরাইলি বাহিনী। জো বাইডেনের সঙ্গে ফোনালাপে আল জালা নামের ওই ভবনটিতে হামলা নিয়েও কথা বলেন নেতানিয়াহু। তিনি বলেন, হামাসের সঙ্গে যুক্ত নয় এমন ব্যক্তিদের আগেই সেখান থেকে বের করে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছে ইসরাইল। এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর শনিবার প্রথমবারের মতো ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসের সাথে ফোনে কথা বলেছেন বাইডেন। ফোনালাপে গাজা থেকে ইসরাইলকে লক্ষ্য করে হামাসের রকেট হামলা থামানোর আহŸান জানিয়েছেন তিনি। যে গাজা উপত্যকায় ইসরইল ধ্বংসযজ্ঞ চালাচ্ছে, যেখানে নারী ও শিশুসহ দেড় শতাধিক মানুষকে তারা হত্যা করেছে, ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে হাজার হাজার মানুষ সেই গাজার শাসক দল হামাসের কোনও প্রতিনিধির সঙ্গে কথা বলেননি বাইডেন। ফলে আব্বাসের তার ফোনালাপ কোনও কাজে আসবে না বলেই প্রতীয়মান হচ্ছে। তবে এই দুই ফোনালাপের মাধ্যমে ইসরইলি ধ্বংসযজ্ঞের প্রতি মার্কিন সমর্থন স্পষ্ট করলেন তিনি। এর আগে গত বুধবারও ইসরাইলের আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে বলে মন্তব্য করেছিলেন বাইডেন। তিনি বলেন, ইসরাইলের দিকে যখন হাজার হাজার রকেট ছুঁড়ে যায় তখন তাদেরও আত্মরক্ষার অধিকার রয়েছে। বিবিসি, সিএনবিসি, রয়টার্স।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
Asraful Haque ১৭ মে, ২০২১, ১:৩৯ এএম says : 0
Razzab tayep Erdogan my dear Muslim hero assalam walikum warahma tullahi wabarakotuh
Total Reply(0)
Nil Akash Nil Akash ১৭ মে, ২০২১, ১:৩৯ এএম says : 0
সারা বিশ্বের মুসলিম দেশ থেকে হামাসের জন্য সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করতে হবে
Total Reply(0)
Aminul Islam ১৭ মে, ২০২১, ১:৩৯ এএম says : 0
ইরান তুরস্ক লেবানন ইরাক হামাস মিলে ইসরায়েলকে পৃথিবীর মানচিত্র থেকে মুছে ফেলা হোক।
Total Reply(0)
Talha Sarkar ১৭ মে, ২০২১, ১:৩৯ এএম says : 0
মুখে বাঘের গর্জন অন্তরে মিউমিউ,,,
Total Reply(0)
কামরুল ইসলাম ১৭ মে, ২০২১, ১:৪০ এএম says : 0
ইসরাইল হয়েছে এই পৃথিবীতে ক্যান্সারের মতন। ইসরাইল কে এই পৃথিবী থেকে নিচ্ছিন্ন করে দিতে হবে।
Total Reply(0)
Bokul Ray ১৭ মে, ২০২১, ১:৪০ এএম says : 0
ইজরাইল অনেক শক্তিশালী দেশ কি করবেন-- সব নিরবে সহ্য করে নিতে হচ্ছে
Total Reply(0)
MD Sahin Matubber ১৭ মে, ২০২১, ১:৪০ এএম says : 0
সময় খুব কম অপারেশন এখন ই শুরু করেন...
Total Reply(0)
Nisar Ahmed ২১ মে, ২০২১, ১২:৪০ পিএম says : 0
প্রিয় মানব, ইস্রায়েল কাপুরুষ, কারণ তারা অস্ত্র, বিমান হামলা, সশস্ত্র বাহিনী ও ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করছে, ইউএনএকে ইসরাইলির মতো হামাসকে অস্ত্র সরবরাহ করা উচিত তবে কাপুরুষ ইস্রায়েলি হামাস শক্তি অনুভব করবে. ইউএনএ কখনই তা করবে না। সমস্ত শক্তি পূর্ণ দেশ ইস্রায়েলীয় পক্ষে.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন