ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ১২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

সাতক্ষীরা বারের সাবেক সভাপতির ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন

ডিজিটাল আইনে মামলা

সাতক্ষীরা জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ মে, ২০২১, ১২:০১ এএম

সাতক্ষীরা বারের সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট এম শাহ আলমকে জিঙ্গাসাবাদের জন্য আদালতে রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ। গতকাল সোমবার সকালে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক বিশ্বজিৎ কুমার। ভার্চুয়াল আদালতের বিচারক সাতক্ষীরা সিনিয়র চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. হুমায়ুন কবীর আগামী বৃহস্পতিবার রিমান্ড শুনানীর দিন ধার্য্য করেছেন বলে জানিয়েছেন জজ কোর্টের পিপি এডভোকেট আব্দুল লতিফ।

পিপি আরো জানান, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আদালতে রিমান্ড আবেদন করায় আসামি পক্ষের জামিন আবেদনের শুনানি হয়নি। নিয়মানুযায়ী আগে রিমান্ড শুনানি করতে হবে। পরে জামিন শুনানী। যে কারণে ডিজিটাল নিারপত্তা আইনের মামলায় গ্রেফতারকৃত অ্যাডভোকেট এম শাহ আলমকে আরো কয়েকেদিন কারাগারেই থাকতে হচ্ছে।

এদিকে, এম শাহ আলমের পক্ষে-বিপক্ষে সোমবার সকালে আদালত চত্বরে মানববন্ধন হয়েছে। জেলা বারের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইউনুচ আলীর নেতৃত্বে শাহ আলমের মুক্তির দাবি জানানো হয়। আর শাহ আলমের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে সাতক্ষীরা জেলা আইনজীবি ঐক্য পরিষদের আহবায়ক অ্যাডভোকেট স ম সালাউদ্দিন, পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুল লতিফ, জিপি শম্ভুনাথ সিং, অ্যাডভোকেট মিজানুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

উল্লেখ্য, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় সদর থানা পুলিশ গত রোববার বেলা আড়াইটার দিকে শহরের সবুজবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে শাহ আলমকে। বিকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়।

সাতক্ষীরা সদর থানায় শাহ আলমের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দুটি মামলা রয়েছে। একটি মামলার বাদী জজকোর্টের বর্তমান পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুল লতিফ। আরেকটি মামলার বাদী শিক্ষানবিশ আইনজীবী মো. লিয়াকত আলী। এছাড়া, সাতক্ষীরা দ্রুত বিচার আইনে তার বিরুদ্ধে আরো তিনটি মামলা রয়েছে। এই মামলাগুলো পিবিআই তদন্ত করছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন