ঢাকা, সোমবার, ১৪ জুন ২০২১, ৩১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮, ০২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়ে সরকার চিন্তিত

সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০২১, ১২:০২ এএম

করোনাভাইরাসের টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিয়ে সরকার চিন্তিত বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। গতকাল সোমবার দুপুরে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, টিকার দ্বিতীয় ডোজের বিষয়ে আমরা চেষ্টা করছি। ভারতের অ্যাম্বাসেডরের সাথে কথা বলেছি। ইউকের (যুক্তরাজ্য) সাথে কথা বলেছি। প্রধানমন্ত্রীও এ বিষয়ে চেষ্টা করছেন। সেকেন্ড ডোজটা যাতে আমরা দিতে পারি। ভ্যাকসিনের আমরা আমরা বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছি। তিনি বলেন, আমরা রাশিয়া, চীন, ইউকে, যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশের সাথে কথা বলেছি ভ্যাকসিনের জন্য। অনেক জায়গায় অগ্রগতিও হয়েছে। সামনে হয়তো আমরা ভালো খবর দিতে পারব। তবে দুঃখজনক হলেও সত্যি, ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নিয়ে আমরাও চিন্তিত আপানারও চিন্তিত। দ্বিতীয় ডোজ আর কতদিন দেয়ার সক্ষমতা আছে, জানতে চাইলে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আর হয়তো ৭ থেকে ১০ দিন পর্যন্ত দ্বিতীয় ডোজ দেয়া সম্ভব হবে। শিগগিরই ভ্যাকসিন আসবে। আমরা যতো তাড়াতাড়ি পারি আনার চেষ্টা করব। চীন, রাশিয়া, ইউকে ও যুক্তরাষ্ট্রের সাথে কথা বলেছি। দুইটা পেলে দুইটা দিয়েই কাজ চালাবো। বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ে যাতে কোনো কাজ আটকে না যায় সেদিকে নজর রাখছি।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে আগামী ২৫ মে থেকে দেশে চীনের টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া শুরু হবে বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এ সময় তিনি করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে দূরপাল্লার বাস, ট্রেন, লঞ্চ আরও বন্ধ রাখা দরকার বলে জানান। দেশে করোনার ভ্যাকসিন উৎপাদন প্রসঙ্গে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, যেকোনো ভ্যাকসিন তৈরি করতে হলে ওষুধ প্রশাসনের আবেদন লাগে। আবেদন করার পর তা যাচাই-বাছাই করা হবে। তবে আমাদের সিদ্ধান্ত ক্রয় করব, প্রয়োজনে উৎপাদন করব। যাদের উৎপাদনের সক্ষমতা আছে তাদের এগিয়ে আসতে হবে। প্রথমে তাদের আবেদন দেখে আমাদের কাছে আসতে হবে। তারপর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। সেরকম কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে। আমাদের কাছে প্রতিবেদন আসলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, টিকা ক্রয় করার চেষ্টা থাকবে, তাহলে তাড়াতাড়ি হবে। টিকা তৈরি করলে দীর্ঘসময় লাগবে। উৎপাদন করলেও পাঁচ-ছয় মাসের আগে করা সম্ভব না।

সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব লোকমান হোসেন মিয়া ও স্বাস্থ্যশিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব মো. আলী নূর উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন