ঢাকা, সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭ আষাঢ় ১৪২৮, ০৯ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ফিলিস্তিনে ইসরাইলি নৃশংসতা অব্যাহত

যুক্তরাষ্ট্রের অনীহায় জাতিসংঘ বৈঠক নিষ্ফল : নিহত দুই শতাধিক বর্বর হামলা চালাচ্ছে ইসরাইল : ওআইসি

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০২১, ১২:০২ এএম

ফিলিস্তিনের গাজায় ইসরাইলের অব্যাহত নৃশংসতার মধ্যে জাতিসংঘের ১৫ সদস্যের নিরাপত্তা কাউন্সিল বৈঠকে বসলেও আনুষ্ঠানিক কোনো বিবৃতিতে সম্মত হতে পারেনি। বৈঠকের পর কেউ এ নিয়ে মুখ খোলেনি। বিবিসি বলছে, ইসরাইলের ঘনিষ্ঠ মিত্র যুক্তরাষ্ট্র এগিয়ে আসেনি। কারণ তারা মনে করছে যে, এটি দুই দেশের কূটনৈতিক প্রক্রিয়াকে প্রভাবিত করতে পারে। রোববারের বৈঠকে মার্কিন রাষ্ট্রদূত লিন্ডা থমাস-গ্রিনফিল্ড বলেন, ‘সব পক্ষ যদি অস্ত্রবিরতি চায়’ তাহলে তাতে সমর্থনে প্রস্তুত রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এছাড়া সঙ্ঘাত নিরসনে তারা নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের উত্তেজনার বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রকে তার অবস্থান ‘ঠিক করে নেওয়ার (অ্যাডজাস্ট)’ আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের বাধার কারণে ফিলিস্তিন ইস্যুতে নিরাপত্তা পরিষদ একসুরে কথা বলতে পারছে না। ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল-মালিকি একটি শরণার্থী শিবিরে ইসরাইলের শনিবারের হামলায় একই পরিবারের ১০ সদস্য নিহত হওয়া এবং ৫ মাস বয়সী একটি মাত্র শিশুর বেঁচে যাওয়ার ঘটনা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ‘ইসরাইল সবসময় আমাদের বলে যে, আমরা যাতে তাদের জুতোয় পা রেখে দেখি, কিন্তু তারা তো কোনো জুতো পরেনি, তারা মিলিটারি বুট পরে রেখেছে।’ জাতিসংঘে ইসরাইলের স্থায়ী প্রতিনিধি গিলাদ এরদান হামাসের রকেট হামলায় নিহত ১০ বছর বয়সী এক আরব-ইসরাইলি মেয়ে শিশুর ঘটনা তুলে ধরেন। তিনি জোর দিয়ে দাবি করেন, ইসরাইল ‘সন্ত্রাসীদের অবকাঠামো ভেঙে এবং বেসামরিক প্রাণহানি না করে’ আসলে ‘বীরোচিত’ কাজ করছে। নিরাপত্তা কাউন্সিলকে কঠোর ভাষায় হামাসের নিন্দা করার আহ্বান জানিয়ে এরদান বলেছেন, নিজেদের সুরক্ষায় তারা সব ধরনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে। জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস ‘একেবারে আতঙ্কজনক’ এ সহিংসতা দ্রুত নিরসনের আহ্বান জানিয়েছেন এবং তিনি ‘অনিয়ন্ত্রিত নিরাপত্তা ও মানবিক সঙ্কটের’ সতর্কবাণী উচ্চারণ করেছেন। শেষ পর্যন্ত নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে এ সঙ্ঘাত নিরসনে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করা যায়নি। ইসরাইলের মিত্র দেশ যুক্তরাষ্ট্রের কারণে এ আলোচনায় বসার ক্ষেত্রেও বিলম্ব হয়। আগের দুটি বৈঠকে ইসরাইলের নিন্দা এবং যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়ে যৌথ বিবৃতি দিতে বাধা দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

এদিকে গাজায় ইসরাইলি গণহত্যা অব্যাহত রয়েছে। রোববার একদিনে নারী ও শিশুসহ ৪২ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়েছে। বহু ভবন গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। সড়ক ধসিয়ে দেওয়া হয়েছে। গাজায় ইসরাইলি বিমান ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় এবং গোলাবর্ষণে এখন পর্যন্ত ৫৮ শিশু ও ৩৪ নারীসহ ১৯২ জন নিহত হয়েছেন। এছাড়া পশ্চিমতীরে বিক্ষোভে গুলি চালিয়ে ১১ ফিলিস্তিনিকে হত্যা করা হয়েছে।

বর্বর হামলা চালাচ্ছে ইসরাইল : ওআইসি
ইসরাইল সউদী আরবে বর্বর হামলা চালাচ্ছে বলে জানিয়েছেন অরগানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন। রোববার এক বৈঠকে একই মত রাখে সউদী আরবও। রোববার সংস্থাটির সদস্য ৫৭ দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে জরুরি ভার্চুয়াল বৈঠক অনুষ্ঠানের পর এক যুক্ত বিবৃতিতে সংস্থাটি অবিলম্বে গাজায় হামলা বন্ধের আহ্বান জানায়। বিবৃতিতে বলা হয়, পুরো অধিকৃত ফিলিস্তিন ভূখণ্ডে ফিলিস্তিনি জনগণের বিরুদ্ধে কৌশলগত অপরাধের মাধ্যমে পরিস্থিতির অবনতির জন্য দখলদার শক্তি ইসরাইল সম্পূর্ণভাবে দায়ী। বিবৃতিতে জাতিসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদকে সঙ্কটের সমাধানে শিগগির ব্যবস্থা নেয়ার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি ইসরাইলের আগ্রাসী তৎপরতা বন্ধের উদ্যোগের আহ্বান জানানো হয়।

এর আগে ফিলিস্তিনজুড়ে চলমান অস্থিরতা ও গাজায় ইসরাইলি আগ্রাসন অব্যাহত থাকায় ওআইসি সভাপতি সউদী আরবের অনুরোধে রোববার জরুরি এই ভার্চুয়াল বৈঠক আহ্বান করা হয়। বৈঠকের শুরুতে উদ্বোধনী ভাষণে সউদী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফয়সল বিন ফারহান আল-সউদ বলেন, ‘ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ইসরাইল নগ্নভাবে সহিংসতা সৃষ্টি করছে। আমরা জেরুসালেমে ফিলিস্তিনিদের বাড়ি ইসরাইলের দখল করার নিন্দা জানাই।’ তিনি আরো বলেন, ‘পূর্ব জেরুসালেম ফিলিস্তিনি ভূমি। আমরা এর কোনো ক্ষতি মেনে নেব না।’

তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বর্ণবাদী নীতি অনুসরণ করার কারণে ইসরাইলের পক্ষে আন্তর্জাতিক সমর্থন হ্রাস পাচ্ছে বলে আমরা দেখছি। তবে এ সময়ে ইসরাইলের সঙ্গে কয়েকটি মুসলিম দেশের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার কারণে আমাদের প্রতিবাদ কতটুকু গুরুত্ব পাবে? ওআইসির বৈঠকে ফিলিস্তিনি ভাইবোনদের রক্ষার জন্য আন্তর্জাতিক পর্যায়ের সব পদক্ষেপে নেতৃত্ব অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে তুরস্ক।

বৈঠক শেষে এক টুইটবার্তায় তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ফিলিস্তিনের জন্য আমাদের ঐক্য ও দৃঢ়তা দেখানোর সময় এসেছে। ইসলামি উম্মাহ আমাদের নেতৃত্বের জন্য অপেক্ষা করছে। প্রয়োজনীয় যে কোনো পদক্ষেপ নিতে তুরস্ক প্রস্তুত রয়েছে। ওআইসির নির্বাহী কমিটির জরুরি বৈঠকে ফিলিস্তিনে চলমান নৃশংসতার জন্য এককভাবে ইসরাইলকে দায়ি করেছেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ ওআইসির নেতারা। ওআইসির নির্বাহী কমিটির জরুরি বৈঠকে ফিলিস্তিনে চলমান নৃশংসতার জন্য এককভাবে ইসরাইলকে দায়ী করেছেন তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ ওআইসির নেতারা। সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি, আল-জাজিরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
Taslima Mamun Runa ১৮ মে, ২০২১, ১:১৬ এএম says : 0
নিশ্চয় দুনিয়ায় সব আদালতে চেয়ে বড় আদালত হলো মহান আল্লাহর আদালত। ফিলিস্তিনির অসহায় মানুষের উপর অত্যাচারের বিচার এক দিন হবে।সেই দিন কোন ক্ষমতা কাজে আসবেনা। মহামারী করোনা পরিস্থিতিতে যাদের শিক্ষা হয়নি। তাদের কে আর বলার কিছুই নেই।
Total Reply(0)
Md Diluar Hossen Naym ১৮ মে, ২০২১, ১:১৬ এএম says : 0
ইহুদিদের সন্ত্রাসী কার্যক্রম প্রকাশ্যে মদদ দিচ্ছে আমেরিকাসহ ইউরোপের প্রভাবশালী রাষ্ট্রগুলো। সমস্ত সন্ত্রাসী তৎপরতা কে তীব্রভাবে নিন্দা করছি
Total Reply(0)
মোঃআবু নাছের চৌধুরী ১৮ মে, ২০২১, ১:১৬ এএম says : 0
যতদিন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্র যুক্তরাজ্যে ফ্রান্স ইহুদী শিবির ইসরায়েলের নামক শয়তানের পতন না হওয়া পর্যন্ত পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্টা হবেনা এরা সব সময় সহিংসতা সৃষ্টি করে ফায়দা লুটে নিরহ মানুষ গুলো হত্যা করে থাকে,
Total Reply(0)
Tamim Hossain ১৮ মে, ২০২১, ১:১৬ এএম says : 0
জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ বিশ্বের নিরাপত্তা স্থাপনে সম্পুর্ণ ব্যর্থ তা আজ প্রমাণিত সত্য
Total Reply(0)
Md Rejaul Karim ১৮ মে, ২০২১, ১:১৭ এএম says : 0
আল্লাহ্ খুব শীঘ্রই এই ইহুদি তথা পশ্চিমাদের বিরুদ্ধে শাস্তির ব্যবস্থা কবরে। যেমনটা করোনা দিয়ে আমেরিকা ধবংস শুরু করছে। বাইডেন ভুলে গেছে মনে হচ্ছে।
Total Reply(0)
Muhammad Sefat Hossain Shabit ১৮ মে, ২০২১, ১:১৭ এএম says : 0
এবার হামাস যে পরিকল্পনা করে এগোচ্ছে তাতে ইজরায়েল কিন্ত খুব হকচকিয়ে আছে। জেনে রাখা ভালো যে ফিলিস্তিনের যতই ক্ষতি হক না কেন অবশেষে তারাই বিজয়ী হবে। যেমনটি হয়েছিলো আমাদের মুক্তিযুদ্ধে,ভিয়েতনাম যুদ্ধে,আফগানিস্তান যুদ্ধে। এসকল যুদ্ধে স্বাধিনতাকামীদের বহু লোক,সম্পদ,স্থাপনা ইত্যাদির ব্যাপক ক্ষতি হলেও তারাই কিন্ত পরিশেষে বিজয়ী হয়েছিলো।
Total Reply(0)
Farzana Afroz ১৮ মে, ২০২১, ১:১৭ এএম says : 0
সবচেয়ে অকেজো আর ব্য`থ সংগঠন হলো এই ফালতু জাতিসংঘ। আমেরিকা আর ইজরাইলের পাচাটা গোলাম।বয়কট জাতিসংঘ, বয়কট প্রত্যেক দেশ,সংগঠন যারা ইজরাইলকে সমথ`ন করে।
Total Reply(0)
Dadhack ১৮ মে, ২০২১, ১২:১৮ পিএম says : 0
Surah:6: Ayat:120: “তোমরা প্রকাশ্য এবং গোপন পাপ বর্জন করো. যারা পাপ করে তাদের পাপের সমুচিত শাস্তি তাদেরকে দেওয়া হবে” ও মুসলিম ভাই-বোনেরা তাহাজ্জত নামাজের সময় উঠুন এবং আল্লাহর কাছে দোয়া করুন যেন আল্লাহ বর্বর ইসরাইলকে ধ্বংস করে দেন. বর্বর ইজরাইল গাজার সবকিছু ধ্বংস করে দিয়েছে খাদ্য-পানীয় বাসস্থান, রাস্তা, স্কুল, বিদ্যুৎ. গাজার ভাইবোনেরা যে কি কষ্টের মধ্যে আছে আমরা তা উপলব্ধি করতে পারছি না যদি না আমরা গাজায় থাকতাম.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন