বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৬ মাঘ ১৪২৮, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীর মুখে গরম পানি

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ২২ মে, ২০২১, ১২:০০ এএম

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দাবিকৃত যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন আন্নি আক্তার নামে এক গৃহবধূর মুখে গরম পানি ঢেলে ঝলসে দিয়ে নির্যাতন চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার ৯ দিন পেরিয়ে গেলেও নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে মামলা নেয়নি পুলিশ। মামলা না নেয়ায় পুলিশ প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ। এর আগে গত ১৩ মে উপজেলার শিমুলিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গৃহবধূ আন্নি আক্তার উপজেলার কুলিয়াদি এলাকার শফিকুল ইসলামের মেয়ে।

গৃহবধূ আন্নি আক্তার অভিযোগ করে জানান, ৩ বছর আগে উপজেলার শিমুলিয়া এলাকার মৃত নজরুল মোল্লার ছেলে মিদুল মোল্লার সঙ্গে আন্নি আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়ের পর জানতে পারেন মিদুল মোল্লা মাদক সেবন করেন। বিয়ের পর তাদের সংসারে ৯ মাসের একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। প্রতিবেশী জাহিদুল ইসলাম শিমনের প্ররোচনায় স্বামী মিদুল মোল্লাসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন গৃহবধূর উপর নির্যাতন চালাতো। বিয়ের পর নানা টালবাহানায় আন্নি আক্তার বাবার কাছ থেকে ১ লাখ টাকা এনে দেন স্বামী মিদুল মোল্লাকে। গত বেশ কয়েকদিন ধরে মিদুল মোল্লা আন্নিকে তার বাবার বাড়ি থেকে ২ লাখ টাকা যৌতুক এনে দেয়ার জন্য ফের চাপ প্রয়োগ করে আসছিল।

গত ১৩ মে দুপুরে শ্বশুর বাড়ির লোকজন আন্নিকে তার বাড়ি থেকে ২ লাখ টাকা এনে দিতে বলেন। আন্নি টাকা এনে দিতে অস্বীকার করায় স্বামী মিদুল মোল্লাসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে মারধর করতে শুরু করেন। এক পর্যায়ে রান্না ঘর থেকে গরম পানি এনে আন্নি আক্তারের মুখে ঢেলে ঝলসে দেয়। পরে পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। গৃহবধূ আন্নি আক্তার ঘটনার পর দিন রূপগঞ্জ থানায় বাদী হয়ে অভিযোগ দায়ের করলেও মামলা নেয়নি পুলিশ। এরপরে প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে ওই গৃহবধূ।
এ বিষয়ে রূপগঞ্জ থানার ওসি এইচ এম জসিম উদ্দিন বলেন, বাদীকে সন্ধ্যায় আসতে বলেছি। মামলা নেয়া হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন