মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬ আশ্বিন ১৪২৮, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ঘূর্ণিঝড় যশ হচ্ছে শক্তিশালী বন্দরে ২ নম্বর সঙ্কেত : উপকূলে গুমোট আবহাওয়া জনমনে ভয়-আতঙ্ক

বিশেষ প্রতিনিধি, চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৪ মে, ২০২১, ৯:৪০ এএম | আপডেট : ১১:২২ এএম, ২৪ মে, ২০২১

বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি আজ সোমবার সকালে ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়েছে। এর নাম দেওয়া হয়েছে 'যশ' বা 'ইয়াস'। ওমানের ভাষায় এর অর্থ 'দুঃখ-হতাশা'। যশ উত্তর ও উত্তর পশ্চিম দিকে এগিয়ে যেতে পারে এবং আরও শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। যশ আগামী বুধবারের মধ্যে ভারতের উড়িষ্যা পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশের খুলনা অতিক্রম করতে পারে।
যশের প্রভাবে সাগর উত্তাল রয়েছে। চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ২ নম্বর সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।
আজ সকালে আবহাওয়া বিভাগের সর্বশেষ বুলেটিনে আবহাওয়াবিদ মো. আবদুর রহমান খান জানান, পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও এর সংলগ্ন এলাকায় অবস্থানকালে গভীর নিম্নচাপটি উত্তর ও উত্তর পশ্চিম দিকে এগিয়ে আরও ঘনীভূত হয়ে ঘূর্ণিঝড় যশে পরিণত হয়েছে।
এর আগে রোববার রাতে এটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়।
ঘূর্ণিঝড় যশ চট্টগ্রাম,  কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দর থেকে ৬১০ থেকে ৫৪০ কিলোমিটারের মধ্যে দক্ষিণ, দক্ষিণ-পশ্চিম দিকে অবস্থান করছিল।
যশ আরও ঘনীভূত হয়ে উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের ৬২ কি.মি.র মধ্যে বাতাসের একটানা গতিবেগ দমকা অথবা ঝড়ো হাওয়ার আকারে ৮৮ কি.মি. পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। সাগর উত্তাল রয়েছে।
চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে ২ নম্বর সতর্ক সঙ্কেত দেখাতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর ও গভীর সাগরে অবস্থানরত সকল মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে নিরাপদ আশ্রয়ে যেতে বলা হয়েছে।
ভারতের আবহাওয়া বিভাগ, আন্তর্জাতিক আবহাওয়া স্যাটেলাইট সংস্থা ও বিদেশি সংবাদমাধ্যম বলছে, গভীর নিম্নচাপ থেকে শক্তি সঞ্চয়কারী ঘূর্ণিঝড় ‘যশ’ আগামীকাল মঙ্গলবার বিকেলের পর অথবা বুধবার দিনের মধ্যেই যদি আঘাত হানে, তাহলে পূর্ণিমার সক্রিয় প্রভাব থাকতে পারে।
তখন ‘যশ’ শক্তিশালী হয়ে উঠতে পারে। এ অবস্থায় উপকূলে জলোচ্ছ্বাসেরও আশঙ্কা রয়েছে। ‘যশ’ ভারতের উড়িষ্যা-পশ্চিমবঙ্গে আঘাত হানার শঙ্কা বেশিই। ভারতের উপকূল ও সুন্দরবন হয়ে খুলনায়ও আছড়ে পড়তে পারে।
সবকিছু নির্ভর করছে ‘যশ’ সৃষ্টি হওয়ার পর এর সম্ভাব্য গতি-প্রকৃতির উপর।
এদিকে যশের প্রভাবে ভ্যাপসা গরম পড়ছে। সমগ্র উপকূলীয় অঞ্চলে গুমোট আবহাওয়া বিরাজ করছে। উপকূলীয় এলাকার জনগণের মাঝে যশের ভয় আতঙ্ক বিরাজ করছে।
আজ দেশের বিভিন্ন স্থানে দমকা থেকে ঝড়ো হাওয়া এবং বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। তাপমাত্রা গতকালের তুলনায় আজ কিছুটা কমতে পারে।
যশ মোকাবিলায় উপকূলীয় জেলা উপজেলা প্রশাসন আগাম প্রস্তুতি ও সতর্কতা গ্রহণ করছে। সমন্বয় সভা হচ্ছে প্রশাসনের উদ্যোগে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন