বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৪ কার্তিক ১৪২৮, ১২ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

শেখ হাসিনার সরকার আলেম সমাজের খেদমতে নিয়োজিত

আলোচনা সভায় তথ্যমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ মে, ২০২১, ১২:০০ এএম

শেখ হাসিনার সরকার দেশের আলেম সমাজের খেদমতে নিয়োজিত। বিএনপি সরকার ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের দাবিকে দীর্ঘ দিন মুলা ঝুলিয়ে রেখেছিল। বিএনপি সরকার কওমি মাদরাসা শিক্ষা সনদের স্বীকৃতি দেয়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এদেশের ইসলাম প্রিয় মানুষের প্রাণের দাবি ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করছেন। কওমি মাদরাসা শিক্ষা সনদের স্বীকৃতি দিয়েছেন এবং কওমি মাদরাসার শিক্ষার্থীদের চাকরিও দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী ৫৬০টি মডেল মসজিদ প্রতিষ্ঠা করছেন।

সারাদেশের মসজিদভিত্তিক মক্তবের ৮৪ হাজার ইমাম শিক্ষককে প্রতি মাসে বেতন ভাতা দিয়ে ইসলামের প্রচার প্রসারে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখছেন প্রধানমন্ত্রী। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের কনফারেন্স রুমে বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টি আয়োজিত ধর্মের নামে অরাজকতা ও তথাকথিত ধর্মীয় নেতার ধর্মহীনতা এবং শান্তির ধর্ম ইসলাম শীর্ষ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্য মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মাওলানা মো.ইসমাইল হোসাইনের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হক খান এমপি। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বোর্ড অব গভর্ণর ড. মুফতি মাওলানা কাফিল উদ্দিন সরকার সালেহী। অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী মো. মামুনুর রশিদ, দলের মহাসচিব শাইখুল হাদিস মাওলানা মুফতি শাহাদাত হোসাইন, শাইখুল হাদিস মাওলানা ওয়াহিদুজ্জামান, মধুপুর পীর সাহেব মাওলানা আবু হানিফ, মাওলানা আব্দুল আজিজ, মাওলানা মো. আব্দুল কাইয়ূম, মাওলানা মুফতি আব্দুল্লাহ, মাওলানা মোহাম্মদ আলী, মাওলানা শফিকুল ইসলাম, মাওলানা শাহ মোহাম্মদ ওমর ফারুক, মাওলানা নূরুল ইসলাম, হাফেজ ক্বারী সানাউল্লাহ, মুফতি মুহিববুল্লাহ,মাওলানা মোস্তফা চৌধুরী।
ড. হাছান মাহমুদ বলেন, কিছু আলেম নামধারী লোক ইসলামের নামে দেশে বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। এরা যাকাত-ফিতরার টাকাও নিজের একাউন্টে জমা নেয়। মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী ও মাওলানা মামুনুল হকের অর্থের ফিরিস্তি বেড়িয়ে আসছে। মাওলানা মামুনুল হক পরের স্ত্রীকে নিয়ে রিসোর্টে যায়।

তথ্য মন্ত্রী বলেন, যারা ইসলামের কথা বলে মানুষের ঘর-বাড়ি ভূমি অফিস ও ফায়ার সার্ভিস জ্বালিয়েছে তারা ইসলামের শত্রু। এদের মুখোশ উন্মোচন করতে হবে। কারা ইসলামের খেদমত করছে তা’ জনগণের সামনে তুলে ধরতে হবে। মন্ত্রী বলেন, ভোট আসলেই বিএনপি মুসলমানের ভেস ধরে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের জন্য। তথ্য মন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেয়নি। ইসরাইলি রাষ্ট্র আমরা মানি না। ফিলিস্তিনি পৃথক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে হবে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নির্যাতিত মজলুম ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি মনে প্রাণে সমর্থন দিয়ে গেছেন। বঙ্গবন্ধুর নীতি অনুসরণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারও ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি পুর্নসমর্থন অব্যাহত রাখছে। বর্তমান সরকার ইসরাইলের সাথে কোনো কূটনৈতিক সর্ম্পক গড়ে তুলেনি। কোনো বাংলাদেশি নাগরিককে ইসরাইল যেতে দেয়া হবে না এবং ইসরাইল থেকেও কাউকে এদেশে আসতে দেয়া হবে না বলেও তথ্য মন্ত্রী উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, বিএনপি সরকারের শাসনামলে সন্ত্রাসী ইসরাইল ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর বর্বরোচিত হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল। সে সময়ে আওয়ামী লীগ জাতীয় সংসদে ইসরাইলের বিরুদ্ধে একটি নিন্দা প্রস্তাব উত্থাপন করার দাবি তুলেছিল। কিন্ত বিএনপি ইসরাইলের হত্যাযজ্ঞের বিরুদ্ধে সংসদে নিন্দা প্রস্তাব পাশ করতে দেয়নি। তিনি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে এসব বিষয় স্মরণ করার অনুরোধ জানান।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো.ফরিদুল হক খান বলেন, ইসলামের নামে যারা সন্ত্রাস নৈরাজ্য সৃষ্টি করে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিল করতে চায় তাদের ব্যাপারে সর্তক থাকতে হবে। তিনি বলেন, ইসলাম সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদকে সমর্থন করে না। ইসলামের নামে যারা সন্ত্রাস জঙ্গিবাদের ঘটনা ঘটায় তারা দেশ, জাতি ও ইসলামের দুশমন। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইসলামের প্রচার প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছেন। তিনি বলেন, সউদী সরকার দেশে ৫৬০টি মডেল মসজিদ নির্মাণে অর্থ যোগান দেয়ার ব্যাপারে অসম্মতি জানালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব মডেল মসজিদ নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দেন। আগামী জুন মাসেরই প্রধানমন্ত্রী প্রাথমিক পর্যায়ে ৫০টি মসজিদ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করবেন। ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, কোভিড-১৯ এর পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের হিফজখানাগুলো খুলে দেয়ায় পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের বরকতে আমরা আল্লাহর গজব থেকে অনেকটা রক্ষা পেয়েছি।

ড. মুফতি মাওলানা কাফিল উদ্দিন সরকার সালেহী বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। আমাদের কাজ হচ্ছে আল্লাহর দ্বীন মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়া। তিনি বলেন, কেন আজ আলেমরা কারাগারে ? দেশের কওমি অঙ্গনকে রাকারা কুলষিত করছে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘ দিনের দাবি কওমি শিক্ষা সনদের স্বীকৃতি দিয়েছেন এবং ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করছেন। আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে মাওলানা ইসমাইল হোসাইন অবিলম্বে কওমি মাদরাসা ও হিফজখানাসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার জোর দাবি জানান।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
প্রবাসী-একজন ২৮ মে, ২০২১, ৩:৫১ এএম says : 0
স্পষ্টভাষী হক্কানী আলেমদের জেলে পুরে রাখা কি আলেম সমাজের খেদমতে নিয়োজিত থাকার প্রমান বহন করে?
Total Reply(0)
আবুল কালাম আজাদ ২৮ মে, ২০২১, ৯:০৭ এএম says : 0
মানবকূল সৃষ্টি করেছেন আল্লাহ, মানবকূলের কৃতকর্মের খবরও রাখেন আল্লাহু, তোমরা জতবড়ই মিথ্যাবাদী হও, সে খবরও আল্লাহু রাখেন, দেশের আলেম সজাম ধংশ করছো তোমরা, আবার সেই তোমরাই বলছো আমরা আলেমদের বন্ধু, তোমাদের থেকে বড় মিথ্যাবাদী আর কে হতে পারে, নিশ্চয়ই তোমাদের বিচার আল্লাহু করবে,,
Total Reply(0)
ইব্রাহীম ২৮ মে, ২০২১, ৫:৪০ এএম says : 0
আমাদের সরকার হক পন্থী আলেমদের জেলখানায় ও রিমান্ডে নিয়ে অনেক সেবা ও খাতির যত্ন করছে। ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রী।
Total Reply(0)
ওমর ফারুক ২৮ মে, ২০২১, ৫:৪৮ এএম says : 0
রিমান্ড দিয়ে কোন খেদমত করতেছেন ?
Total Reply(0)
শাব্বির আহমদ ২৮ মে, ২০২১, ৭:১৫ এএম says : 0
মাদরাসা সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার জোর দাবি জানাচ্ছি।
Total Reply(0)
Dadhack ২৮ মে, ২০২১, ১:২৩ পিএম says : 0
They are enemy of Allah as such they rule our beloved country rule by Man Made Law. Man made law allow all harram things Hallal and they prohibit muslim to follow Qur'an and Sunnah strictly.
Total Reply(0)
মোঃ হুমায়ন কবীর মন্ডল ৫ জুন, ২০২১, ১২:১৮ পিএম says : 0
আল্লাহ্ আপনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু সহ তার পরিবারের মৃত্যু ব‍্যাক্তিকে জান্নাত বাসী করুন ও মমতা মহি মা শেখ হাসিনা কে সুস্থ রাখুন ও বাংলাদেশ কে বিশ্বের দরবারে উন্নয়ন মডেল করার তওফিক দান করুন আল্লাহুম্মা আমিন
Total Reply(0)

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন