শুক্রবার, ০৬ আগস্ট ২০২১, ২২ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৬ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কমলনগরে মুক্তিযোদ্ধা সনদ পাইয়ে দেয়ার নামে প্রতারণা!

কমলনগর (লক্ষ্মীপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ মে, ২০২১, ১০:২১ এএম

লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত করা ও সনদ পাইয়ে দেয়ার মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে ৮৬ বছর বয়সী আবু তাহের নামে এক বৃদ্ধের কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এবিষয়ে অভিযুক্ত জাকিরের বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগী। অভিযুক্ত জাকির উপজেলার চরলরেঞ্চ ইউনিয়নের ডাকাতের পোল এলাকার মৃত আনু মাঝির ছেলে পেশায় সে একজন সিএনজি চালক

ভুক্তভোগী আবু তাহের (৮৬) গত বৃহস্পতিবার কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ কামরুজ্জামান এর নিকট এ অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, আবু তাহের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন ভারতের ব্যারাকপুর বালুর মাঠ যুদ্ধ শিবির থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে দ্বীপ জেলা ভোলার খরকীতে সরাসরি যুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেন। যুদ্ধ অংশ গ্রহনকালে তিনি ছয়জন চিহ্নিত রাজাকারকে জনসম্মুখে হত্যা করেন। তবে দেশ স্বাধীন হওয়ার পরবর্তী প্রণয়নকৃত মুক্তিযোদ্ধা তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত করাতে পারেননি তিনি।তাছাড়া এতটা গুরুত্বও দেননি ওই সময়।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করেন, ৫ বার মেঘনার ভাঙ্গনের মূখে ভিটা-মাটি হারিয়ে বর্তমানে অন্যের বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে থাকেন তিনি। পরিবারের উপার্জন করার মতো ছেলে সন্তান কেউ না থাকায় ৮৬ বছরের বয়সী এই বৃদ্ধ রিকশা চালিয়ে কোনমতে দিনাতিপাত করছেন।
এরই মাঝে বিগত দুই বছর আগে তিনি টেলিভিশনের খবরে শুনতে পান নতুনভাবে মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাভূক্ত করার কাজ করছে সরকার। বিষয়টি নিয়ে প্রতিবেশী স্বশিক্ষিত আনু মাঝির ছেলে সিএনজি চালক জাকিরের সাথে আলাপ করলে মন্ত্রণালয়ে তার লোক আছে এবং অফিসিয়াল খরচের কথা বলে ১ লাখ টাকা দাবী করে। পরে জাকিরের কথায় রাজি হয়ে প্রতিবেশীদের কাছ থেকে টাকা ধার নিয়ে ও বিভিন্ন মাধ্যম থেকে সংগ্রহ করে কয়েকদাপে ৬০ হাজার টাকা জাকিরের হাতে তুলে দেন তিনি । টাকা নেওয়ার দুই বছর অতিবাহিত হলেও কাজের অগ্রগতি না দেখে জাকিরের প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পেরে ইউএনও বরাবর অভিযোগ দায়ের করেন আবু তাহের ।

অভিযোগের বিষয়ে আবু তাহের বলেন, জাকির আমার সাথে ইচ্ছাকৃত প্রতারণা করেছে। আমি তার বিচার চাই।জীবন সায়াহ্নে এসে আমার একটাই চাওয়া মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি। তা পেলে মরেও শান্তি পাব আমি।

অভিযোগে বিষয়ে জানতে চেয়ে অভিযুক্ত জাকিরের মুঠোফোনে একাধিকবার চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

এবিষয়ে কমলনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ কামরুজ্জামান অভিযোগ পাওয়ার কথা নিশ্চিত করে জানান, প্রতারণার প্রমাণ পেলে অভিযুক্ত জাকিরের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাছাড়া আবু তাহের মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেছে কিনা,এবিষয়ে তাঁর কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে সত্যতা পাওয়া গেলে প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন