ঢাকা শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮, ১৩ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

আল্লামা হাফেজ কাসেমের ইন্তেকালে হেফাজত আমীরের শোক

হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১১ জুন, ২০২১, ৮:১৭ এএম

হাটহাজারী মাদরাসার সাবেক সহকারী পরিচালক,শিক্ষাসচিব ও মুহাদ্দিস, ফটিকছড়ি তালীমুদ্দীন মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা হাফেজ কাসেম রহ. ইন্তেকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন আমীরে হেফাজত, হাটহাজারী মাদরাসার শায়খুল হাদীস ও শিক্ষা পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

আজ ১০ ই জুন বৃহস্পতিবার সংবাদমাধ্যমে প্রেরিত এক শোক বার্তায় আমীরে হেফাজত বলেন,হাফেজ কাসেম রহ. দেশের শীর্ষ স্থানীয় একজন আলেম ও মুরুব্বি ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন দারুল উলুম হাটহাজারী মাদরাসার সহকারী পরিচালক ও শিক্ষা সচিবের গুরু দায়িত্ব আঞ্জাম দিয়েছেন। তিনি একজন বিজ্ঞ আলেম ছিলেন। অত্যন্ত সুনাম ও সুখ্যাতির সাথে হাটহাজারী মাদরাসায় হাদীসের খেদমত করেছেন। হাফেজ কাসেম রহ. এর ইন্তেকালে ইলমি ময়দানে যে শূণ্যতার সৃষ্টি হয়েছে তা কভু পূরণ হবার নয়। তাঁর ইন্তেকালে আমি গভীরভাবে শোকাহত।

আল্লামা বাবুনগরী বলেন, হাফেজ কাসেম (রহ.) আমার শ্রদ্ধাভাজন চাচা। আমার দাদা নাজিরহাট মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা নুরুল আহমদ রহ. ছিলেন বিখ্যাত আলেম। হাফেজ কাসেম রহ. স্বীয় পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে নিজেকে একজন যোগ্য আলেমে দ্বীন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন। তিনি নাজিরহাট মাদরাসার মজলিশে শূরার অন্যতম সদস্য ছিলেন। আমরণ তিনি দরস-তাদরীস সহ দ্বীনের বহুমুখী খেদমত আঞ্জাম দিয়েছেন।

আমীরে হেফাজত বলেন, হাফেজ কাসেম রহ. জীবদ্দশায় নিজ সন্তানদেরকে যোগ্য আলেম বানিয়েছেন। মাওলানা ওসমান সহ তাঁর সন্তানরা পিতার নির্দেশিত পথ অনুসরণ করে দ্বীনের খেদমত করে যাচ্ছেন।

আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী মরহুমের শোক সন্তপ্ত পরিবারবর্গের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বলেন,মহান প্রভুর দরবারে আমি দুআ করি, আল্লাহ তাআলা তাঁর সকল দ্বীনি খেদমতকে কবুল করুন, তাঁর পরিচালিত তালীমুদ্দীন মাদরাসাকে কিয়ামত পর্যন্ত জারি রাখুন এবং তাঁর সকল ত্রুটি-বিচ্যুতি ক্ষমা করে জান্নাতের সর্বোচ্চ স্থান দান করুন,আমিন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন