শুক্রবার, ০৬ আগস্ট ২০২১, ২২ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৬ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

অনেকবার বলা সত্ত্বেও বিয়ের রেজিস্ট্রেশন এড়িয়ে গিয়েছিলেন নুসরাত!

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১১ জুন, ২০২১, ১১:২১ এএম

বুধবার থেকেই নুসরাত-নিখিলের সম্পর্কের বৈধতা নিয়ে উঠছে একাধিক প্রশ্ন। এদিন নুসরাত জাহান একটি বিবৃতির মাধ্যমে জানান, আইন অনুযায়ী তাদের বিয়ে বৈধ নয়, নিখিলের সঙ্গে তিনি লিভ ইন রিলেশনশিপে ছিলেন। নুসরাতের এই বিবৃতির পরিপ্রেক্ষিতে এবার মুখ খুললেন নুসরাতের স্বামী নিখিল জৈন, পাল্টা বিবৃতি দিলেন তিনি।

নুসরাতের বিবৃতির জবাবে নিখিলের দাবি, বারবার বলা সত্ত্বেও নুসরাত ম্যারেজ রেজিস্ট্রেশন এড়িয়ে গিয়েছিলেন। এমনকী ২০২০ সালে একটি সিনেমার শুটিংয়ের পরই নাকি নুসরাতের আচরণ পালটে যায় বলে দাবি নিখিলের। গত বছরের ৫ নভেম্বর সমস্ত জিনিসপত্র নিয়ে বেরিয়ে যান নুসরাত। ব্যক্তিগত মূল্যবান নথিপত্রও সঙ্গে নিয়ে বেরিয়ে যান। তখন নিজেকে প্রতারিত মনে হয়েছিল বলে দাবি নিখিলের।

উল্লেখ্য, গত বছরের পুজার পর থেকেই নুসরাত ও নিখিলের সম্পর্কের ভাঙনের কথা শোনা যাচ্ছিল। এর মধ্যেই আবার অভিনেতা যশ দাশগুপ্তর সঙ্গে অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠতা নিয়ে বিস্তর গুঞ্জন রটে। ২০২০ সালের ‘SOS কলকাতা’ সিনেমায় একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন দু’জনে। পরে আবার নুসরাতের ‘ডিকশনারি’ ছবির প্রিমিয়ারেও তার সঙ্গে গিয়েছিলেন যশ। এর মধ্যেই আবার বিজেপিতে যোগ দেন যশ। তারপরও একাধিকবার একই ইনস্টাগ্রাম স্টোরি শেয়ার করেছেন। একে অন্যের তোলা ছবি পোস্ট করেছেন।

এমন পরিস্থিতিতেই আবার সেপ্টেম্বর মাসে নুসরাত জাহানের মা হওয়ার গুঞ্জন শোনা যায়। জানা যায়, তার জেরেই নুসরাতের থেকে আলাদা হতে চেয়ে দেওয়ানি মামলা করেছিলেন নিখিল।

এরপরই নুসরাত বিবৃতি দিয়ে জানান, তুরস্কের মাটিতে ঘটা করে যে ‘বিয়ের’ অনুষ্ঠান তিনি করেছিলেন, ভারতে তার কোনও বৈধতা নেই। নিখিলের সঙ্গে তিনি লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন, তাই বিচ্ছেদের কোনও প্রশ্ন ওঠে না। বিবৃতিতে নুসরাত এও দাবি করেন, তার সমস্ত দামী পোশাক ও গয়নাগাটি এখনও নিখিলের বাড়িতে রয়েছে। নিখিলের থেকে তিনি একটি টাকাও নেননি, উল্টো নিখিল তার অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলেছিলেন বলে দাবি করেছিলেন নুসরাত। তার জবাবেই বৃহস্পতিবার নুসরাতকে একহাত নিলেন নিখিল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন