ঢাকা রোববার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৪ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

তিমির পেট থেকে ফেরা!

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৩ জুন, ২০২১, ১২:০০ এএম

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মাইকেল প্যাকার্ড নামে এক লবস্টার শিকারিকে গিলে ফেলেছিল বিশাল আকৃতির হ্যাম্পব্যাক তিমি। মাইকেল বলেন, সেই সময় তিনি সাগরের নীচে লবস্টার বা বড় আকারের চিংড়ি মাছের খোঁজ করছিলেন।
ওই সময় বিশাল তিমি তাকে গিলে ফেলে। এরপর প্রায় ৩০ থেকে ৪০ সেকেন্ড তিনি তিমির পেটের মধ্যে থাকেন। তারপর তিমিটি এক পর্যায়ে তাকে মুখ থেকে লালার সঙ্গে বের করে দেয়। প্যাকার্ডের গোড়ালি একটু মচকে যাওয়া ছাড়া তার আর কোন ক্ষতি হয়নি।

হ্যাম্পব্যাক তিমি ৫০ ফুট পর্যন্ত লম্বা হতে পারে এবং একেকটির ওজন হতে পারে প্রায় ৩৬ টন। ওয়ার্ল্ড ওয়াইল্ড লাইফ ফান্ডের তথ্য অনুযায়ী, এখন বিশ্বে এরকম তিমির সংখ্যা প্রায় ৬০ হাজার।
৫৬ বছরের মাইকেল প্যাকার্ড বলেন, তিনি এবং তার সহযোগী মিলে তাদের নৌকা নিয়ে গত শুক্রবার সকালে হেরিং কোভে যান। সেখানে পরিবেশ ছিল চমৎকার এবং পানিতে দৃষ্টিসীমা ছিল প্রায় ২০ ফুট।

স্কুবা গিয়ার নিয়ে নৌকা থেকে পানিতে নেমে ডুব দেয়ার পরেই বিশাল একটা ধাক্কা অনুভব কবেন এবং সবকিছু অন্ধকার হয়ে যায়। তিনি ধারণা করেছিলেন, তিনি হয়তো বিশাল আকৃতির সাদা তিমির হামলার শিকার হয়েছেন, যেগুলো ওই এলাকায় সাঁতরে বেড়ায়। আর তখন তিনি আশেপাশে অনুভব করছিলেন সেখানে কোন দাঁত নেই।
আর তখনই তিনি বুঝলেন, একটা তিমির মুখের ভিতরে চলে গেছেন। আর এটি তাকে গিলে ফেলার চেষ্টা করছে। তার মনে হচ্ছিল, এটাই শেষ, তিনি মারা যাচ্ছেন। প্যাকার্ড বলেন, সেই সময় আমার স্ত্রী আর তার দুই পুত্রের কথা ভাবছিলাম। এরপর হঠাৎ করে এটি পানির ওপরে ভেসে উঠে প্রবলভাবে মাথা নাড়তে লাগলো।
আমাকে যেন বাতাসে ছুঁড়ে ফেলা হলো আর আমি আবার পানিতে পড়ে গেলাম। আমি মুক্ত হয়ে পানিতে ভেসে রইলাম। আমি সত্যি বিশ্বাস করতে পারছিলাম না...আমি যেন সেই গল্প বলার জন্যই এখানে রয়েছি। তিনি সাংবাদিকদের এভাবেই বেঁচে আসার ঘটনা বর্ণনা করেন।

তার সহযোগী পাগলের মতো পানিতে প্যাকার্ডের অক্সিজেনের বুদবুদ খুঁজে বেড়াচ্ছিলেন। তিনি দ্রুত তাকে ধরে নৌকায় তুলে নেন। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর তার এই অবিশ্বাস্য ঘটনার বিস্তারিত জানতে সাংবাদিকরা প্যাকার্ডের কাছে ছুটে যান।
হ্যাম্পব্যাক তিমি সাধারণত মুখ যতটা সম্ভব হা করে মাছ, ক্রিল বা অন্য খাবার খেয়ে থাকে। তবে সমুদ্র বিজ্ঞানীরা বলছেন, প্যাকার্ডের ক্ষেত্রে যা হয়েছে, তা সম্ভবত একটি দুর্ঘটনা। সূত্র : বিবিসি বাংলা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
রেজাউল করিম ১৩ জুন, ২০২১, ১:৫৮ এএম says : 0
রাখে আল্লাহ মারে কে....
Total Reply(0)
নুর নাহার আক্তার নিহার ১৩ জুন, ২০২১, ১:৫৮ এএম says : 0
নতুন জীবন পেয়েছে সে...
Total Reply(0)
মহীয়সী বিন্তুন ১৩ জুন, ২০২১, ১:৫৯ এএম says : 0
মহান আল্লাহ যাকে যেভাবে বাঁচিয়ে রাখবেন সে সেভাবেই বেঁচে থাকবে।
Total Reply(0)
রোদেলা সকাল ১৩ জুন, ২০২১, ১:৫৯ এএম says : 0
সুবহানাল্লাহ, আসুন সবাই মহান আল্লাহর দিকে ফিরে আসি।
Total Reply(0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন