বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৪ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

রোনালদো, ওজিল থেকে জেমি ডে

এরিকসেনের জন্য প্রার্থনা

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ জুন, ২০২১, ১২:০০ এএম

শঙ্কা, আতঙ্ক আর মহামারির চোখ রাঙানি উপেক্ষা করে দর্শক নিয়েই ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ মাঠে গড়িয়েছে সদ্যই। ডেনমার্কের কোপেনহেগেন চলছিল ‘করোনাজয়’ করা ইউরোর একটি ম্যাচ। পারকেন স্টেডিয়ামের সেই ম্যাচেরই একটি ‘ছোট্ট’ ঘটনা নিমিষেই যুক্ত করে দিল গোটা ফুটবল বিশ্বকেই। পুরো ক্রীড়াবিশ্বকেই নয় কি?

ম্যাচটি ছিল ফিনল্যান্ডের বিপক্ষে ডেনমার্কের ম্যাচ চলাকালীন হঠাৎ মাঠে লুটিয়ে পড়লেন ক্রিস্তিয়ান এরিকসেন। সতীর্থ মার্টিন ব্রাথওয়েটকে দেখা যাচ্ছিল প্রার্থনা করতে। হাত কামড়াচ্ছিলেন ডেনিশ গোলরক্ষক কাসপের মাইকেল। তাদের চোখে ছিল অশ্রæ। গ্যালারিতে অনেক দর্শকও তখন কাঁদছিলেন। পরের একটা ঘণ্টা কী উৎকণ্ঠার মধ্যেই না কেটেছে ডেনমার্ক দল, তাদের সমর্থকসহ গোটা ফুটবল বিশ্বের। এরিকসেন হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছিলেন, আর পুরো ফুটবল দুনিয়া ছিল তার সুস্থতার প্রার্থনায়। সাবেক-বর্তমান খেলোয়াড়, বিভিন্ন ক্লাব, জাতীয় দল, ক্রীড়ামোদী- কে জানায়নি তার জন্য শুভ কামনা!

পর্তুগাল ও ডেনমার্কের পুরোনো একটি ম্যাচে এরিকসেনের সঙ্গে বল দখলের লড়াইয়ের ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন জুভেন্টাসের ফরোয়ার্ড ও পর্তুগিজ অধিনায়ক ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। সেই ছবির ক্যাপশনে এরিকসেনের জন্য শুভকামনা জানিয়েছেন তিনি, ‘ক্রিস্তিয়ান এরিকসেন আর তার পরিবারের জন্য আমাদের ভালোবাসা রইল। তাদের জন্য প্রার্থনা করছি।’ এই ছবি আর ক্যাপশন রোনালদো ইনস্টাগ্রামে দিয়েছেন এরিকসেন অসুস্থ হওয়ার পরপরই। এ কারণেই ক্যাপশনে তিনি তখন লিখেছেন, ‘পুরো ফুটবল বিশ্বই ভালো খবরের প্রত্যাশায় আছে।’ পর্তুগাল-ডেনমার্কের এবারের ইউরোতেও দেখা হয়ে যেতে পারে শেষ ষোলোতেই। কিন্তু সেই সব কথা না ভেবে এরিকসেনের দ্রæত সুস্থতা কামনা করেছেন রোনালদো, ‘সুস্থ হয়ে তোমার দ্রæত মাঠে ফেরার অপেক্ষায় দিন গুনছি আমি। ক্রিস, শক্ত থাক!’

চেলসির সাবেক ফুটবলার দিদিয়ের দ্রগবা লিখেছেন, ‘এরিকসেন, তোমার জীবনের জন্য লড়াই করো। আমরা তোমার জন্য প্রার্থনা করছি।’ লিভারপুলের ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক আলিসন লিখেছেন, ‘তোমার জন্য প্রার্থনায় এরিকসেন।’ টটেনহামের সাবেক সতীর্থের প্রতি ভালোবাসা জানিয়ে ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হেরি কেইন টুইট করেছেন, ‘ক্রিস, তুমি আর তোমার পরিবারের জন্য আমার হৃদয় নিংড়ানো ভালোবাসা থাকল। শক্ত থাক বন্ধু।’ ইংল্যান্ডের আরেক খেলোয়াড় জেসে লিনগার্ডের টুইটটি ছিল এ রকম, ‘এরিকসেন আর তার পরিবারের জন্য প্রার্থনা। আশা করছি সবকিছু ঠিক আছে।’ একই রকম টুইট করেছে ইংল্যান্ড জাতীয় দল আর দলটির খেলোয়াড় মার্কাস রাশফোর্ডও। আর জার্মানির সাবেক ফুটবলার ওজিল লিখেছেন, ‘হতবিহ্বল, ক্রিস্টিয়ান এরিকসেন আমরা তোমার পাশেই আছি।’

এরিকসেনকে শুভকামনা জানিয়ে টুইট করেছে স্পেনের ক্লাব বার্সেলোনা। তারা লিখেছে, ‘এরিকসেন শক্ত থাক।’ এই লেখাটুকুর সঙ্গে প্রার্থনার একটি ইমোজিউ জুড়ে দেওয়া হয়েছে। ২৯ বছর বয়সী এই মিডফিল্ডারের ক্লাব ইন্টার মিলান টুইট করেছে, ‘ক্রিস, আমাদের সব ভাবনা তোমাকে ঘিরে। আমরা তোমার পাশে আছি।’ একইরকম বার্তা দিয়েছে তার সাবেক ক্লাব টটেনহ্যাম হটস্পার আর নেদারল্যান্ডসের আয়াক্স। টুইটারে প্রার্থনা করার চারটি ইমোজি দিয়েছেন চেলসি ও বার্সেলোনার সাবেক মিডফিল্ডার সেস ফাব্রেগাস।

তবে এই দুঃসংবাদ সবচেয়ে বেশি বুঝি ছুঁয়েছে তার ক্লাব ইন্টার সতীর্থ রোমলু লুকাকুকে। এই ম্যাচের একটু পরই অপর ম্যাচে করেন জোড়া গোল। দারুণ জয়ে চ্যাম্পিয়নশিপ শুরুও করে বেলজিয়াম। কিন্তু তার মনটা ভালো ছিল না মোটেও। বন্ধু এরিকসেনকে নিয়ে ভীষণ উদ্বিগ্ন তিনি, ‘ম্যাচটা আমি উপভোগ করেছি কিন্তু আমার জন্য ম্যাচটা খেলা কঠিন ছিল। কেননা, আমার মনটা পড়ে ছিল আমার মিলান সতীর্থ ক্রিস্তিয়ান এরিকসেনের কাছে। আশা করি, সে ভালো আছে এবং এই পারফরম্যান্স তাকে উৎসর্গ করলাম। এরিকসেনের দুর্ঘটনার কথা শুনে আমি অনেক কেঁদেছি। কেননা, আমি অবশ্যই ভয় পেয়ে গিয়েছিলাম। কঠিন সময়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে বাঁচতে হয়। আমার পরিবারের চেয়েও ওর সঙ্গে আমি বেশি সময় কাটাই। এরিকসেনের, তার বান্ধবী, দুটি বাচ্চা এবং পরিবারের সঙ্গে আছি।’

ইউরোপ ছাপিয়ে বাংলাদেশকেও ছুঁয়ে গেছে এরিকসেনের দুঃসংবাদ। বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব খেলতে বর্তমানে দল সমেত কাতারে আছেন জাতীয় ফুটবল দলের কোচ জেমি ডে। সেখান থেকে আবেগঘন এক টুইটে এই ইংলিশ লেখেন, ‘বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়-স্টাফদের ভাবনা এরিকসেন ও তার পরিবারকে ঘিয়ে।’

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন