শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮, ২০ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

নাফ নদীতে তিনদিনে ৬ রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৫ জুন, ২০২১, ১২:০২ এএম

টেকনাফের নাফ নদীতে দালালের খপ্পরে পড়ে লাশ হলো রোহিঙ্গা নারী-শিশু। তবে এসব ভাগ্য বিড়ম্বিত রোহিঙ্গারা কিভাবে প্রাণ হারালেন তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। টেকনাফে নাফ নদীর কিনারা হতে আরো দুই মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে টেকনাফ মডেল থানা পুলিশ। এই নিয়ে নাফ নদী থেকে তিনদিনে ৬ জনের লাশ উদ্ধার হলো।
সর্বশেষ গতকাল সোমরার বিকালে টেকনাফ মডেল থানা পুলিশের বিশেষ একটি দল হ্নীলা ইউনিয়নের আলী খালী এলাকার নাফনদীর কিনারায় ভাসমান অবস্থায় দুই মহিলার লাশ উদ্ধার করেছে। গত শনিবার দুপুরে টেকনাফের হ্নীলার নাফ নদীর মৌলভী বাজার সীমান্ত এলাকা হতে এক রোহিঙ্গা কার্ডধারী মা ও দুই শিশু সন্তান এর লাশ উদ্ধার করেছিল পুলিশ। পরের দিন হ্নীলা ফুলের ডেইল এলাকার নাফ নদীর কিনারা হতে আরে একটি শিশুর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ চারজনের লাশ উদ্ধার হতে না হতেই ফের গতকাল আরো দুইটি লাশ ভেসে ওঠায় স্থানীয়দের মাঝে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। তাদের মতে নাফ নদীতে আরো কত লাশ রয়েছে তা কারো জানা নেই।
স্থানীয়দের প্রশ্ন এরা কি মিয়ানমার যাচ্ছিল? না বাংলাদেশে আসচ্ছিল? না মালেশিয়া পাড়ি দিচ্ছিল? এসময় কোন দালাল চক্রের খপ্পরে পড়ে এরা লাশ হয়েছে। এসব বিষয়গুলো খতিয়ে দেখা দরকার বলে মনে করেন স্থানীয় লোকজন। সচেতন মহলের মতে রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে কড়াকড়ি না থাকায় রোহিঙ্গারা দেশের বিভিন্ন স্থানে অবাধে বিচরণ করছে তেমনি এ সব ঘটনা-দুর্ঘটনার সৃষ্টি হচ্ছে।
এ বিষয়ে স্থানীয় হ্নীলা ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী বলেন, দীর্ঘ ৪ বছর ধরে নাফ নদীতে মাছ ধরা বন্ধ। অথচ রোহিঙ্গারা কিভাবে নাফ নদীতে বিচরণ করে বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। এদিকে স্থানীয় জেলেরা অভাব-অনটনে জীবন পার করছেন। এ বিষয়ে স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সুদৃষ্টি কামনা করছি। লাশ উদ্ধারের বিষয়টি জানিয়েছেন টেকনাফ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হাফিজুর রহমান। তবে তিনি নিশ্চিত নয় এরা কোথা থেকে কোথায় যাচ্ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন