রোববার, ০১ আগস্ট ২০২১, ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮, ২১ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

বোট ক্লাবের সিসিটিভি ফুটেজে চাঞ্চল্যকর তথ্য!

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০২১, ১০:১৮ এএম

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পরীমণিকে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার ঘটনায় একের পর এক বেরিয়ে আসছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। এরই মধ্যে ঢাকা বোট ক্লাবের সিসিটিভি ফুটেজ উদ্ধার করেছে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। সংগৃহীত ভিডিও ফুটেজ থেকে পুলিশ নিশ্চিত হয়েছে যে, ওই রাতে বোট ক্লাবে অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটেছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফাঁস হওয়া ঢাকা বোট ক্লাবের ওই রাতের ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, ৯ জুন, রাত ১২টা ২২ মিনিট। ঢাকা বোট ক্লাবের সামনে একটি কালো গাড়ি থামে। গাড়িটি ছিল অমির। গাড়ির সামনের দরজা থেকে নামেন পরীমণি। পেছনের ডান পাশের দরজা দিয়ে বের হন গ্রেফতার হওয়া বোট ক্লাবের সদস্য অমি, পরীমণির কস্টিউম ডিজাইনার জিমি, তার বোন বনি।

এদিকে ক্লাবের বাইরের ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, ক্লাবে ঢোকার সময় পরীমণি কালো টপস, জিন্সের প্যান্ট পরা ছিলেন। বনি লাল টপস, সঙ্গে জিন্সের প্যান্ট এবং জিমি কালো হাতাকাটা গেঞ্জি ও হাফ প্যান্ট পরা ছিলেন। অমির পরনে ছিল সাদা গেঞ্জি ও গ্যাবার্ডিনের প্যান্ট। শুধু অমি ছাড়া বাকি সবাই মাস্ক পরে ক্লাবে প্রবেশ করেন।

রিসিপশনের ক্যামেরায় তাদের চারজনকে একসঙ্গে বারে ঢুকতে দেখা যায়। তখন রিসিপশন ডেস্কে ছিলেন দুইজন এবং ডেস্কের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন আরো এক স্টাফ।

দেড় ঘণ্টা পর রাত ২টায় রিসিপশনের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, পরীমণিকে অচেতন অবস্থায় কোলে করে নিয়ে বের হন জিমি ও একজন সিকিউরিটি গার্ড। পেছনে দৌড়াচ্ছিলেন তার বোন বনি। তাদের পেছনে স্বাভাবিকভাবে হেঁটে যাচ্ছিলেন অমি। গাড়িতে ওঠার সময় আঙুল তুলে সবাইকে ধমকের ইঙ্গিত দিতে দেখা গেছে অমিকে।

তবে বারের ভেতরে সিসিটিভি ফুটেজ না থাকলেও জিমি তার মোবাইলে ১৬ সেকেন্ডের মতো একটি ধস্তাধস্তির ভিডিও করেছিলেন। এতে নাসিরকে হই-হুল্লোড় ও গালমন্দ করতে শোনা যায়।

পুলিশের ধারণা, পরীমণিকে নাসিরের কাছে তুলে দিয়েছিলেন অমি। পানীয়র সঙ্গে নেশাদ্রব্য খাইয়ে তাকে ধর্ষণচেষ্টা হয় সেখানে। বোট ক্লাবের সিসিটিভির ফুটেজে ঘটনার প্রমাণও মিলেছে। ডিএমপির গোয়েন্দা উত্তর বিভাগের যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশীদ জানান, পরীমণিকে পরিকল্পিতভাবেই সেখানে ঢাকা বোট ক্লাবে নিয়ে গিয়েছিলেন অমি। জিজ্ঞাসাবাদে পরিমণিকে নির্যাতনের কথা শিকার করেছেন নাসির।

গোয়েন্দারা বলছে, নাসির-অমির নারী ও মাদক কারবারে জড়িত টঙ্গীর নাজিম ও তুহিন। এ দুজনকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এদিকে বনানী থানার বাইরের সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে দেখা যায়, রাত ৩টা ৫২ মিনিটে বনানী থানায় প্রবেশ করেন পরীমণি। প্রথমে তারা ডিউটি অফিসারের রুম হয়ে থানার ভেতরে প্রবেশ করেন। পরে একজন অফিসার তাদের ডিউটি অফিসারের কাছে যেতে বলেন। পরীমণি ডিউটি অফিসারের রুমে গিয়ে তার বরাবর চেয়ারে বসেন এবং ঘটনার বর্ণনা দেন। তবে ডিউটি অফিসার তার কথা বুঝতে পারছিলেন না। পরে তাকে পুলিশের একটি গাড়িতে এভারকেয়ার হাসপাতালে পাঠানো হয়।

গত সোমবার (১৪ জুন) সাভার থানায় পরীমণি বাদী হয়ে উত্তরা ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ, অমিসহ ছয়জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। দুপুরে রাজধানীর উত্তরা-১ নম্বর সেক্টরের-১২ নম্বর রোডের বাসা থেকে নাসির উদ্দিনসহ পাঁচজন গ্রেফতার করে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

এ ছাড়া উত্তরার ফ্ল্যাট থেকে তাদের গ্রেফতারের সময় মাদক উদ্ধার করা হয়। মাদক উদ্ধারের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় অমি ও নাসিরকে মঙ্গলবার ৭ দিনের রিমান্ডে পায় পুলিশ। এ ছাড়া তাদের সঙ্গে থাকা তিন নারীকে তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
Meer Md. Shamsuddoha ১৭ জুন, ২০২১, ১০:২৭ এএম says : 0
ডিউটি অফিসার তার কথা বুঝতে পারছিলেন না ! কোন সাংকেতিক ভাষায় নাকি দূর্বোধ্য কোন বিদেশে ভাষায় কথা বলছিল ?
Total Reply(0)
sats1971 ১৭ জুন, ২০২১, ১১:০৪ এএম says : 0
If you give me a good mother I will give you good nation, This is said Nepolian. Today Our son and daughter learning earning money dishonesty way that can be destroyed a good nation and aim of freedom bangladesh, Loss chracter may be occurred incident to incident and lot of crime. If we priority of lose character and dishonest man and woman in our country what is the value of freedom. Freedom means live in our country honestly and create good character other wise aim of freedom fight is fall down. In chaina very hard rules for loss chracter and dishonest man and woman, others country also. Give them highest punishment for loss character. Loss character also one kind of rape for man and woman. So that trial both of lose character man and woman and tight them otherwise basic right of freedom fight will not go to the light of correct man in the world. Our next generation will follow them openly and damcare police rab and others. This is not the target of freedom. Freedom 1971 clear idea make man, woman in a good nation in the world. Give idea about charcter, lose chracter got punishment by the people of bangladesh . We also try to become a good chracter people and help to the present govt.to create a good nations. Try to leave the works of lose charctar openly and hidly also.
Total Reply(0)
Yousuf Ebne Noor ১৭ জুন, ২০২১, ১২:১৯ পিএম says : 0
পরিমনির সাথে যা হইছে তার বিচার চাই। সাথে হতদরিদ্র এক কিশোরীর ধর্ষণের বিচার এবং আবু ত্ব হা আদনান ভাইয়েরও সন্ধান চাই। সকল অন্যায়ের বিচার চাই। ধনী গরিব সবাই যেন সমান ন্যায় বিচার পায়।
Total Reply(0)
Mohammad Milon Mia ১৭ জুন, ২০২১, ১২:২২ পিএম says : 0
পরীমনিকে আগে রিমান্ডে নেওয়া হক
Total Reply(0)
Mehedi Maruf ১৭ জুন, ২০২১, ১২:২৫ পিএম says : 0
যে দেশে নাইট ক্লাব খোলা আর বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ, সে দেশে জ্ঞানচর্চা না হয়ে যৌন চর্চা হওয়াই স্বাভাবিক.....নয় কি ?
Total Reply(0)
Ratul Khan ১৭ জুন, ২০২১, ১২:৪১ পিএম says : 0
কোথায় কি হয়েছে তা খতিয়ে দেখতে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন করছি
Total Reply(0)
কবিতা তালুকদার ১৭ জুন, ২০২১, ১২:৪৩ পিএম says : 0
ঢাকা বোর্ড ক্লাব এতো দিন কেন অভিযোগ করা হয়নি। পরীমণি অভিযোগের পর এবার ঢাকা বোর্ড ক্লাব অভিযোগ করছে। সবই মিথ্যা । ঢাকা বোর্ড ক্লাব নিষিদ্ধ করে দেওয়া হোক। যত্তসব ফালতু ক্লাব।
Total Reply(0)
জনস্বার্থে প্রতিবাদ। ১৭ জুন, ২০২১, ১২:৪৪ পিএম says : 0
বাংলা সিনামার নায়িকা রাত সাড়ে বারটাই মদের আর্ডায় যাবেন। মদ খাওয়া মাতালদের কাজ ভদ্রলোকের ব‍্যবহার আশা করবেন। নৈতিক চরিত্র ধ্বংসপ্রাপ্ত দুইপক্ষের জন‍্য কোন সহানুভূতি শ্রদ্ধা নেই। শিরোনাম হচ্ছে পক্ষে বিপক্ষে চিত্রনায়িকা বিচিত্র চরিত্রে মাতালের আর্ডায় নেশা মদের ক্লাবে গভীর রাতে পরি যাবেন।আর মদের আসরের কিছু মাতাল লম্পট মদ খেলেতো হিতাহিত জ্ঞান থাকেনা। এটি নিয়ে শিরোনাম সংবাদ আলোচনার এতকান্ড কারখানার মানে হয়। সমাজকাঠামোয় নৈতিকতা ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে একমাত্র কারণ। অনেক।নেই পারিবারিক শিক্ষা। সামাজিক শিক্ষা। নৈতিকতা নৈতিক শিক্ষাতো এখনতো ধ্বংসযজ্ঞের দ্বারপ্রান্তে। এটি পৃথিবীর চরম বেহায়াপনা উলঙ্গপনার যুগ মা বাবা ছেলে সন্তান পরিবার আদব শৃংখলা নৈতিকতার হারিয়ে যাচ্ছে দিন দিন। আবার এই সব ভয়ংকর গুনাহ মানুষের হুশ নেই। শয়তান কুমন্ত্রণাদাতা জেনেও মানুষের চরিত্র শয়তানের হয়ে গেছে। এরা পক্ষ বিপক্ষ পকৃতসাধু শয়তানের দল। সভ‍্যতার মুখোশ পরা শয়তানএদের কাজ হতে সাবধান। পকৃতির অভিশাপ মহামারী আক্রান্ত মৃত্যুর মাঝেই এদের চরিত্র এদের মদ নারী ক্লাব গভীর রাতের মদের আর্ডা। সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্রের মত সত্যিকার অভিনেত্রীর মত পরিমণিরা যেন সভ‍্যসমাজের ভদ্র মহিলার বাড়িতে ডাকাতের হামলা মান ইজ্জত ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়ে গেল??উভয় পক্ষ সমাজের জন‍্যে অভিশাপ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন