শুক্রবার, ০৬ আগস্ট ২০২১, ২২ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৬ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

নোয়াখালীতে করোনায় আরও ২জনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ১০১

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০২১, ১২:৪০ পিএম

নোয়াখালীতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ২জনের মৃত্যু হয়েছে। জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১২৯জন। গত ২৪ঘন্টায় নতুন করে আরও ১০১জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার শতকরা ২৫দশমিক ৭০ শতাংশ। মোট আক্রান্ত ছাড়াল ১০হাজার ১২জন।

বৃহস্পতিবার সকালে তথ্যগুলো নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার।

তিনি জানান, গত ২৪ঘন্টায় সদর ও বেগমগঞ্জ উপজেলায় দুই জন করোনা রোগী মারা গেছেন। জেলার তিনটি পিসিআর ল্যাবে ৩৯৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। উপজেলার অনুসাওে আক্রান্ত সংখ্যা নোয়াখালী সদরে ৬০, বেগমগঞ্জে ১৫, সোনাইমুড়ীতে ৭, চাটখিলে ২, সেনবাগে ৫, কোম্পানীগঞ্জে ৮ ও কবিরহাট উপজেলার ৪জন রোগী রয়েছে। জেলায় মোট সুস্থ্য হয়েছেন ৭হাজার ১৫৯জন, শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থ্যতার হার শতকরা ৭১দশমিক ৫০। আইসোলেশনে রয়েছেন ২৭২৪জন ও শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামের অস্থায়ী কোভিড হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৫৫জন রোগী।

এদিকে, জেলা শহর মাইজদীতে প্রশাসনের তৎপরতায় কঠোর লকডাউন চললেও শহরের বাইরে সম্পূন্ন ভিন্ন। হাট, বাজার, দোকান-পাট ও সড়কে চলাচলকারী লোকজনের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোন বালাই নেই। লকডাউনকৃত ইউনিয়নগুলোর প্রতিটি বাজারে খোলা রয়েছে সকল দোকান পাট। লকডাউন অমান্য ও স্বাস্থ্য বিধি না মানায় বুধবার রাত পর্যন্ত লকডাউনকৃত এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৪টি মামলায় বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ২৩হাজার ৭০০টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

অন্যদিকে, করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত ৫জুন থেকে নোয়াখালী পৌরসভা ও সদর উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নে ৭দিনের বিশেষ লকডাউন ঘোষণা করে জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটি। কিন্তু সংক্রমণ বৃদ্ধি অব্যহত থাকায় দ্বিতীয় দফায় গত ১২জুন আরও ৭দিনের কঠোর লকডাউন ঘোষণা করেন ওই কমিটি। দুই দফায় লকডাউনের আজ ১৩তম দিন শেষ হলেও নোয়াখালী পৌরসভা ও সদর উপজেলায় কমছে না আক্রান্তের সংখ্যা। প্রতিদিন শনাক্তের প্রায় ৪৫ থেকে ৫৫ভাগ রোগীই পৌরসভা ও সদর উপজেলার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন