মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬ আশ্বিন ১৪২৮, ১৩ সফর ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

ফের নতুন বিতর্কে জড়ালেন নুসরাত জাহান!

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ জুন, ২০২১, ১১:৩৫ এএম

নিখিলের সঙ্গে বিয়ের অ্যানালমেন্ট প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পরই নাকি লোকসভার স্পিকারকে চিঠি লিখে সেকথা জানিয়েছিলেন সাংসদ ও অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। ম্যারেজ অ্যানালমেন্টের প্রতিলিপিও জমা দিয়েছেন বলে দাবি তার। বিজেপি সাংসদ সংঘমিত্রা মৌর্যর লোকসভায় ভুয়া তথ্য দেওয়ার অভিযোগের পাল্টা জবাব দিতে গিয়ে একথাই জানিয়েছেন নুসরাত। কিন্তু তারপরই উঠছে নতুন প্রশ্ন। লোকসভায় যদি নুসরাত ম্যারেজ অ্যানালমেন্টের প্রতিলিপি জমা দিয়ে থাকেন, তাহলে কিছুদিন আগের বিবৃতিতে নিখিলের সঙ্গে বিয়েকে অস্বীকার করেছিলেন কেন? কেনই বা নিখিলের সঙ্গে লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন বলে দাবি করেছিলেন।

উল্লেখ্য, সেপ্টেম্বরে মা হতে চলেছেন নুসরাত জাহান। এই খবর প্রকাশ্যে আসার পরই নিখিল জৈন জানিয়েছিলেন তিনি নুসরাতের সন্তানের বাবা নন। বহুদিন থেকেই আলাদা থাকেন দু’জনে। সেই সময়ই নিখিল জানিয়েছিলেন, বিচ্ছেদের জন্য তিনি দেওয়ানি আদালতে মামলা করেছেন। যেহেতু তাদের ম্যারেজ রেজিস্ট্রেশন হয়নি। তাই অ্যানালমেন্ট করেই আলাদা হতে হবে। আর তার জন্য নুসরাতকে শুধু আদালতে গিয়ে বলতে হবে, তিনি নিখিল জৈনের সঙ্গে আর থাকতে চান না এবং ভবিষ্যতে কোনও সম্পর্কও রাখবেন না।

কিন্তু এরপরই ৯ জুন বিবৃতি প্রকাশ করে নুসরাত জাহান জানান, তুরস্কে তার ও নিখিলের যে ডেস্টিনেশন ওয়েডিং হয়েছিল তা ভারতে বৈধ নয়। তাই নিখিলের সঙ্গে তার বিয়েই হয়নি। তারা লিভ-ইন সম্পর্কে ছিলেন মাত্র। তাই বিচ্ছেদের প্রশ্নই আসে না। এর ঘটনার উল্লেখ করেই ১৯ জুন লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লাকে চিঠি লিখেছিলেন উত্তরপ্রদেশের বদায়ুনের সাংসদ সংঘমিত্রা মৌর্য।

নিজের চিঠিতে তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহানের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়ে সংঘমিত্রা উল্লেখ করেন, কীভাবে ২০১৯ সালের ২৫ জুন সংসদে শাড়ি ও সিঁদুর পরে হিন্দু বাড়ির বউয়ের বেশে সংসদে গিয়েছিলেন নুসরাত। তারপর শপথ নেওয়ার সময়ও নিজেকে নুসরাত জাহান রুহি জৈন হিসেবে পরিচয় দিয়েছিলেন। চিঠিতে নুসরাতের লোকসভার প্রোফাইলের প্রতিলিপিও জুড়ে দেন বদায়ুনের বিজেপি সাংসদ। যেখানে নুসরাতের স্বামী হিসেবে নিখিল জৈনের নাম লেখা। এ বিষয়ে বিস্তারিত তদন্ত করুক সংসদের এথিকস কমিটি। এই দাবি জানিয়েছিলেন বিজেপি সাংসদ। তার সেই অভিযোগের জবাব দিতে গিয়েই নতুন বিতর্কে জড়ালেন বসিরহাটের এই তারকা সাংসদ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
ইকবাল হোসেন ২৪ জুন, ২০২১, ৫:৫৭ পিএম says : 0
তারকা মানেই বিতর্ক ভরা জীবন!!!
Total Reply(0)
সাইমন রাকিব ২৪ জুন, ২০২১, ৫:৫৭ পিএম says : 0
বিতর্ক তাদের পিছু ছাড়ে না। কারণ বিতর্কই তাদের ভাইরাল করে
Total Reply(0)
মেহের আলী ২৪ জুন, ২০২১, ৫:৫৮ পিএম says : 0
তাদের সম্পর্কে জানার কোনো আগ্রহই নেই।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন