রোববার, ২৬ জুন ২০২২, ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৫ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

নির্দিষ্ট স্ট্যান্ড না থাকায় যানজটে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী

প্রকাশের সময় : ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬, ১২:০০ এএম

দুপচাঁচিয়া (বগুড়া) উপজেলা সংবাদদাতা

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলা সদরের সিও অফিস বাসস্ট্যান্ডের ব্যস্ততম চার মাথা এলাকায় নির্দিষ্ট কোন রিকশা, অটো ভ্যানসহ ভটভটি, স্কুটারের নির্দিষ্ট স্ট্যান্ড না থাকায় যানজটের কারণে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে এলাকাবাসী। উপজেলার জনগুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোর মধ্যে সিও অফিস বাসস্ট্যান্ড একটি উল্লেখযোগ্য। বগুড়া-নওগাঁ মহাসডকের পাশে এই দুপচাঁচিয়া সিও অফিস বাসস্ট্যান্ডের দক্ষিণে সড়কটি উপজেলার প্রবেশ পথ, আর উত্তরের সড়কটি সরকারি হাসপাতাল হয়ে আক্কেলপুর গিয়ে মিলেছে। এই সড়ক দুইটির পার্শ্ব দিয়েই বিভিন্ন মার্কেট, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। ফলে প্রতিদিন ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত এই সিও অফিস বাসস্ট্যান্ড এলাকা দিয়ে হাজার হাজার মানুষ চলাচল করে। জনগুরুত্বপূর্ণ এই বাসস্ট্যান্ড এলাকায় গাড়ি পার্কিংয়ের নেই কোন ব্যবস্থা। রিকশা, ভ্যান, স্কুটার, ভটভটি যত্রতত্রভাবে দাঁড়িয়ে থাকে। এবং যাত্রী ওঠানামা করায়। ফলে দিনের বেশি ভাগ সময় এই সড়কে যানজট সৃষ্টি হয়। এতে বিভিন্ন যাত্রীর পাশাপাশি এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে সামান্য বৃষ্টি নামলেই যানজটের কবলে পড়ে এলাকাবাসীর দুর্ভোগ আরো বেড়ে যায়। এ ছাড়াও সরকারি বিভিন্ন যানবাহন এই সব যানজটে আটকা পড়ে বিলম্বনায় পড়তে হয়। দুপচাঁচিয়া উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় জনগুরুত্বপূর্ণ সিও অফিস বাসস্ট্যান্ড এলাকায় যানজট নিরসনের বিষয়ে আলোচনা হলেও বাস্তবে তার কোন কার্যকারিতা চোখে পড়ে নাই। এ ব্যাপারে উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহেদ পারভেজের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভায় বিষয়টি নিয়ে একাধিকার আলোচনা হলেও এই বাসস্ট্যান্ড এলাকার চারপার্শ্বে কোথাও গাড়ি পার্কিং করার মত খোলা কোন জায়গা না থাকায় এখানে কোন রিকশা, ভটভটি, অটো স্ট্যান্ড স্থাপন করা সম্ভব হচ্ছে না। একই সাথে তিনি জানান, এলাকাটি পৌরসভার আওতাভুক্ত। জনদুর্ভোগ লাঘবে পৌর মেয়র যানজট নিরসনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন। এদিকে প্রতিদিনের দুর্ভোগের শিকার এলাকাবাসী এই বাসস্ট্যান্ড এলাকায় যানজট নিরসনে দ্রুত কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps