শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২ আশ্বিন ১৪২৮, ০৯ সফর ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

তারেক রহমানকে দু’বছর চুপ থাকার পরামর্শ দিলেন ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ জুন, ২০২১, ৫:৪০ পিএম

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, খালেদা জিয়ার চেহারার দিকে লক্ষ করে দেখেছেন? তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেওয়া হচ্ছে। বিএনপির লোকেরা সেটাও উপলব্ধি করে না। তারা যেভাবে তাকে জীবিত থাকতে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিতে শুরু করেছে, সেটা হয়তো বিএনপির লোকেরা উপলব্ধি করছে না। তারা যদি মুক্তি চায়, তবে তারেক রহমান দুই বছর চুপচাপ বসে থাক, বিলেতে লেখাপড়ায় যুক্ত হয়ে যাক। আজ শনিবার দুপুরে শিক্ষায় প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি করোনাকালীন শিক্ষা বাজেট ২০২১-২০২২ নিয়ে বৈঠকে তিনি একথা বলেন।

 

তিনি আরও বলেন, আমি মনে করি বিএনপিকে জাগতে হলে জাইমাকে দেশে আসতে হবে। জাইমা তরুণ আছে, সে এসে দায়িত্ব নিলে ক্ষমতার পরিবর্তন হবে। সম্মিলিত প্রচেষ্টা চালাতে হবে। সবাইকে একত্রিত হয়ে কাজ করতে হবে। তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় আসলে সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে, হবে না। কারণ, বিএনপির তো আসার ইচ্ছে নেই। বিএনপিকে তো ক্ষমতায় আসতে হবে। আর সেজন্য আগ্রহ থাকতে হবে। আজকে বিএনপি পরিচালিত হচ্ছে ওহি দিয়া। সেই ওহি লন্ডন থেকে ভেসে আসছে। আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ড. আ ন ম এহসানুল হক মিলন ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভাইস চ্যান্সেলর ড. আনোয়ার উল্লাহ চৌধুরী, মাহমুদুর রহমান মান্না, ড. দিলারা চৌধুরী প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
Md.Fazlur Rahman Mukta ২৬ জুন, ২০২১, ৫:৫৪ পিএম says : 0
বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করে ইনকিলাব
Total Reply(0)
Nisar Ahmed ২৬ জুন, ২০২১, ৬:৩০ পিএম says : 0
ডাক্তার জাফুল্লাহ বিএনপি সম্পর্কে সঠিক কথা বলেছেন। তারা 12 বছর থেকে ঘুমিয়ে আছে।
Total Reply(0)
Humayun ২৬ জুন, ২০২১, ৭:৩৮ পিএম says : 0
জাফরুল্লা সাহেব বিএনপিকে নিঃশেষ করতে চান ।বিগত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দালালী করে বিএনপিকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে আগ্রহী করেছেন ।এবং আওয়ামী লীগ সরকারকে সারা দুনিয়ার কাছে গ্রহণযোগ্য করেছেন ।খালেদা জিয়ার জন্য তার আলগা দরদ উতলাইয়া পরেছে!মার চেয়ে মাসির দরদ বেশি ।কিছু নেতা কর্মী এখনও এই চতুর লোকটার চাল বুঝতে পারছে না ।
Total Reply(0)
মোঃ+দুলাল+মিয়া ২৬ জুন, ২০২১, ৮:১৪ পিএম says : 0
যুক্তি সংগত কথা,আওয়ামী লীগ আরো দুই বসর ক্ষমতায় আছে থাকবে থাকুন,1991ইংতে সংগ্রাম করে এরশাদ সরকারের পতন হয়েছে,তখন বাংলাদেশে ছিল রাষ্ট্র পতি পদ্ধতি,জনগণের শান্তির জন্য জনগণের অধিকার পাওয়ার জন্য,খালেদা জিয়া সেখ হাসিনা দুইজন মিলেই সংবিধান সংশোধন করলেন,এবং রাষ্ট্র পতি পদ্ধতি বাতিল করলেন,এবং সংসদীয় পদ্ধতি করলেন এই মর্মে রাষ্ট্র পতি এক নায়ক এবং চৌরাচার, ঠিক আছে রাষ্ট্র পতি চৌর চৌরাচার,কিন্তু সংসদীয় পদ্ধতি করার পর যাহা দেখতেছি ,চৌরের উপর ডাকাত,তাইলে জনগণের জন্য চৌরই ভালে ছিল,যেমন চৌর চুরি করলে ও জনগণের কথার অধিকার ছিল,ছিলনা ঘুম খুন অত্যাচার অবিচার ছিল না,লুঠ পাঠ ছিল না সাংবাদিক খুন ছিলনা ভোট ডাকাতি ছিলনা রাতের অন্ধকারে ভোটের বাক্স পুল করে জনগণ কে ধোঁকা দেওয়া,কিন্তু সংসদীয় পদ্ধতি করে এই গুলি চলতেছে,তাইলে কি রাষ্ট্র পতি পদ্ধতি ভালো ছিল না কি বর্তমান মেগা তন্ত্র সংসদীয় পদ্ধতি ভালো,পাঁচ বছর পর পর নির্বাচন হবে,জনগণ পাঁচ বছরের জন্য ভোটের মাধ্যমে জনগণের প্রতিনিধি বেঁচে নিবে,প্রতিনিধির মেয়াদ পাঁচ বছর শেষ হবে,সে সরে যাবে এবং কি প্রধান বিচারপতির কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করবে,প্রধান বিচারপতি সব দলের মাধ্যমে নিরপক্ষে সরকার গঠন করবে এবং নিরপক্ষে সরকারের হাতে ক্ষমতা দিয়ে নির্বাচন করবে,নির্বাচনে যে ক্ষমতায় আসবে সে আবার পাঁচ বসরের জন্য ক্ষমতায় থাকবে,ক্ষমতায় যাওয়ার পর সে চৌর অথবা ডাকাত অথবা মাপিয়া যাই হবে পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকবে,যদিও সে চৌর অথবা ডাকাত অথবা মাপিয়া অথবা ভালো যাই হোক জনগণ ভোট দিয়ে বসাইয়াছে।কিছু করার নেই ,কিন্তু পাঁচ বছর শেষ হবার পরে আইন সং গত ভাবে না যাইয়া জোরপূর্বক জোর জবরদস্তি নিজের হাতে ক্ষমতা রেখে নির্বাচন দিয়ে ক্ষমতায় আসা এইটা কি সংসদীয় পদ্ধতি,আমি মনে করি এই টা রাজতন্ত্রের মতই রাজা মশাই যা করবেন তাই হবে,কীসের জনগণ রাজা মশাই তার ইচ্ছা মত শাসন করবেন,এখন সংসদীয় পদ্ধতিতে যদি রাজা মেশাই হয়ে রাজতন্ত্র হয়ে যায় এবং উজির নাজিরের অত্যাচার চলে,তাইলে কি রাষ্ট্র পতি চৌর ভালো ছিল না কি বরতমানে রাজতন্ত্রের উজির নাজিরের তন্ত্র ভালো ছিল আপনারা বিবেচনা করেন, আমি ডাঃ জাফরুল্লা সাহেবের সাথে এই মর্মে একমত তারেক রহমান দুই বসর চুপ থাকুক আওয়ামী লীগ দুই বসর ক্ষমতায় আছে থাকুক ,দুই বসর পরে যদি তত্ত্বাবধায়ক সরকারের নিকট আওয়ামী লীগ ক্ষমতা না দেন,আবার সেই একই কায়দায় ক্ষমতা দখল করে রাখেন,তখন আমরা তারেক জিয়াকে ডাকবে দেশে আসবে জনগণ তারেক জিয়াকে নিয়ে সংগ্রাম গড়ে তুলবে,আওয়ামী লীগ কে একদলীয় শাসন থেকে সরে যেতে বাধ্য করা হবে,এবং সংবিধান সংশোধন করে পুনরায় আবার চৌরের রাষ্ট্র পতি পদ্ধতি করাই ভালো হবে,ডাকাত সংসদীয় পদ্ধতির দরকার নেই,আমরা আবার সংবিধান সংশোধন করবে,সংসদীয় পদ্ধতি বাতিল করবে রাষ্ট্র পতি পদ্ধতি চালু করে তারেক রহমান কে ইনসআললাহ রাষ্ট্র পতি বানাবে।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন